বড় খবর

অতিমারীতেও ‘নোংরা রাজনীতি’ রাজ্যে! ‘ভেড়ার পাল’ নিয়ে রাজভবনের সামনে ‘তীব্র প্রতিবাদ’

প্রতিবাদী ব্যক্তির সপাট মন্তব্য, “ভেড়ার জায়গা যেখানে, সেখানেই তো ভেড়াদের নিয়ে যাব।”

rajbhawan

সোমবার সকাল থেকেই রাজ্য-কেন্দ্র সংঘর্ষের মাঝে উঁকি দিয়েছে একটাই নাম- জগদীপ ধনকড় (Jagdeep Dhankar)। আজ তাঁর জন্মদিন। কিন্তু রাজ্যের কোভিড পরিস্থিতি এবং ভোট পরবর্তী হিংসার জন্য শোকাহত! তাই এবছর জন্মদিন উদযাপন করছেন না বলে সোমবার গভীর রাতেই টুইট করে জানিয়েছিলেন। কিন্তু সেই বিশেষ দিনে রাজভবনের সামনে এ কী কাণ্ড! আচমকাই একপাল ভেড়া নিয়ে রাজভবনের (Raj Bhawan) সামনে ধূমকেতুর মতো উপস্থিত এক ব্যক্তি। এদিকে সেই ভেড়ার পাল আর সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির কাণ্ড কারখানা দেখে হতবাক নিরাপত্তারক্ষীরা। ঘটনায় এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। পরিস্থিতি সামাল দিতে নাজেহালও হতে হয় তাঁদের।

কিন্তু হঠাৎ কেন রাজভবনের সামনে ভেড়ার পাল নিয়ে হাজির ওই ব্যক্তি? তাঁর তীব্র প্রতিবাদ, অতিমারীর সময়ে রাজনৈতিক দলগুলির জমায়েত হতে পারে। রাজ্যের কোভিড পরিস্থিতি নিয়ে রাজ্যপালের কোনও মাথাব্যথা নেই। উপরন্তু লকডাউনে ভেড়ার ভরনপোষণ করতে গিয়েও খাবি খেতে হচ্ছে তাঁকে। তাই এই প্রতিবাদ।

প্রতিবাদী ব্যক্তির মন্তব্য, “অতিমারীর মধ্যে নোংরা রাজনীতি চলছে। তার জন্য দায়ী রাজ্যপালই।” কিন্তু কে এই ব্যক্তি? জিজ্ঞেস করলে জানান, সিটিজেন এগেনস্ট ডার্টি পলিটিক্স অ্যান্ড কোরাপশন নামে একটি সংগঠনের সদস্য তিনি।
রাজভবনের গেটের সামনে ভেড়ার পাল নিয়ে বসতেই তাঁকে সেখান থেকে সরিয়ে দেন পুলিশকর্মীরা।

কিন্তু প্রতিবাদের জন্য ভেড়াকেই কেন বাছলেন তিনি? ওই ব্যক্তির সপাট উত্তর, “ভেড়ার জায়গা যেখানে, সেখানেই তো ভেড়াদের নিয়ে যাব।”

Get the latest Bengali news and Kolkata news here. You can also read all the Kolkata news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Man stages protest in front of raj bhawan with a flock of sheep

Next Story
বুকে ব্যথা নিয়ে উডবার্ন ওয়ার্ডের ১০২ নম্বর কেবিনে সুব্রত, পাশের কেবিনেই মদন-শোভনNarada Sting, CBI
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com