বড় খবর

চোখের জল থেকে কি করোনা ছড়ায়? জেনে নিন!

নাক মুখ ঢেকে রাখুন এবং বারবার হাত পরিষ্কার করুন। যদি কনজাংটিভাইটিসের লক্ষণ থাকে তবে আতঙ্কিত হবেন না

প্রতীকী ছবি

ইমোশন হোক বা উত্তেজনা এরকম অনেকেই আছেন, চোখের জল সহজে বাঁধ মানে না! কিন্তু আপনি কি জানেন চোখের জল আপনাকে ভাইরাসের কবলে ঠেলে দিতে পারে। চিকিৎসকদের মতে, অশ্রু বা এমন একটি পৃষ্ঠ স্পর্শ করা যেখানে অশ্রু নেমে এসেছে সেই থেকেও কেউ আক্রান্ত হতে পারে। এমন কিছু স্পর্শ করার পরে কেউ যদি চোখ স্পর্শ করে সংক্রমিত হতে পারেন। এতদিন করোনা সংক্রমণের উৎস হিসেবে নাসারন্ধ্র, হাত এবং মুখগহ্বরের প্রভাব ছিল কিন্তু এবার চোখের জলও আপনার জীবনধারায় পরিবর্তন আনতে পারে। তাই, অযথা চোখে হাত দেবেন না! চোখের জল তুলো বা পরিষ্কার টিস্যু দিয়ে মুছে নিন।

ডা. সঞ্জিত শশীধরণের (মাহিম-এ ফোর্টিস অ্যাসোসিয়েট, এসএল রাহেজা হাসপাতালের পরামর্শদাতা এবং প্রধান অধ্যাপক) মতে, কোভিড-আক্রান্ত রোগীদের অশ্রুতে ভাইরাস সংক্রমণ হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। তবে, পরীক্ষা করা মোট নমুনার মাত্র ১৭.৫ শতাংশের মধ্যে সংক্রমণ পাওয়া গেছে। গবেষণায় চোখ সংক্রান্ত স্পর্শ ছাড়াও ইতিবাচক রোগীদের অশ্রুতে কোভিডের উপস্থিতি আদৌ সম্ভব কিনা সেই দিকে মনোনিবেশ করা হয়েছিল, যা অন্যান্য পথ এবং কনজেক্টিভাল স্রাবের মাধ্যমে সংক্রমণের ঝুঁকির সম্ভবনা সম্পর্কে তুলে ধরে। এটি আরও উল্লেখ করেছে যে করোনা আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে ইমিউনিটি কম থাকার অভাবেও অশ্রু স্রাবের মধ্যে দিয়ে সংক্রমণ ছড়াতে পারে। 

কীভাবে এটি ছড়িয়ে পড়তে পারে? 

চিকিৎসকদের মতে, যাঁদের করোনা সংক্রমণ হয়েছে তাঁদের কান্নার মাধ্যমে এই রোগ ছড়াতে পারে। চোখের জল বা এমন একটি পৃষ্ঠ স্পর্শ করা, যেখানে অশ্রুর অবস্থান ছিল সেই মাধ্যমে কেউ সংক্রমিত হতে পারে। করোনার ফলে অনেক সময় কনজাংটিভাইটিস হতে পারে, কিন্তু এটি খুব কম ক্ষেত্রেই দেখা গেছে। তাই যদি সর্দি কাশি কিংবা হাঁচির উপদ্রব হয় সঙ্গে সঙ্গে সাবধানতা অবলম্বন করুন। নাক মুখ ঢেকে রাখুন এবং বারবার হাত পরিষ্কার করুন। যদি কনজাংটিভাইটিসের লক্ষণ থাকে তবে আতঙ্কিত হবেন না! চিকিৎসকদের সঙ্গে কথা বলুন। গরম শেক দিন, চোখ দিয়ে জল পড়লে তা স্পর্শ করবেন না। সংক্রমিত মানুষ এবং যত্নশীলদের অবশ্যই সতর্কতা অবলম্বন করতে বলুন। 

কী ভাবে প্রতিরোধ করবেন ! 

১. কোভিড -১৯ দ্বারা সংক্রমিত হলে চোখ ঘষবেন না। 

২. কাশি বা হাঁচির সময় সর্বদা আপনার মুখ এবং নাক টিস্যু দিয়ে ঢেকে রাখুন। 

৩.  ব্যবহৃত টিস্যুগুলিকে আবর্জনায় ফেলে দিন। 

৪. অবিলম্বে কমপক্ষে ২০ সেকেন্ডের জন্য সাবান এবং জল দিয়ে আপনার হাত ধুয়ে নিন। যদি সাবান এবং জল সহজেই না পাওয়া যায়, তাহলে অন্তত ৬০ শতাংশ অ্যালকোহলযুক্ত হ্যান্ড স্যানিটাইজার দিয়ে আপনার হাত পরিষ্কার করুন। 

৫. যদি আপনি সংক্রামিত মানুষের আশেপাশে থাকেন তবে আপনার চোখ, নাক এবং মুখ না ধোয়া পর্যন্ত হাত দিয়ে স্পর্শ করা এড়িয়ে চলুন। 

আরও পড়ুন বর্ষায় চোখের নানান সমস্যা? দূরে থাকতে কী করবেন জেনে নিন!

৬. অসুস্থ ব্যক্তিদের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ যোগাযোগ এড়িয়ে চলুন।

৭. জনসমক্ষে মাস্ক পরুন।

৮. ঘন ঘন স্পর্শিত পৃষ্ঠগুলি প্রতিদিন পরিষ্কার এবং জীবাণুমুক্ত করুন।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Lifestyle news here. You can also read all the Lifestyle news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Can covid spread through tears heres what you need to know

Next Story
বর্ষায় বাড়ছে গাঁটের ব্যথা, যন্ত্রণায় ভুগছেন? তাহলে উপায়!
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com