scorecardresearch

বড় খবর
এক ফ্রেমে কেন্দ্রীয় কয়লামন্ত্রী ও কয়লা মাফিয়া, বিজেপিকে বিঁধলেন অভিষেক

ভাইফোঁটার বন্ধন অটুট করতে কলকাতায় মিষ্টির রকমারি

ভাইফোঁটা মানেই ভাই-দাদাদের পাতে সাজিয়ে দিতে হবে পাঁচ পদের মিষ্টি। ভাইফোঁটা শব্দে সাবেকিয়ানা থাকলেও ফিউশনের ছোঁয়ায় বদল এসেছে মিষ্টিতে।

ভাইফোঁটার বন্ধন অটুট করতে কলকাতায় মিষ্টির রকমারি

মঙ্গলবার ভাইফোঁটা, মিষ্টির দোকানে শুরু হয়ে গিয়েছে ঠেলাঠেলি ভিড়। দিদি বোনেরা ব্যস্ত ভাইয়েদের মনপসন্দ মিষ্টি কিনতে। কারণ ভাইফোঁটা মানেই ভাই-দাদাদের পাতে সাজিয়ে দিতে হবে পাঁচ পদের মিষ্টি। ভাইফোঁটা শব্দে সাবেকিয়ানা থাকলেও ফিউশনের ছোঁয়ায় বদল এসেছে মিষ্টিতে। হিন্দুস্থান সুইটসের রবীন পাল ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে বলেন, “মূলত দিদি বোনদের আকৃষ্ট করতেই বিভিন্ন ধরনের মিষ্টি নিয়ে আসা হচ্ছে।”

আগে ভাইফোঁটা উপলক্ষ্যে চন্দ্রপুলি, ক্ষীরের ছাঁচ, পেস্তার বরফি বা ছানার পায়েসের মতো বিশেষ বিশেষ মিষ্টি এবং কুচো নিমকি বা কচুরির মতো নোনতা প্রতিটি বাঙালি বাড়িতেই তৈরি করা হতো। পরে অবশ্য মিষ্টি তৈরি করতেন যাঁরা, তাঁরা বিভিন্ন বনেদি বাড়িতে এসে গিন্নিমাদের ইচ্ছে অনুযায়ী রসগোল্লা, পান্তুয়া, ক্ষীরমোহন, রসখাজা বা পদ্মনিমকি চোখের সমুখেই তৈরি করে দিয়ে যেতেন। সেসব যুগ এখন বইয়ের পাতায়।

bhai phota, ভাইফোঁটাভাইফোঁটার ভিড় মিষ্টির দোকানে

শহরের যেসব এলাকায় একাধিক মিষ্টির দোকান গড়ে উঠেছে, তাদের মধ্যে অন্যতম বৌবাজার। বৌবাজারের নির্মলচন্দ্র স্ট্রিটের বহু বছরের পুরনো দোকান নবকৃষ্ণ গুঁই মিষ্টান্ন ভান্ডার প্রত্যেক বছরই বিভিন্ন ধরনের ভাইফোঁটা স্পেশাল মিষ্টি নিয়ে আসে। সেখানকার কর্ণধার সুপ্রভাত দে বলেন, ভাইফোঁটায় তাঁদের বিশেষ মিষ্টির মধ্যে ‘ইমপ্রেসড গজা’ অন্যতম। সাধারণ গজার চেয়ে যা বেশ খানিকটা বড়, যার ভিতরে রয়েছে রসের মায়াজাল। এক কামড়েই ‘ইমপ্রেসড’ হবেন মানুষ।

এবারের স্পেশাল আইটেমের মধ্যে রয়েছে ডাবর কোম্পানির মধু দিয়ে তৈরি মিষ্টি ‘প্রাণহারা’ ও ‘আবার খাবো’। রয়েছে ‘পেশোয়ারি’, যা সন্দেশ কেশর দিয়ে তৈরি। এর চাহিদা এবার বেশ ভালো। দাম ১৫ টাকা। ‘কোলাপুরি’, যার ভিতরে ক্ষীর ঠাসা, আতর দেওয়া। চার-পাঁচদিন ভালো থাকবে এই মিষ্টি। অপূর্ব তার স্বাদ। একই সঙ্গে ‘লবঙ্গলতিকা’, ‘ডালিম ফুল-এর বেশ চাহিদা রয়েছে। এগুলির দাম ২০ টাকা। তবে এবারের ভাইফোঁটায় দিদি বোনেদের ঝোঁক বেশি সন্দেশে। রয়েছে ‘ভিক্টোরিয়া সন্দেশ’, ‘প্যারাডাইস’, ‘শকুন্তলা সন্দেশ’, ‘ছানার মুড়কি’ ও ‘ক্ষীরের চন্দ্রপুলি’।

bhai phota, ভাইফোঁটা
দোকানে দোকানে বসেছে রকমারি মিষ্টির পসরা

বলরাম মল্লিক এবং রাধারমণ মল্লিকে ভাইফোঁটায় পুরোনো মিষ্টি তো রয়েছেই, সঙ্গে রয়েছে ডাব সন্দেশ। নলেনগুড়ের জল ভরা সন্দেশ, দাম ২০ টাকা থেকে ৬০ টাকা। কেশরের দিলখুশ, আমন্ড পেস্তার পারিজাত, সল্টেড ক্যারামেল সন্দেশ, নলেন গুড়ের আনজিরা, ব্লু বেরি দই, বেকড রসোগোল্লা, ৭০০ টাকা কিলোর কালাকাঁদ, মধুপর্ণা মিষ্টি। এখানে সব মিষ্টিই ২০ থেকে ৬০ টাকার মধ্যে বলে জানিয়েছেন দোকানের এক কর্মী।

হিন্দুস্থান সুইটসের কর্ণধার রবীন পাল বলেন, বহু মিষ্টি রয়েছে এবারের তালিকায়। ছানা দিয়ে তৈরি ‘আনারকলি’, এটি  রসের মিষ্টি। দুধ থেকে তৈরি ক্রিম, পেস্তা, বাদাম, কাজু দিয়ে পরিবেশন করা হয় এই মিষ্টি। যার দাম ২৫ টাকা। ‘ভাইফোঁটা’ সন্দেশ তো রয়েছেই। এবছরে নলেন গুড়ের মিষ্টি ইতিমধ্যে ঢুকে পড়েছে শহরে। কুমকুম সন্দেশ, ঢাকাই পরোটার মতো দেখতে খাজা রয়েছে, ২০ টাকা পিসের বেকড সন্দেশ, অমৃতকুম্ভের মধ্যে করে পাওয়া যাবে বাদামী রঙের বেকড দই, যার ১০০ গ্রামের দাম ৩৫ টাকা। ভাইফোঁটায় মিষ্টি ছাড়াও রয়েছে ২০ টাকার পদ্ম নিমকি, ১৫ টাকার খাস্তা কচুরি।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Lifestyle news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Bhaifota sweets kolkata