scorecardresearch

বড় খবর

খাবার সবসময় চিবিয়ে খান, গিলে নিলেই মুশকিল!

খাবার না চিবিয়ে খাবেন না কিন্তু!

খাবার সবসময় চিবিয়ে খান, গিলে নিলেই মুশকিল!
প্রতীকী ছবি

এখনকার সময় দাড়িয়ে বেশিরভাগ মানুষই খাবার ভীষণ তাড়াহুড়োর মধ্যেই খান। এবং তাতে খাবার ঠিক করে হজম হয় না, মানুষ চিবিয়ে খাওয়ার অভ্যাস প্রায় ভুলেই গেছে এবং সেই থেকেই যত সমস্যা। খাবার কিন্তু একেবারেই গিলে নেওয়া উচিত নয়। গোটা গোটা খাবার নানা ধরনের শারীরিক গোলমাল ঘটাতে পারে। একেতেই পুজোর মরশুম, শরীর সঙ্গ না দিলে কিন্তু খুব মুশকিল। 

পুষ্টিবিদ লভ নীত বাত্রা বলেন, আপনি কি আদৌ জানেন একবার খাবার মুখে দেওয়ার পরে আপনি ঠিক কতবার চিবিয়ে দেখেন। নিশ্চই না? অনেকেই তাড়াহুড়োতে বার কয়েক পরেই সেটি গিলে নেন। তবে এটি কিন্তু কমপক্ষে ৩০ বার হওয়াই উচিত। আয়ুর্বেদ বলে যতবার আমরা খাবার চেবাব ঠিক ততবারই খাবার সঠিকভাবে হজমের দিকে লাভ পাবে। তিনি আরও বলেন, খাবার না চিবিয়ে খাওয়ার কারণেই আপনি কি ধরনের অসুবিধের সম্মুখীন হতে পারেন জানেন? 

• যত বেশি আমরা খাবার চেবাবো ততবেশি খাবার ভাঙতে থাকবে এবং খাবার লালারসের সঙ্গে মিশেই একে নরম করে এবং হজমে সাহায্য করে। ফলত হজমের বিপাক ক্রিয়ায় কোনও সমস্যা হয় না। 

• খাবার বারংবার চেবানোর সঙ্গে সঙ্গে আপনি তুলনামূলক বেশি পরিমাণে খাদ্যের ভিটামিন এবং নিউট্রিশন এগুলি পেতে পারেন। খাবারের নানান স্তর থেকে প্রয়োজনীয় পুষ্টি সহজেই শরীরে পৌঁছে যায়। 

• বমি এবং জ্বলুনি থেকে বিরাম দেয়। যত বেশি পরিমাণে খাবার ভাঙতে শুরু করবে তত বেশি এটি থেকে ততই আয়তনে এবং আকারে ছোট হতে হবে।  এবং সোজাসুজি গিয়ে পাকস্থলীতে আঘাত করবে না তাই পেট জ্বালাও করবে না এবং পচন সহজে হবে। 

• অ্যাসিড রিফ্লাক্স এবং অতিরিক্ত প্রদাহ থেকে এটি শরীরকে সহায়তা করে। খাবারের পরিমাণ কম হলে সহজে প্রদাহের পথে শারীরিক বিক্রিয়া ঘটাতে পারে তাই অল্প পরিমাণে নিয়ে চিবিয়ে খান। 

• পর্যাপ্ত সময় ধরে খাওয়া কিন্তু খুব দরকারী। অন্তত খাবারের জন্য ২০ মিনিট সময় ব্যয় করা উচিত। তবেই আপনার মস্তিষ্ক ইঙ্গিত দেবে যে আপনার পেট ভর্তি হয়েছে। তাই ধীরে সুস্থে চিবিয়ে খাবার খান।

 ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Lifestyle news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Food chewing is very important here should know why