scorecardresearch

বড় খবর

সুস্থ থাকতে হলে আজই বদলান বদভ্যাস! মেনে চলুন এই টিপসগুলি

সুস্থ থাকতে হলে অভ্যাস বদলাবেন তো?

কিছু ভাল অভ্যাস কিন্তু সুস্থ জীবনের চাবিকাঠি হতে পারে।

প্রতিদিনের ব্যস্ততা আর কাজের বাউন্ডারি জীবনে বেশ কিছু পরিবর্তন যেমন ঘটিয়েছে, তেমনই সৃষ্টি করেছে কিছু বদভ্যাস! খাওয়া-দাওয়ার অনিয়ম থেকে ঘুমের অভাব আর প্রচুর পরিমাণ কাজ! শ্বাস ফেলার সময়টুকুও নেই। যার ফলে শরীরের কিছু না কিছু সমস্যা লেগেই থাকে। 

একটি উন্মুক্ত এবং স্বাস্থ্যকর জীবনযাত্রার বিষয়টি কিন্তু শুধু জীবনে ব্যাপক পরিবর্তন কিংবা ভাল অভ্যাস গ্রহণ করা নয়! তার সঙ্গে দৈনন্দিন জীবনে মনোযোগ দেওয়া। বিশেষজ্ঞরা বলেন, কিছু ভাল অভ্যাস কিন্তু সুস্থ জীবনের চাবিকাঠি হতে পারে। আয়ুর্বেদিক বিশেষজ্ঞ ডা. নিকিতা কোহলির মন্তব্যে আয়ুর্বেদের মাধ্যমে জীবনযাপন মসৃন হয়ে উঠতে পারে। অভ্যাসের দৈনন্দিন প্রচেষ্টা , আয়ুর্বেদের দিক নির্দেশনার সঙ্গে সঙ্গে স্বাস্থ্যকর খাবার এবং শরীরচর্চা দীর্ঘ জীবন প্রদান করতে পারে। তিনি আরও বলেন, আয়ুর্বেদ আপনার শরীর, মন এবং আত্মার মধ্যে ভারসাম্য খুঁজে পেতে উৎসাহিত করে কারণ এই তিনটি ক্ষেত্রই পরস্পরের সঙ্গে সংযুক্ত। 

সম্প্রতি ইনস্টাগ্রামে কিছু ভালও অভ্যাসের বর্ণনা দিয়েছেন, যেগুলি নিশ্চিত ভাবে সকলের জীবনযাপনে সুপ্রভাব ফেলতে পারে;

• তাড়াতাড়ি ঘুম থেকে ওঠার অভ্যাস করুন ! অন্তত সূর্য ওঠার এক ঘন্টা আগে তো ওঠাই উচিত। 

• দুই ফোঁটা তিলের তেল/সরিষার তেল/ঘি নাসারন্ধ্রতে দিন। এটি চুল অকালে ধূসর হওয়া, টাক পড়া রোধ করে এবং ভাল ঘুম নিশ্চিত করে। 

• সকালে ব্যায়াম বা শরীরচর্চার অভ্যাস করুন। প্রাণায়ামও করতে পারেন। এতে শরীরের স্থবিরতা দুর হয়ে যায় এবং চাঙ্গা হতে বেশ কার্যকরী। 

• আয়ুর্বেদে দাঁতের যত্ন নেওয়ার পরামর্শ দেন অনেকেই। নিম দাঁতন কিংবা বাবলা দাঁতন ব্যবহার করা খুবই ভালও! এতে দাঁত শক্ত হয় , পরিষ্কার থাকে এবং এর দুর্গন্ধ দূর হয়। 

• ব্যায়ামের আধা থেকে এক ঘন্টা পর স্নান করা কিন্তু আবশ্যিক! এতে শরীরের অতিরিক্ত প্রদাহ কমে এবং শরীর সতেজ থাকে। 

• সকালে মশলা চা কিংবা পানীয় খেতে একদম ভুলবেন না। শরীর হাইড্রেটেড রাখা এবং এর কার্যকারিতা বাড়ানোও বেশ জরুরি! তাই ধনে, জিরে, আদা, হলুদ আর সঙ্গে লেবু মধু থাকলে কোনও কথাই নেই। হলুদ দুধ হোক কিংবা আদা চা অথবা ধনে-জিরের জল, পছন্দ আপনার!

আরও পড়ুন আদা চায়ের এত ভেষজ গুণ! জানলে অবাক হবেন

• আয়ুর্বেদ কিন্তু রাতে দেরি করে খাওয়ার পক্ষপাতী একেবারেই নয়! রাত ৮টার মধ্যে খাওয়ার পরামর্শই দেন বিশেষজ্ঞরা। খাবার হজমে এবং পাচনতন্ত্রের সহায়তায় তাড়াতাড়ি খাওয়া অভ্যাস করুন। 

• ঘুম কিন্তু শরীরের সব প্রয়োজনীয় বিষয়ের মধ্যে একটি! দিনের ঘুম এড়িয়ে চলাই ভালও। রাতে তাড়াতাড়ি ঘুমানো উচিত , কমপক্ষে ৮ ঘণ্টা ঘুম শরীরের পক্ষে প্রয়োজনীয়! 

তাই সুস্থ থাকতে হলে অভ্যাস বদলাবেন তো?

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Lifestyle news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Expert shares ayurvedic habits for a healthier life