আমফানের তাণ্ডবে লন্ডভন্ড আলিপুর চিড়িয়াখানা, কেমন আছে জন্তুরা?

ঘূর্ণিঝড় আমফানের ঝাপটায় চিড়িয়াখানায় ভেঙে পড়েছে একাধিক গাছ। অধিকাংশ গাছেরই বয়স ৫০ বছরেরও বেশি।

By:
Edited By: Souradip Samanta Kolkata  May 22, 2020, 9:15:10 PM

সুপার সাইক্লোন আমফানের তাণ্ডব থেকে রেহাই পেল না আলিপুর চিড়িয়াখানাও। কলকাতার অন্য়ান্য় প্রান্তের মতো চিড়িয়াখানাও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে জানা যাচ্ছে। ঝড়ের ঝাপটায় চিড়িয়াখানায় ভেঙে পড়েছে একাধিক গাছ। অধিকাংশ গাছেরই বয়স ৫০ বছরেরও বেশি। ঝড়ের তাণ্ডবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে হরিণের এনক্লোজার। তবে চিড়িয়াখানায় জন্তুরা সুরক্ষিত রয়েছে বলে সংবাদসংস্থা পিটিআই-কে জানিয়েছেন আলিপুর চিড়িয়াখানার অধিকর্তা আশিস কুমার সামন্ত।

আলিপুর চিড়িয়াখানার আধিকারিকরা জানিয়েছেন, ঝড়ের সময় খাঁচার মধ্য়েই ছিল বাঘ, সিংহ, শিম্পাঞ্জিরা। তাই অক্ষতই রয়েছে তারা। তবে হরিণ ও অস্ট্রিচের এনক্লোজারের দেওয়ালের একাংশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তবে জন্তুরা নিরাপদেই রয়েছে।

আরও পড়ুন: মমতার পাশে মোদী, আমফান বিধ্বস্ত বাংলা পুনর্গঠনে হাজার কোটি সাহায্য়

সংবাদসংস্থা পিটিআই-কে আলিপুর চিড়িয়াখানার অধিকর্তা আশিস কুমার সামন্ত আরও জানিয়েছেন, চিড়িয়াখানার কর্মীরা সারাক্ষণ জন্তুদের উপর নজর রেখে চলেছেন। বুধবার ঝড়ের তাণ্ডবে কমপক্ষে ৩৫টি গাছ ভেঙে পড়েছে।

আরও পড়ুন: আয়লার থেকেও ভয়ঙ্কর আমফান: রাষ্ট্রসংঘ

আলিপুর চিড়িয়াখানা সূত্রে খবর, কুমিরের এনক্লোজারের উপর একটা গাছ ভেঙে পড়েছিল। তাই সঙ্গে সঙ্গে ওই গাছটা সরাতে হয়েছিল। তা না হলে, গাছের উপর চড়ে বাইরে বেরিয়ে আসতে পারত কুমিরগুলো।

উল্লেখ্য়, করোনা মোকাবিলায় লকডাউনের জেরে মার্চের মাঝ সপ্তাহ থেকে বন্ধ রয়েছে আলিপুর চিড়িয়াখানা। ১৮৭৬ সালে তৈরি হয়েছিল এই ঐতিহ্য়শালী চিড়িয়াখানা। বর্তমানে আলিপুর চিড়িয়াখানায় বাঘ, সিংহ, হাতি, জেব্রা, জিরাফ, বিভিন্ন ধরনের পাখি-সহ ১ হাজার ১০০টি জন্তু রয়েছে।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get all the Latest Bengali News and West Bengal News at Indian Express Bangla. You can also catch all the Kolkata News in Bangla by following us on Twitter and Facebook

Web Title:

Cyclone amphan uproots trees damages deer enclosure in alipore zoo

The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com.
Advertisement

ট্রেন্ডিং
রাজ্য রাজনীতি
X