বড় খবর

প্রতিবাদী শিক্ষিকাদের ‘বিজেপি ক্যাডার’ বলে তোপ, বিস্ফোরক ফেসবুক পোস্ট ব্রাত্যর

ওই পাঁচ শিক্ষিকার বিরুদ্ধে জামিন অযোগ্য ধারায় মামলা রুজু হয়েছে। স্বতঃপ্রণোদিত ভাবে মামলা দায়ের করেছে বিধাননগর উত্তর থানার পুলিশ।

শিক্ষিকাদের বিজেপি ক্যাডার বলে তোপ দাগলেন শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু।

বদলির প্রতিবাদে বিকাশ ভবনের বাইরে বিষপান করে আত্মহত্যার চেষ্টা করা শিক্ষিকাদের বিজেপি ক্যাডার বলে তোপ দাগলেন শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু। মঙ্গলবার বিকেলের ঘটনায় সংবাদমাধ্যমের কাছে মুখ না খুললেও বুধবার দুপুরে নিজের ফেসবুক পেজে একটি পোস্টে বিস্ফোরক অভিযোগ করেছেন শিক্ষামন্ত্রী। এদিকে, ওই পাঁচ শিক্ষিকার বিরুদ্ধে জামিন অযোগ্য ধারায় মামলা রুজু হয়েছে। স্বতঃপ্রণোদিত ভাবে মামলা দায়ের করেছে বিধাননগর উত্তর থানার পুলিশ।

এদিন ফেসবুক পেজে পয়েন্ট করে করে রাজ্যের শিক্ষা ব্যবস্থা নিয়ে লিখেছেন ব্রাত্য। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার সহায়ক শিক্ষকদের জন্য কী কী করেছে তা পয়েন্ট করে লিখেছেন ব্রাত্য। তিনি লিখেছেন, “বাম সরকারের আমলে পঞ্চায়েত এবং গ্রামোন্নয়ন বিভাগের অধীনে SSK এবং MSK-র সহায়ক/সহায়িকা, সম্প্রসারক/সম্প্রসারিকারা নামমাত্র সাম্মানিক-এর বিনিময়ে কাজ করতেন। কাজের নিশ্চয়তা, আর্থিক নিরাপত্তা এবং অবসরকালীন সুযোগসুবিধা বলে কিছু ছিলো না। কিন্তু মমতা বন্দোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে তৃণমূল সরকার ১লা ডিসেম্বর, ২০২০ থেকে SSK এবং MSK-গুলিকে বিদ্যালয় শিক্ষা বিভাগের অধীনে এনে একটি সুসংবদ্ধ রূপ দেয়।

• সহায়ক সহায়িকাদের সাম্মানিক বাড়িয়ে মাসিক ১০৩৪০ টাকা এবং সম্প্রসারক/সম্প্রসারিকাদের সাম্মানিক বাড়িয়ে ১৩৩৯০ টাকা করা হয়। এছাড়াও বাৎসরিক ৩% বৃদ্ধি বা ইনক্রিমেন্ট চালু করা হয়েছে।
• প্রত্যেককে স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্পের অধীনে নিয়ে আসা হয়েছে।
• যাঁরা ৬০ বছর বয়সে অবসর নেওয়ার সিদ্ধান্ত জানিয়েছেন, তাঁদের অবসরের সময়ে প্রত্যেকের জন্য ৩ লাখ টাকা এককালীন অবসর-ভাতা চালু করা হয়েছে। বাকিদের জন্যও এই সুবিধা দানের বিষয়ে অর্থ দফতরের সঙ্গে ফাইল চলছে।
• ৬০ বছর বয়েসে অবসর নেওয়ার সিদ্ধান্ত যাঁরা জানিয়েছেন, তাঁদের জন্য ১/২/২১ থেকে প্রভিডেন্ট ফান্ড চালু করা হয়েছে।
• মহিলাদের জন্য সরকারি নিয়মানুযায়ী মাতৃত্বকালীন ছুটির ব্যবস্থা করা হয়েছে।
• এছাড়াও প্রত্যেককের জন্য চিকিৎসা সংক্রান্ত সহ বাৎসরিক ১৮ দিন ক্যাজুয়াল লিভ বা ছুটির অধিকার দেওয়া হয়েছে।

তারপরেও যারা আন্দোলন করছেন, তারা শিক্ষক শিক্ষিকা নন, বিজেপি ক্যাডার।”

আরও পড়ুন বিকাশ ভবনের সামনে শিক্ষিকাদের বিষপানের ঘটনায় রাজ্যকে তোপ দিলীপের

এদিকে, শিক্ষিকাদের বিষপানের ঘটনায় রাজনৈতিক তরজা চরমে রাজ্যে। অসুস্থ শিক্ষিকাদের দেখতে হাসপাতালে গিয়েছিলেন রাজ্য বিজেপি নেতারা। তারপরেই ব্রাত্য এই পোস্ট একপ্রকার বিজেপিকেও তোপ দাগার সমান। প্রসঙ্গত, বদলির প্রতিবাদে আত্মহত্যার চেষ্টা করা ৫ শিক্ষিকার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়ছে। স্বতঃপ্রণোদিত মামলা রুজু করেছে পুলিশ। একাধিক জামিন অযোগ্য ধারায় মামলা রুজু বিধাননগর উত্তর থানায়। পুলিশের কাজে বাধা, আত্মহত্যার চেষ্টা, সরকারি নির্দেশ অমান্য-সহ একাধিক ধারায় করা হয়েছে মামলা।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Kolkata news here. You can also read all the Kolkata news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Education minister bratya basu tagged protesting teachers as bjp cadres

Next Story
বদলির নির্দেশে ক্ষোভ, বিষ খেলেন পাঁচ শিক্ষিকাFive teachers are ate poision in front of salt lake bikash bhavan
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com