scorecardresearch

বড় খবর

নিখরচায় ক্যারাটে প্রশিক্ষণ! দুঃস্থ ছেলেমেয়েরা পায় গুরুর ‘পরশ’

“এই মুহূর্তে সাতশোরও বেশি ছেলেমেয়েরা আমার কাছে ক্যারাটে বা অন্য মার্শাল আর্ট, কালারিপায়াত্তুর প্রশিক্ষণ নিচ্ছে। পুরোটাই বিনা পারিশ্রমিকে। ক্যারাটে শেখার পোশাকও ওদের কিনতে হয় না।”

নিখরচায় ক্যারাটে প্রশিক্ষণ! দুঃস্থ ছেলেমেয়েরা পায় গুরুর ‘পরশ’
দুঃস্থ ছেলেমেয়েদের বিনা পারিশ্রমিকে ক্যারাটে প্রশিক্ষণ দেন গুরু পরশ কুমার মিশ্র। ছবি সৌজন্যে, পরশ কুমার মিশ্র।

সালটা ১৯৯৫। সল্টলেকের সেন্ট্রাল পার্কে গিয়েছিলেন পরশ কুমার মিশ্র। চোখের সামনে দেখলেন পার্কে বসা যুগলদের হেনস্থা করছেন কিছু মদ্যপ যুবক। বেশিক্ষণ অবশ্য সহ্য করতে পারেন নি পরশ। কিল-ঘুষি-চড়ের সাহায্যে পরশ সেদিন মদ্যপ যুবকদের ‘সবক’ শিখিয়েছিলেন। কিন্তু এ ঘটনার পর নিজের মনকে কিছুতেই শান্ত করতে পারছিলেন না তিনি। সমাজে নারীদের সুরক্ষার জন্য কিছু একটা করতে হবে, এ ভাবনাই ঘুরপাক খাচ্ছিল সেসময়ের যুবকের মাথায়। কিন্তু কী করবেন? এ কথা ভাবতে ভাবতেই কেটে গেল ছ’বছর। সাল ২০০১, সে বছরই দুঃস্থ বাড়ির ছেলেমেয়েদের আত্মরক্ষার পাঠ শেখাতে বিনা পারিশ্রমিকে ক্যারাটে প্রশিক্ষণ দেওয়া শুরু করলেন পরশ। সেই প্রয়াস থামেনি, বরং দুর্বার গতিতে এগিয়ে চলেছে।

এই মুহূর্তে সাতশোরও বেশি দুঃস্থ বাড়ির ছেলেমেয়েদের নিখরচায় ক্যারাটে এবং অন্যান্য মার্শাল আর্ট, যেমন কেরালার প্রাচীন সৃষ্টি কালারিপায়াত্তুর প্রশিক্ষণ দিচ্ছেন পরশবাবু। যিনি গুরু পরশ কুমার মিশ্র নামেই পরিচিত। এ প্রসঙ্গে ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলাকে পরশবাবু বললেন, “এই মুহূর্তে সাতশোরও বেশি দুঃস্থ ছেলেমেয়ে আমার কাছে ক্যারাটে, মার্শাল আর্টের প্রশিক্ষণ নিচ্ছে। পুরোটাই বিনা পারিশ্রমিকে। ক্যারাটে শেখার পোশাকও ওদের কিনতে হয় না। আমিই দিই। রাজ্যের ৪০টি জায়গায় বিভিন্ন ক্লাব-সংস্থার সঙ্গে যুক্ত হয়ে এখন ক্যারাটে শেখাচ্ছি।”

karate, ক্যারাটে
ক্যারাটে, অন্যান্য মার্শাল আর্ট, কালারিপায়াত্তু শেখান পরশ কুমার মিশ্র

আরও পড়ুন, হৃদরোগের শিকার দুঃস্থ শিশুদের জন্য শহরে ছুটবে ২০০ গাড়ি

কেন এমন ভাবনা, একথা বলতে গিয়েই ১৯৯৫ সালে ফিরে গেলেন পরশবাবু। বললেন, “১৯৯৫ সালে সেন্ট্রাল পার্কে একটা খারাপ অভিজ্ঞতা হয়েছিল। কয়েকজন মদ্যপ যুবক পার্কে বসা যুগলদের হেনস্থা করছিল। সেসময় আমি ক্যারাটে শিখতাম। এ ঘটনা দেখে হাত গুটিয়ে বসে থাকতে পারি নি। কিল-ঘুষি মেরে সবক শিখিয়েছিলাম। তারপর থেকেই ভাবছিলাম, আমাদের সমাজের মেয়েদের আত্মরক্ষার প্রয়োজন। এরপর আমি শহরের একটা স্কুলে ক্যারাটে শেখাতে শুরু করি। তখন দেখলাম, অনেক ছেলেমেয়েই টাকার অভাবে ক্যারাটে শিখতে পারত না। ঠিক করি, দুঃস্থ ছেলেমেয়েদের ক্যারাটে শেখাব। ২০০১ সাল থেকে বিনা পারিশ্রমিকে প্রশিক্ষণ দেওয়া শুরু করি।” তবে শুধুমাত্র দুঃস্থ বাড়ির ছেলেমেয়েদের থেকেই পারিশ্রমিক নেন না পরশবাবু।

আজকের দিনে মেয়েদের ক্যারাটে বা অন্য মার্শাল আর্ট শেখা কতটা জরুরি? জবাবে পরশবাবু বলেন, “আমাদের সমাজে মেয়েদের উপর নির্যাতন চালানো হচ্ছে। বিভিন্ন সময়ে তাঁদের হেনস্থার শিকার হতে হচ্ছে। ফলে মেয়েদের আত্মরক্ষা খুব দরকার। কেরালায় ঘরে ঘরে সকলে মার্শাল আর্ট শেখে, জাপানেও এমনটা হয়। ঘরে ঘরে ক্যারাটে প্রশিক্ষণ দেওয়া উচিত। রাজ্য সরকারের সুকন্যা প্রকল্প সেক্ষেত্রে খুব ভাল।”

karate, ক্যারাটে
রাজ্যের ৪০টি জায়গায় ক্যারাটের প্রশিক্ষণ দেন পরশ কুমার মিশ্র

তবে শুধু মেয়েদেরই নয়, দুঃস্থ ছেলেদেরও ক্যারাটে, মার্শাল আর্ট শেখান পরশবাবু। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, “আজ বহু ছেলেই বাইরে পড়াশোনা করতে যাচ্ছে। তারাও হেনস্থার শিকার হচ্ছে। র‌্যাগিং করা হচ্ছে তাদের। ফলে সকলেরই আত্মরক্ষার দরকার।”

মেয়েদের ক্যারাটে, মার্শাল আর্ট শেখা নিয়ে অনেকসময়ই ছুঁতমার্গ দেখান অনেকে। সেক্ষেত্রে দুঃস্থ বাড়ির মেয়েদের ক্যারাটে শেখাতে গিয়ে কখনও বেগ পেতে হয়নি? জবাবে ‘ক্যারাটে স্যার’ বললেন, “একটা সময় অনেকে আপত্তি তুলতেন। তবে এখন সকলেই বুঝছেন, তাঁদের ছেলেমেয়েদের আত্মরক্ষার দরকার। এখন বাবা-মায়েরা এসে বলেন, আমরা লোকের বাড়িতে কাজ করি, ছেলেমেয়েদের ক্যরাটে শেখাতে চাই। কারও আবার বাবা-মা নেই। তবে আমরা যাচাই করে নিই, আদৌ ওরা দুঃস্থ কিনা।”

karate, ক্যারাটে
ঘরে ঘরে সকলের ক্যারাটে বা অন্য মার্শাল আর্ট শেখা দরকার বলে মনে করেন পরশবাবু

আরও পড়ুন, সর্বধর্মের পুজো পান ‘বামুন বুড়ি’, সম্প্রীতির অনন্য নজির পশ্চিম মেদিনীপুরে

শুধু আত্মরক্ষার পাঠ শেখানোতেই শেষ নয়, শিষ্যদের নিজেদের পায়ে দাঁড়ও করাচ্ছেন পরশবাবু। ক্যারাটে শিখে তাঁর বহু ছাত্রছাত্রীই এখন ক্যারাটের প্রশিক্ষণ দিচ্ছেন। এ প্রসঙ্গে পরশবাবু বললেন, “আমার কাছে যারা প্রশিক্ষণ নিয়েছে, তাদের অনেকেই এখন বিভিন্ন জায়গায় ক্যারাটে শেখাচ্ছে। আমার ২০ জন ছাত্রছাত্রী সুকন্যা প্রকল্পে আবেদন করেছে। এদের মধ্যে ১২ জন মেয়ে, ৮ জন ছেলে। এদের ৮০ শতাংশই দুঃস্থ পরিবারের সদস্য।”

তাঁদের ক্যারাটে স্যারের দেখানো পথেই হাঁটছেন কৌস্তুভ নন্দী। বছর পঁচিশ আগে পরশবাবুর কাছে ক্যারাটে শিখেছিলেন কৌস্তুভ। এখন তিনি নিজেই প্রশিক্ষণ দেন, এবং বিনা পারিশ্রমিকে। বললেন, “২৫ বছর ধরে যুক্ত আছি ওঁর সঙ্গে। আমি এখন নিজেই নিখরচায় দুঃস্থ বাড়ির ছেলেমেয়েদের ক্যারাটে শেখাই।” পরশবাবুর ছাত্রী, ব্ল্যাক বেল্ট কবিতা প্রজাপতি বললেন, “স্যারের কাছে ক্যারাটে শিখেছিলাম। এখন আমি ব্ল্যাক বেল্ট। নিজেই বিভিন্ন জায়গায় ক্যারাটে শেখাই। সবটাই স্যারের জন্য হয়েছে।” মেয়েদের ক্যারাটে শেখা বিশেষভাবে জরুরি বলেই মনে করেন কবিতা। তাঁর কথায়, “আজকের দিনে যেভাবে মেয়েদের অত্যাচারিত হতে হচ্ছে, সেক্ষেত্রে ক্যারাটে শেখা খুব দরকার।”

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Lifestyle news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Karate martial arts kalaripayattu parash kumar mishra kolkata