বড় খবর

আমহার্স্ট স্ট্রিটে ধুন্ধুমার, তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষ, ভাঙল অর্জুন সিংয়ের কনভয়ের কাচ

গেরুয়া দলের নেতাদের লক্ষ্য করে ঝাঁটা, জুতো, কালো পতাকা ছোড়ার অভিযোগ করা হয়েছে।

বিজেপি-র রোড শো ঘিরে আমহার্স্ট স্ট্রিট থানার কাছে ধুন্ধুমার পরিস্থিতি। বুধবার সন্ধ্যায় সন্তোষ মিত্র স্কোয়ার সংলগ্ন লেবুতলায় বিজেপির যোগদান মেলা রয়েছে। সেই উপলক্ষেই এদিন বিকেলে মুকুল রায়, অর্জুন সিং, রাজীব বন্দ্যোপাধ্যের নেতৃত্বে আমহার্স্ট স্ট্রিটের হৃষিকেশ পার্ক থেকে থেকে রোড শো হয়। সেই ব়্যালি ঘিরেই তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

গেরুয়া দলের নেতাদের লক্ষ্য করে ঝাঁটা, জুতো, কালো পতাকা ছোড়ার অভিযোগ করা হয়েছে। চলে ইঁট বৃষ্টি। ভেঙে ফেলা হয় সাংসদ অর্জুন সিংয়ের কনভয়ের গাড়ির কাচ। তৃণমূল দুষ্কৃতিরা পুলিশের সামনেই এই হামলা চালিয়েছে বলে অভিযোগ বিজেপি নেতাদের।

বিজেপি নেতা রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের অভিযোগ, ‘বিজেপির বাড়বাড়ন্ত দেখে ভয় পাচ্ছে তৃণমূল। তাই ব়্যালি আটকানোর জন্য এ ধরণের হামলা চালাচ্ছে শাসক দল। এটা রাজনৈতিক শিষ্টাচার বিরোধী। তবে এভাবে বিজেপিকে রোখা যাবে না। এতে বাংলার সংস্কৃতি ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।’

যুযুধান দুই দলেরসংঘর্ষের রেশ ছড়িয়ে পড়ে গোটা আমহার্স্ট স্ট্রিট অঞ্চলে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে সিটি কলেজে, সেন্ট পলস কলেজের সামনেপুলিশকে লাঠিচার্জ করতে হয়।

এদিকে এর আগে বিজেপির পরিবর্তন যাত্রাকে কেন্দ্র করে রণক্ষেত্র হয়ে ওঠে কাঁচরাপাড়ার কাপামোড় এলাকা। যাত্রায় বাধা দেওয়ার অভিযোগ তোলা হয় পুলিশের বিরুদ্ধে। বিজেপি কর্মীরা ব্যারিকেড ভেঙে এগোনোর চেষ্টা করলে ধস্তাধস্তি শুরু হয় দু’পক্ষের। ‘মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে অন্যায় করছে পুলিশ। দিদিমণি আসলে ভয় পেয়েছে। সেই কারণে বারবার পরিবর্তন যাত্রায় বাধা হয়ে দাঁডাচ্ছেন’ বলে দাবি করেন সাংসদ লঅর্জুন সিং।

কাঁচরাপাড়ার কাপামোড় এলাকায় কৈলাস বিজয়বর্গীয়

এরপর রাস্তায় অবস্থান বিক্ষোভে বসে পড়েন কৈলাস বিজয়বর্গীয়।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Kolkata news here. You can also read all the Kolkata news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Bjp tmc clash in kolkata s amherst street

Next Story
টাওয়ার লোকেশনের সূত্রে মাদক-কাণ্ডে গলসি থেকে গ্রেফতার বিজেপি নেতা রাকেশ সিং
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com