বড় খবর

লকডাউন উঠলেও সন্তানদের স্কুলে পাঠানোয় আপত্তি অভিভাবকদের, বলছে সমীক্ষা

৭০ শতাংশ অভিভাবক সামাজিক মেলামেশার ক্ষেত্রে হ্যান্ডশেকের চেয়ে নমস্কারেই বেশি স্বচ্ছন্দ হতে চাইছেন। 

টানা দেড় মাস লকডাউনে কাটিয়ে আমরা বেশ অভ্যস্ত হয়ে পড়েছি আমাদের নতুন জীবনে। মা বাবারা নিজেদের ওয়র্ক ফ্রম হোমের কাজ সামলে কুচোকাচাদের অনলাইন ক্লাস সামলেছেন। সাম্প্রতিক এক সমীক্ষা বলছে লকডাউন উঠে গেলেও প্রাথমিক ভাবে সন্তানদের স্কুলে পাঠাতে অনিচ্ছুক অভিভাবকেরাই।

সমীক্ষাটির আয়োজন করেছে প্যারেন্ট সার্কল নামের একটি সংগঠন। সারা দেশের ১২০০ জন অভিভাবককে নিয়ে অনলাইন সমীক্ষা করা হয়েছিল। সমীক্ষার ফলাফল বলছে ভারতীয় অভিভাবকেরা যতক্ষণ না নিশ্চিত হচ্ছেন, কোভিড-১৯ পরিস্থিতি পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে এসেছে, ততক্ষণ পর্যন্ত তাঁরা নিজেদের সন্তানদের স্কুলে পাঠাতে অনিচ্ছুক। এই মনোভাব কিন্তু গ্রিন, অরেঞ্জ, রেড জোন নির্বিশেষে দেশের সব অঞ্চলের মায়েদের ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য।

আরও পড়ুন, লকডাউন! তাতে কী? কেনাকাটার উইশ লিস্ট ভরে উঠছে লুডো থেকে হেয়ার ট্রিমারে

৫৬ শতাংশ অভিভাবক বলেছেন তাঁরা চাইছেন স্কুল খোলার পর অন্তত এক মাস অপেক্ষা করতে। মাত্র ৮ শতাংশ অভিভাবক বলেছেন তাঁদের সন্তানকে লকডাউন উঠলেই স্কুলে পাঠাতে চান তাঁরা। সমীক্ষায় শিশুদের স্কুল যাওয়া ছাড়া অন্যান্য কার্যকলাপ নিয়েও প্রশ্ন রাখা হয়েছিল অভিভাবকদের কাছে। যেমন বিকেলের খেলা, জন্মদিনের আসর, ছুটিতে ঘুরতে যাওয়া, ইত্যাদি। সমীক্ষার ফলাফল বলছে ৬৪ শতাংশ অভিভাবক তাঁদের সন্তানকে এই বছরটা জন্মদিনের পার্টিতেও যেতে দিতে চান না।

ছেলে মেয়ারা খেলাধুলো করলে ৩৫ শতাংশ বাবা মায়ের কোনও আপত্তি নেই। ৫০ শতাংশ বাবা মায়েরা এই বছরটায় শপিং মলেও যেতে চান না। ৭০ শতাংশ অভিভাবক সামাজিক মেলামেশার ক্ষেত্রে হ্যান্ডশেকের চেয়ে নমস্কারেই বেশি স্বচ্ছন্দ হতে চাইছেন।

Read the full story in English

Get the latest Bengali news and Lifestyle news here. You can also read all the Lifestyle news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Indian parents unwilling to send kids back to school after lockdown survey reveals

Next Story
অফিসের কারণেই স্ট্রেস হচ্ছে না তো? কী ভাবে বুঝবেন?
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com