scorecardresearch

বড় খবর

বৈশিষ্ট্য অনুযায়ী হাঁটা কতরকম জানা আছে? দেখে নিন

হাঁটলে শরীর যেমন ভাল থাকে, দূরদর্শিতাও বাড়ে

প্রতীকী ছবি

শরীরের প্রয়োজনে সকালসকাল হনহন করে হেঁটে এলেই বুঝি এর সঙ্গে সম্পর্ক শেষ? একেবারেই নয়। হাঁটা এমন এক গুরুত্বপূর্ণ বিষয় যেটি আপনাকে অনেক রোমাঞ্চ থেকে রহস্য সবকিছুই দান করতে পারে। একসঙ্গে হাঁটা, সদলবলে হাঁটা, দেখতে দেখতে হাঁটা আবার উপায় না পেয়ে হাঁটা যেভাবে আপনার ভাল লাগে। কিন্তু এই হাঁটার বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ন বৈশিষ্ট্য রয়েছে সেই সম্পর্কে জানতেন? 

ওয়েলনেস কোচ টিম গ্রে বলছেন, ব্যক্তিস্বাধীনতা বলে একটি বস্তু হয় এবং সেই সঙ্গেই নিজেদের পছন্দ অনুযায়ী হাঁটার বিষয়টিও বেশ লক্ষণীয়। নির্দিষ্ট দিনে নির্দিষ্ট সময়ে আপনি ঠিক কী কারণে হাটতে বেড়িয়েছেন, সেটি কিন্তু জনার বিষয়। এবং এর সঙ্গে সঙ্গেই প্রতিদিনের অভ্যাসে এক সংযুক্ত করা খুব দরকারী। যে কারণেই হোক আপনার হাঁটা নিয়ে কথা। তিনি আরও বলেন, অনেকের মধ্যেই এই বিষয়টি থাকে যে শুধুমাত্র হাঁটতে বেরনো মানেই বয়স্কদের মত কাজ করা, তবে এর সঙ্গে কতরকম মজার এলিমেন্ট থাকতে পারে এই নিয়ে অনেকেই বোঝে না। 

গবেষণা বলছে, লক্ষ্য করলে দেখা যায় প্রাণায়াম কিংবা ব্যায়ামের সময়ের থেকে হাঁটার সময় বেশিরভাগ মানুষ মানসিকভাবে শান্ত থাকেন কারণ এতে ভুলভ্রান্তির সুযোগ কম। তাই জন্যই কতরকমের হাঁটার লক্ষণ মেলে সেই বিষয়ে নিশ্চিত হওয়া প্রয়োজন। বৈশিষ্ট্যের কথা উল্লেখ করে টিম বলেন, 

অনেকেই আছেন হাঁটতে বেরিয়ে বন্ধুদের খোঁজ করেন কিংবা তাদের ডেকে নেন।  একে বলা যায় ওয়াক টু কানেক্ট। অর্থাৎ বন্ধুর সঙ্গে সম্পর্ক আরও ভাল করার প্রচেষ্টা কিংবা সঙ্গ পেলে সময় সহজেই অতিবাহিত হয়। 

আপনার ভবিষ্যতের কারণে আপনি যদি হাঁটতে বেরন তবে সেটিকে ওয়াক টু গ্র্যাটিটিউড বলে। সামনেই আপনার জন্য ভাল কিছু রয়েছে অথবা উপহার চোখে পড়ছে তখন নিজে থেকেই আপনি এগিয়ে যাবেন। 

নতুন কিছু শেখার আগ্রহে আপনার পথ চলা কিন্তু সবথেকে বেশি লাভদায়ক হতে পারে। তার কারণ হিসেবেই বলা যায়, জ্ঞান সবসময় মানুষকে বুদ্ধি দান করে। একে ওয়াক টু লার্ন বলা হয়। 

চারিদিকে অনেক নতুন কিছু দেখছেন এবং শিখছেন? তবে আরও কিছু উদ্ঘাটন করার ইচ্ছে আপনার মধ্যে থাকতেই পারে। সেই ক্ষেত্রে একে ওয়াক টু পার্সপেক্টিভ বলে। সবকিছুই পরীক্ষা করে নেওয়ার সুযোগ থাকে এই ক্ষেত্রে। 

নিজেকে প্রফেশনাল করতে, মনোযোগী করে তুলতে বেশিরভাগ মানুষ মেডিটেশন অথবা প্রাণায়াম করে থাকেন। দীর্ঘশ্বাস শেষে ভাল করে কঠিন পরিস্থিতিকে বুঝে নেওয়ার এই বিষয়কে ওয়াক টু প্রাকটিস বলে। প্রতিদিনের রুটিনে এই অভ্যাস খুব ভাল। 

ওয়াক টু গ্রাউন্ড, হল যখন পৃথিবীর সঙ্গে নিজেকে মিলিয়ে দিতে মানুষ ক্ষণিক সময় ঘাসের ওপরেই অপেক্ষা করে এবং সঙ্গেই নিজের শারীরিক শক্তি সঞ্চয় করে। 

এবার নিজের উদ্দেশ্য দেখে নিয়েই হাঁটতে বেরিয়ে পড়ুন। এতে আপনারই ভাল আর শারীরিক অবস্থার উন্নতি।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Lifestyle news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Do you know there are different types of walking in life heres what expert say