বড় খবর

ঝাঁঝে মরে যাওয়ার দশা! অগ্নিমূল্য পেঁয়াজ

পেঁয়াজের ঝাঁঝেই এখন চোখে জল গৃহস্তের এবং কপালে ভাঁজ বিক্রেতার। দাম বাড়তে বাড়তে এমন পর্যায়ে পৌঁছেছে যে শুক্রবার থেকে পেঁয়াজের কিলো প্রতি দাম পৌঁছেচ্ছে ৮০ টাকায়।

পেঁয়াজের দাম অগ্নিমূল্য

‘সোনা নাকি দাদা’! ‘ এখন থেকে তো মনে হচ্ছে নিরামিষাশী হয়ে যেতে হবে দেখছি’!, ‘ডাকাতি তো! দাদা, একটু কম করুন ‘! খাস কলকাতার শ্যামবাজারই হোক অথবা শহরতলির কোনও পৌর বাজার, থলী হাতে ঘোরা জনতার মুখে দিন কয়েক ধরে কেবলই এইসব সংলাপ শোনা যাচ্ছে। আর অন্যদিকে, দোকানীর ভাষ্য, ‘কিনতে হলে কিনুন, এর চেয়ে এক পয়সা কমানো সম্ভব না’। সাফ কথা। যে মহার্ঘ দ্রব্যকে ঘিরে ক্রেতা-বিক্রেতার এই বেয়াড়া বাক্য বিনিময়, তাহল পেঁয়াজ। আপাত নিরীহ এই পেঁয়াজের ঝাঁঝেই এখন চোখে জল গৃহস্তের এবং কপালে ভাঁজ বিক্রেতার। দাম বাড়তে বাড়তে এমন পর্যায়ে পৌঁছেছে যে শুক্রবার থেকে পেঁয়াজের কিলো পৌঁছেছে ৮০ টাকায়।

গত বছরও এই সময় পেঁয়াজের দাম ছিল ২০ থেকে ৩০ টাকা। কিন্তু এ বছর সেই দাম দ্বিগুনেরও বেশি। জানা যাচ্ছে, দিল্লিতে পেঁয়াজের দাম সেঞ্চুরি হাকিয়েছে। কেন পেঁয়াজের দাম এত বাড়ল? এই প্রশ্নে শ্যামবাজারের পেঁয়াজ বিক্রেতা অমল গুঁই ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা-কে বলেন, ” আগামী বেশ কিছুদিনে দাম কমার কোনো আশা নেই। কারণ, এ বছর বর্ষা ঢুকতে অনেক দেরি করেছে। কাজেই পেঁয়াজের ফলনে ক্ষতি হয়েছে। পেঁয়াজ তোলার আগেই তাতে জল লেগে গেলে পেঁয়াজ নষ্ট হয়ে যায়। এ বছর সেটাই হয়েছে। নতুন পেঁয়াজের ফলন না হলে দাম কমা সম্ভব নয়”।

সপ্তাহখানেক পর কমতে পারে পেঁয়াজের দাম

উল্লেখ্য, পুজোর মাস (অক্টোবর) থেকেই পেঁয়াজ ছিল অগ্নিমূল্য। উৎসবের মরশুম বলে মধ্যবিত্ত খানিক মানিয়েও নিয়েছিল। কিন্তু এখন পেঁয়াজের দামের ঝাঁঝে চোখে জল আসছে আমজনতার। মূলত বাংলা, মহারাষ্ট্রের নাসিক, কর্ণাটকের মাকালি ও অন্ধ্রের কুরনুল থেকে পেঁয়াজের আমদানি হয়। এ বছর কিছু রাজ্যে বন্যা হওয়ায় পেঁয়াজের উৎপাদন তলানিতে গিয়ে ঠেকেছে। সম্প্রতি বাজারদর নিয়ে কেন্দ্রীয় বৈঠকের পর  দেশে পেঁয়াজের জোগান বাড়াতে ইরান, মিশর এবং আফগানিস্তানের শরণাপন্ন হয়েছে ভারত। ‘ওয়েষ্টবেঙ্গল ফোরাম অব ট্রেডার্স অর্গ্যানাইসেশন’-এর সাধারণ সম্পাদক রবীন্দ্রনাথ কোলে ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা-কে বলেন, ”বিদেশি পেঁয়াজের প্রভাব বাজারে পড়তে আরও সপ্তাহ খানেক লাগবে। এই সমস্যা শুধু পশ্চিমবঙ্গ নয়, সারা ভারত জুড়েই বাজারদরে আগুন লেগেছে। অকাল বৃষ্টির কোপেই এই হাল। কেন্দ্রীয় সরকার ইতিমধ্যে বিদেশ থেকে পেঁয়াজ আনার বন্দোবস্ত করে ফেলেছে বলে খবর। জানতে পেরেছি, নাসিকের গোডাউন থেকে পেঁয়াজ লোড হওয়াও শুরু হয়েছে। সে কারণে আগামী সপ্তাহে পেঁয়াজের দাম কমার আশা করছি”।

বৌবাজারের পেঁয়াজ বিক্রেতা সন্দীপ সাধুখাঁ ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা-কে বলেন, ”বাংলায় যে পেঁয়াজ উৎপাদন হচ্ছে, তার দাম ৫৫ টাকা কিলো যাচ্ছে। সেই পেঁয়াজ কিনতে মঙ্গলবার থেকে রীতিমত লাইনে দাঁড়াচ্ছে বাঙালি। নিমেষের মধ্যে শেষও হয়ে যাচ্ছে সেই পেঁয়াজ। কারণ চাহিদা অনুযায়ী এর যোগান অনেক কম”।

Get the latest Bengali news and Kolkata news here. You can also read all the Kolkata news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Onion price hike 1 kg 80 rs

Next Story
অ্যাস্ট্রোফিজিক্স বক্তৃতায় হাজির ১,৫৯৮ পড়ুয়া, গিনেস রেকর্ডে নাম কলকাতার
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com