বিজেপি সমর্থিত পিটিটিআই ছাত্র-ছাত্রীদের বিকাশ ভবন অভিযানকে কেন্দ্র করে ধুন্ধুমার ঘটনা ঘটল সেন্ট্রাল অ্যাভেনিউতে। পুলিশ মিছিল ছত্রভঙ্গ করে দেয়। ৬৮ জন আন্দোলনকারীকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তবে সরকার ১৫ দিনের মধ্যে সিদ্ধান্ত না নিলে মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ি ঘেরাও করার হুমকি দিয়েছেন সংগঠনের সভাপতি পিন্টু পাড়ুই।

দীর্ঘ দিন ধরেই প্রাথমিকে নিয়োগের দাবিতে আন্দোলন করছে ওয়েস্ট বেঙ্গল প্রাইমারি ট্রেন্ড টিচার্স অ্যাসোসিয়েশন। এদিন বিজেপির রাজ্য দফতরের সামনে সংগঠনের সদস্যরা জমায়েত হয়। সেখান থেকে বিকাশ ভবন অভিযানের উদ্দেশ্যে মিছিল শুরু করে। মিছিলে ছিলেন রাজ্য বিজেপি নেতা জয় বন্দ্যোপাধ্যায়। মিছিল সেন্ট্রাল অ্যাভেনিউ দিয়ে এগোতেই আটকায় কলকাতা পুলিশ। পুলিশ জানিয়ে দেয় অনুমতি নেই তাই মিছিল করা যাবে না। পুলিশ ছত্রভঙ্গ করে দেয় মিছিল। বেশ কয়েকজনকে পুলিশ গ্রেফতার করে। সন্ধ্যের পর আন্দোলনকারীদের মুক্তি দেয় পুলিশ।

অ্যাসোসিয়েশনের রাজ্য সভাপতি পিন্টু পাড়ুইয়ের হুঁশিয়ারি, “১৭ জন পিটিটিআই ছাত্র-ছাত্রী আত্মহত্যা করেছে। বাকিরা যাতে আত্মহত্যা না করে তার জন্য ১৫ দিন সময় দিলাম। তা নাহলে মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ি ঘেরাও করব। অনশন আন্দোলনের পথেও হাটবে সদস্যরা।” তাঁর দাবি, মুখ্যমন্ত্রী প্রতিশ্রুতি দিয়েও কথা রাখেননি। গত বছর শিক্ষামন্ত্রী তালিকা জমা নিলেও নিয়োগ প্রক্রিয়ার প্রসেস চলছে বলে চালিয়ে যাচ্ছেন। বঞ্চনার শিকার হচ্ছে ট্রেনিং প্রাপ্তরা। প্রায় ৩ হাজারের অধীক পিটিটিআই ছাত্র-ছাত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ক্ষমতায় আসার আগে থেকেই বঞ্চিত।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন