scorecardresearch

বড় খবর

শুরু হল ১২-১৪ বছর বয়সিদের টিকাকরণ, জেনে নিন কী কী নিয়ম মানতে হবে

জেনে নিন কী কী বিষয়ে লক্ষ্য রাখতে হবে

CHILD_VACCINE
সংক্রমণ যাতে কোন ভাবেই ছড়িয়ে না পরতে পারে তার জন্য চেষ্টার কোন খামতি রাখছে না দিল্লি সরকার।

আজ, বুধবার থেকে শুরু ১২-১৪ বছরের ভ্যাকসিন প্রক্রিয়া। সেই সম্পর্কে আলোচনা করা হয়েছে বৈজ্ঞানিক সংস্থার সঙ্গে, তাদের সম্মতিতেই ১২ বছরের ঊর্ধ্বে দেওয়া হবে ভ্যাকসিন। হায়দরাবাদ স্থিত বায়োলজিক্যাল ই লিমিটেডের Corbevax টিকা দেওয়া হবে কিশোরদের। এটি টেক্সাসের চিলড্রেনস হসপিটাল সেন্টার ফর ভ্যাকসিন ডেভেলপমেন্ট এবং হিউস্টন কলেজ অফ মেডিসিন-এর ডাইনাভ্যাক্স দ্বারা তৈরি করা হয়েছে। 

ওষুধ নিয়ন্ত্রক সংস্থার কাছ থেকে জরুরি অনুমোদন পেয়েছে এই টিকা। কোভ্যাক্সিনের মতোই ২৮ দিনের ব্যবধানে দুটি ডোজ নিতে হবে। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী মনসুখ মাণ্ডব্য অভিভাবকদের কাছে আর্জি জানিয়েছেন যাতে শিশুদের টিকা দেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়। 

কীভাবে রেজিস্টার করতে পারবেন? 

কোউইন কিংবা আরোগ্য সেতু অ্যাপে, বাবা মায়ের ফোন নম্বর দিয়ে বাচ্চাদের নাম নথিভুক্ত করা যাবে। আগের মতোই একটি ওটিপি পাঠানো হবে যার থেকে ভেরিফিকেশন করা হবে। একবার সেটি হয়ে গেলেই আধার কার্ড কিংবা দশম শ্রেণির আইকার্ড দিয়ে সেটিকে নথিভুক্ত করতে হবে। 

কেন এটি প্রয়োজনীয়? 

চিকিৎসক প্রবীণ সিক্রি বলছেন, বাচ্চাদের শরীরে ইমিউনিটি বাড়িয়ে তোলার ক্ষেত্রে ভ্যাকসিন কাজে দিতে পারে। কারণ ওদের শরীরেও কিন্তু প্রভাব সেই একই পড়বে তাই মাথায় রাখা দরকার এগুলি। সঙ্গেই বহুদিন ধরে তারা লং-কোভিডের কবলে ভুগতে পারে। যদি কোনও করোনা আক্রান্ত ব্যক্তির সংস্পর্শে কোনও বাচ্চা চলেও আসে তাহলে ভ্যাকসিন দেওয়া থাকলে অনেকেই বাঁচতে পারবেন। বাচ্চাদের ইমিউনিটি একটু হলেও যদি বাড়ে, তবে অনেকটা সুবিধা। 

কারা নিতে পারবেন না ভ্যাকসিন? 

ইউনিসেফের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, কোনও শিশু যদি পূর্ব থেকেই অ্যালার্জি রোগী হয় তবে তাকে চিকিৎসকের পরামর্শ না নিয়ে টিকা না দেওয়াই ভাল। এছাড়াও শরীরে কোনও রোগ থাকলে তাদেরকেও টিকা দেওয়ার আগে ভাবা উচিত। কো-মর্বিদিটি থাকলেও সচেতন থাকা প্রয়োজন।

তারাও কি বড়দের মতো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া অনুভব করতে পারে?

আবারও ইউনিসেফের তরফে জানানো হয়েছে, হালকা জ্বর কিংবা ব্যথা থাকতেই পারে তবে সবথেকে বেশি একজন শিশু ক্লান্তি বোধ করতে পারেন, এছাড়াও মাথা ব্যাথা, গা-হাত-পা ব্যথা ছাড়াও এক দুদিনে সেরে যাওয়া উচিত। 

কী নিয়ম মানতে হবে? 

খালি পেটে ভ্যাকসিন না নিলেই ভাল। 

কম করে ৩০ মিনিট অপেক্ষা করুন ভ্যাকসিন নেওয়ার পর, বাচ্চাদের ক্ষেত্রে সতর্ক থাকা উচিত। 

টিকা নেওয়ার পরেও স্যানিটাইজার, মাস্ক এবং পরিচ্ছন্নতা বজায় রাখতে হবে। নিয়ম না মানলে বেশ মুশকিল। 

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Lifestyle news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Health ministry begins covid vaccine for children aged 12 14 years from today