scorecardresearch

বড় খবর

বর্ষার দোসর রোগ-জীবাণুদের দূরে রাখার উপায়

ছোট ছোট এই সমস্ত টিপস্ মেনে চলতে পারলেই বর্ষা হয়ে উঠবে আরও উপভোগ্য ও মনোরম।

বর্ষার দোসর রোগ-জীবাণুদের দূরে রাখার উপায়
বর্ষা মানেই নানান রোগের সূত্রপাত।


গ্রীষ্মের তীব্র দাবদাহ কাটিয়ে আরামের অবকাশ নিয়ে আসে বর্ষা। বাতাসে ভেসে আসে মাটির সোঁদা গন্ধ, চারপাশের সবুজ আরও উজ্জ্বল হয়ে ওঠে। দুর্ভাগ্যবশত, এমন সৌন্দর্যের পাশাপাশি বর্ষা নিয়ে আসে বিভিন্ন রোগ জীবাণুও। এই ঋতুতে আমাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যায় আর সেই সুযোগে আমাদের শরীর হয়ে ওঠে রোগ-জীবাণুর আঁতুরঘর।

আমাদের শরীরে তাদের অবাধ ঘোরাফেরা আমাদের জন্যই বিপদ ডেকে আনে। তবে আগে থেকে কিছু সতর্কতা মেনে চললেই এড়ানো যাবে এই সমস্ত বিপদ; এমনি মত ভি হেলথ, আয়েতনা-র বিশেষজ্ঞ ডাক্তার প্রীতি গয়ালের। তিনি জানাচ্ছেন, বর্ষার শুরু থেকেই কিছু বিষয় যদি আমরা মেনে চলি তাহলেই এইসব রোগ জীবাণু প্রতিরোধ করতে পারব।

বর্ষায় আবহাওয়ার দ্রুত রুপ-পরিবর্তন রোগ জীবাণুকে বেশিমাত্রায় সক্রিয় করে তোলে। জ্বর-সর্দিকাশি, পেটের সমস্যা, বিভিন্ন ভাইরাল অসুখ, অ্যালার্জি-র মতো বিভিন্ন অসুখ মানুষের ভোগান্তির কারণ হয়ে দাঁড়ায়। এই সময় খুবই জরুরি হল আমাদের প্রতিদিনের জীবনযাত্রার দিকে নজর দেওয়া। পুষ্টিকর খাবার, পর্যাপ্ত ঘুম ও নিয়মিত শরীরচর্চা আমাদের রোগ-প্রতিরোধ ক্ষমতাকে বাড়াতে সাহায্য করে তাই এই বিষয়গুলির দিকে খেয়াল রাখা প্রয়োজন। এই সময় জাঙ্ক ফুড খাওয়া একেবারেই নিষেধ। প্রচুর পরিমাণে জল, হার্বাল চা বা মধু-গরম জল নিয়মিতভাবে খেলে আমাদের প্রতিরোধ ক্ষমতা বেড়ে যাবে কয়েক গুণ।

আরও পড়ুন সাবধান! এই ৫টি অভ্যাস কমিয়ে দেবে আপনার রোগ-প্রতিরোধ ক্ষমতা

আমাদের মতোই বর্ষা মশা-মাছি, বিভিন্ন ভাইরাস, ব্যাকটেরিয়ারও প্রিয় ঋতু। এই সময় খুব দ্রত তারা বংশবিস্তার করতে পারে। তাই বাড়িতে বা আশেপাশে কোথাও যাতে জল না জমে থাকে তা খেয়াল রাখা আমাদের প্রয়োজন। কারণ এই সব জমা জল থেকেই মশাবাহিত বিভিন্ন রোগ যেমন ডেঙ্গু, ম্যালেরিয়া বা স্ক্রাব টাইফাসের মতো রোগ সৃষ্টি হয়। বর্ষায় জলবাহিত অসুখগুলি যেমন টাইফয়েড বা হেপাটাইটিস-র প্রকোপ অনেক বেড়ে যায়। তাই এই সময় জল ফুটিয়ে বা ফিল্টার করে খাওয়া উচিত এবং চব্বিশ ঘন্টার বেশি জমা থাকা জল খাওয়া যাবে না।

এই সময় টাটকা, রান্না করা হাল্কা খাবার খাওয়া উপযোগী। কাঁচা সবজি বিশেষত শাক ভাল করে ধুয়ে তবেই ব্যবহার করতে হবে।
বর্ষায় ফাঙ্গাল ইনফেকশন প্রচুর পরিমাণে বেড়ে যায়। তাই এই সময় নিজের পায়ের খেয়াল রাখা খুবই জরুরি। প্রতিদিন পরিষ্কার করে পা ধোয়ার পর ভাল করে শুকিয়ে নিতে হবে। ভিজে জুতো বেশিক্ষণ না পরে থাকাই ভাল। এতে পায়ের বিভিন্ন ফাঙ্গাল ইনফেকশন অনেক কম হয়।

আরও পড়ুন করোনা ছাড়াও বর্ষায় আরও অনেক রোগের ভয়! সুস্থ থাকবেন কীভাবে, জেনে নিন

এছাড়াও জামা কাপড় ভালো করে শুকিয়ে নিয়ে তবেই ব্যবহার করবেন। ভিজে জামাকাপড় থেকে নানা ধরনের ব্যাকটেরিয়া তৈরি হতে পারে যা আমাদের স্কিনের বিভিন্ন সমস্যার কারণ হতে পারে। বিশেষত যাদের অ্যালার্জির সমস্যা আছে তাদের এই বিষয়গুলির দিকে নজর দেওয়া প্রয়োজন। যে সকল জিনিস থেকে অ্যালার্জি হবার সম্ভাবনা থাকে সেগুলি থেকে এখন দূরে থাকাই ভাল এবং প্রয়োজনে অ্যান্টি অ্যালার্জি ওষুধ ব্যবহার করতে হবে। তাই বিশেষজ্ঞদের অভিমত, “ছোট ছোট এই সমস্ত টিপস্ মেনে চলতে পারলেই বর্ষা হয়ে উঠবে আরও উপভোগ্য ও মনোরম।”

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Lifestyle news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Monsoon health tips to keep ailments at bay