scorecardresearch

বড় খবর

বর্ষাকালে ত্বকের সমস্যা? ভিটামিন সি সিরাম থাকলে চিন্তা দূর

সিরাম ঠিক কী কী ভাবে ত্বকের যত্ন নেয়?

বর্ষাকালে ত্বকের সমস্যা? ভিটামিন সি সিরাম থাকলে চিন্তা দূর
সিরাম ঠিক কী কী ভাবে ত্বকের যত্ন নেয়?

বৃষ্টি মানেই ফুরফুরে মেজাজ মনোরম পরিবেশ সঙ্গে তরতাজা অনুভূতি। চারিদিকের সবুজায়ন, যেন চোখের পক্ষে এক নিদারুণ আরাম। তবে বর্ষা মানেই কি শুধু স্নিগ্ধতার প্রকাশ? বৃষ্টি আর ত্বকের সমস্যা, দুটিই পারস্পরিক ভাবে সম্পর্কিত! বর্ষা এলেই তার সঙ্গে হাত ধরে আসে ত্বক আর চুলের সমস্যা। অনেকের মুখেই শোনা যায়, বর্ষায় চুল পড়ছে বেশি, ত্বকের আর্দ্রতা কমে যাচ্ছে। বাতাসের আর্দ্রতা ত্বককে নির্জীব করে তোলে যা ব্রণ, প্রদাহ, মেচেতা এবং স্কিনে নানান সমস্যার সৃষ্টি করতে পারে। তাহলে এই সমস্যাগুলির সমাধান কী ভাবে সম্ভব?

ত্বকের উজ্জ্বলতা এবং গ্লানি মুক্ত করতে, সবচেয়ে ভাল উপায় সিরাম! সিরাম ত্বকের গভীরে প্রবেশ করে এবং এর ডার্ক সেলগুলোকে উজ্জীবিত করে তোলে। বর্ষার সঙ্গে সঙ্গে ত্বকের তৈলাক্ততা থেকে শুরু করে ব্রণ, রোসেসিয়া এবং ত্বকের ছোট ছোট ছিদ্রগুলিতে ব্ল্যাক হেডস, হোয়াইট হেডস এসবের সমস্যা হতেই পারে। ত্বককে হাইড্রেট এবং পুষ্ট করতে কার্যকরী এবং হালকা ওজনের ফর্মুলেশন দিয়ে তৈরি একটি সিরাম বেছে নেওয়া খুবই গুরুত্বপূর্ণ। মুখে সিরাম ব্যবহার করলে ত্বকের উন্নতি যেমন হয় তেমনি সিরামে উপস্থিত হায়ালুরোনিক অ্যাসিড এবং স্যালিসিলিক অ্যাসিড ত্বককে তৈলাক্ত না করে হাইড্রেট এবং এক্সফোলিয়েট করে। ভিটামিন সি সিরামের একটি গুণাবলীর মধ্যে হল, শক্তিশালী অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট হিসেবে কাজ করে যা নিস্তেজতা, দাগ এবং ত্বকের অমসৃণতা কমাতে সাহায্য করে।

সিরাম ঠিক কী কী ভাবে ত্বকের যত্ন নেয় সেই সম্বন্ধে বলতে গেলে আগে জেনে নেওয়া প্রয়োজন সিরাম লাগানোর আগে স্কিন পরিষ্কার করার পদ্ধতি। খুবই সহজ! মুখ ভাল করে কোনও ক্লিনজার দিয়ে পরিষ্কার করুন, তারপর নিজের স্কিন ফ্রেন্ডলি ফেসওয়াশ দিয়ে ভাল করে মুখ ধুয়ে নিন। আলতো হাতে টোনার লাগিয়ে নিন! মিনিট তিনেক পরে সিরাম অ্যাপ্লাই করুন।

  • সিরাম ব্যবহার করার আগে সেটি আদৌ আপনার ত্বকের সঙ্গে ম্যাচ করে কিনা সেই সম্পর্কে অবগত হন। সবরকম প্রসাধনী, সব স্কিনের পক্ষে উপযুক্ত নয়। নিজের ত্বকের উপযোগী সিরাম বেছে নিন। সিরাম তৈলাক্ত ত্বকের জন্য ময়েশ্চারাইজার হিসেবে কাজ করে এবং নিস্তেজ ত্বকের জন্য উজ্জ্বলতা প্রদান করতে পারে। এটি দাগ, রঙ্গকতা এবং ত্বকের অসমতা কমাতেও সাহায্য করতে পারে। ব্রণ-প্রবণ ত্বকের জন্য, স্যালিসিলিক অ্যাসিডযুক্ত সিরাম ভাল কাজ করে, যেখানে শুষ্ক ত্বকের জন্য হায়ালুরোনিক অ্যাসিড বেশি কার্যকরী। এছাড়াও, ভিটামিন সি একটি সুপার অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট উপাদান যা দাগ, নিস্তেজতা, ত্বকের অমসৃণতা দূর করে এবং ত্বক উজ্জ্বল করে!
  • ত্বক হাইড্রেট রাখা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। সিরাম ত্বক হাইড্রেট রাখতে ভীষণ ভাবে কার্যকরী। এটি ময়েশ্চারাইজার এর থেকে ত্বকের কোষ বেশি মাত্রায় হাইড্রেট করে। প্রয়োজনীয় জলের মাত্রা ধরে রাখে।
  • নন-স্টিকি ফর্মুলেশন-সিরামগুলি জল বা ইমালসন-ভিত্তিক ফর্মুলেশন তাই তাদের মধ্যে একটি হালকা জেল জাতীয় পদার্থ বিদ্যমান। এর নন-স্টিকি টেক্সচার যা ত্বকে দ্রুত শোষিত হয়, ত্বকের প্রয়োজনীয় জলের সরবরাহ করে এবং একটি ঠান্ডা অনুভূতি দেয়।
  • বাজেট ফ্রেন্ডলি কিনা সেটা কিন্তু একেবারেই ভুলবেন না! সিরাম এমন একটি উপযোগী প্রসাধনী, যা অনেক প্রসাধনীর বাজার কমিয়ে দিতে পারে! বলতে পারেন সিরাম অনেক প্রবলেমের একটাই সলিউশন।

আরও পড়ুন উষ্ণ জলে লেবু মিশিয়ে খেলে কি সত্যিই ওজন কমে?

এবার বলা যাক সিরাম অ্যাপ্লাই কীভাবে করবেন। আঙুলের মাথায় অল্প করে নিন এবং আলতো হাতে মাসাজ করুন। বেশি জোরে ঘষবেন না, যখন বুঝবেন ত্বকের মধ্যে মিশেছে ব্যস! কাজ শেষ।! তাহলে বর্ষায় ত্বক ভাল আর মসৃণ রাখতে নিজেদের পছন্দমতো সিরাম ব্যবহার করে দেখতেই পারো…

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Lifestyle news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Monsoon skincare routine vitamin c serum benefits