বড় খবর


Cheap Food: পাঁচ টাকায় ভাত-ডাল-সবজি দিয়ে পেট পুজো

দিল্লিতে দেখা পাওয়া গিয়েছে পাঁচ টাকায় পেটভর্তি খাবারের। এবার তা মিলছে বহরমপুরে। পাঁচ টাকায় খাবার বিক্রির আইডিয়া প্রয়োগ করে চমকে দিয়েছেন বহরমপুরের সৌরভ।

পাঁচ টাকাতেই পাওয়া যায় পেটভর্তি ভাত-ডাল-সবজি। ডেস্টিনেশন বহরমপুর।

দেবস্মিতা দাস: পাঁচ টাকায় কী খেতে পাওয়া যায়? আকাশ-পাতাল ভাবতে বসলেন তো? যদি বলি, এই পাঁচ টাকাতেই পাওয়া যায় পেটভর্তি ভাত-ডাল-সবজি? ডেস্টিনেশন বহরমপুর। পাঁচ টাকাতেই খাবারের পসরা সাজিয়ে বসেছেন সৌরভ জৈন।

ঝাড়খণ্ড থেকে কাজের খোঁজে এসেছিলেন বহরমপুর শহরে। কাজ করছিলেনও। কিন্তু ছুটির দিনগুলোয় কী করবেন? ভাবতে ভাবতেই শুরু করলেন ‘হাত বাড়ালেই বন্ধু’। মে মাসে শুরু হওয়া অ প্রকল্পে উপভোক্তাদের দন্য গরিব-বড়লোকের ভেদাভেদ করা হয়নি। যে কেউই চাইলেই পাবেন পাঁচ টাতায় খাবার।

প্রথমবার সামান্য কিছু বিনিয়োগ করে প্রায় একশো জনের খাবার তৈরি করেছিলেন। এরপর আর পিছন ফিরে তাকাতে হয়নি। বেশ কয়েকজন বিনিয়োগকারীও পেয়ে গেছে ‘হাত বাড়ালেই বন্ধু’ প্রকল্পটি।

নামমাত্র মূল্যে খাবার আর কোথায় কোথায় পাওয়া যাবে? সেখানেও নিজস্বতার ছাপ রেখেছে তিলোত্তমা। সারা কলকাতা জুড়ে বিভিন্ন জায়গায় ১৫ থেকে ৩০ টাকার মধ্যে পাওয়া যায় বাঙালির খাবার। শিয়ালদহের কোলে মার্কেটে ১৫-১৭ টাকায় পাওয়া যায় সবজি-ভাত। ডালহৌসি বা অফিসপাড়ার কথা কে না জানে! সেখানে এখনও পনেরো টাকা খরচ করলেই মেলে পেটভরা খাবার।

আরও পড়ুন, Adil Hussain: ঘুম কম হচ্ছে আর জেট ল্যাগ বেশি, তবে দিব্যি লাগছে

চিত্তদার দোকানের তিরিশ টাকার খিচুড়ি তো বিখ্যাত। এছাড়াও ডেকার্স লেনের প্রায় বেশ কয়েকটি দোকানে ২০ টাকায় পাওয়া যায় বেশ ভালো পরিমাণ খাবারদাবার। দক্ষিণের বাঘাযতীন স্টেশন লাগোয়া দোকানগুলোতেও একই দাম, পরিমাণে কার্পণ্য নেই সেখানেও।

ফোটো- সোশ্যাল মিডিয়া সৌজন্যে।

উত্তর থেকে দক্ষিণ এই শহরের যেখানেই ঢুঁ মারবেন কম দামে ভাল-ডাল-সবজির অভাব নেই। রুবি থেকে সেক্টর ফাইভ, সব জায়গাতেই রেস্তঁ একই লাগে মোটামুটি। কলেজস্ট্রিট চত্বর, শিয়ালদহ সাধুর হোটেল, ভবানীপুরের বাবু কাকুর হোটেল থেকে বিশপ ক্যান্টিন, কলকাতায় সস্তার খাবারের কমতি নেই।

ফোটো- সোশ্যাল মিডিয়া সৌজন্যে।

আরও পড়ুন, Summer Stories: ওরা কাজ করে, শহরের চাঁদিফাটা রোদেও

তবে পাঁচ টাকায় খাবার বিক্রির আইডিয়া প্রয়োগ করে চমকে দিয়েছেন বহরমপুরের সৌরভ। এখনও পর্যন্ত সপ্তাহে একদিনই এই উদ্যোগ নিতেন তিনি। এখন থেকে প্রায় প্রতিদিন বহরমপুরের বিভিন্ন জায়গায় ‘হাত বাড়ালেই বন্ধু’কে পাওয়া যাবে।

Web Title: Hat baralei bondhu 5 rs lunch destination berhampore bengali

Next Story
Mr.Gay: এ দেশে সমকামিতার স্বীকৃতি নিয়ে আশাবাদী সমর্পণmr gay world, mr gay india
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com