scorecardresearch

বড় খবর

কোভিড পরবর্তীতে শিশুরা ‘পারসমিয়া’য় ভুগছে? জানুন কী বলছেন বিশেষজ্ঞরা

বাচ্চাদের শরীরের যত্ন নেওয়া আপনার কর্তব্য, দেখে রাখুন

প্রতীকী ছবি

করোনা প্রকোপে এবার কিন্তু বিশেষ করে প্রচুর শিশুরা আক্রান্ত হয়েছেন। তাদের মধ্যে ভ্যাকসিন ছিল না কারওর, তাই রোগের এই পর্যায়ে শিশুদের কিন্তু অনেক ঝামেলা এবং কষ্ট করতে হয়েছে। তবে এর পরবর্তীতে তাদের খাওয়াদাওয়া কিন্তু একেবারেই থেমে যাওয়ার মত। বলা উচিত অনেক কিছুই বাদের খাতায়! চিকিৎসকরা দেখছেন তারা প্রচন্ড পিকি ইটার অর্থাৎ বেছে বেছে খেতেই পছন্দ করছে। একেই চিকিৎসার ভাষায় পারসমিয়া বলা হয়ে থাকে। 

বিস্তারিত ভাবেই তারা জানিয়েছেন, এই রোগ প্রসঙ্গে। যখন কোনও মানুষ নির্দিষ্ট কোনও খাবারের গন্ধ পান কিংবা অনুভব করেন সেগুলোই তারা খেতে পছন্দ করে, বেশ কিছু বয়স্ক মানুষের মধ্যে এই লক্ষণ দেখা গেছিল বটে তবে শিশুদের মধ্যে কিন্তু সাংঘাতিক ভাবে এটি দেখা দিচ্ছে। অনেক সময় মিশ্র স্বাদও তারা অনুভব করতে পারেন। সেই ক্ষেত্রে দেখা যায়, তাদের খাবারের প্রতি অনীহা তৈরি হচ্ছে। 

তারা বলছেন কিছু বাচ্চাদের মধ্যে মাংস কিংবা রসুন আদা এসবের চাহিদা দেখা যাচ্ছে আবার কেউ কেউ খুব হালকা গন্ধের কিছুই পছন্দ করছেন। চকলেট কিংবা কফির স্বাদ তাদের পছন্দ হচ্ছে। 

কেন হচ্ছে এমন? 

চিকিৎসক জগদীশ কথওয়াতে জানিয়েছেন, করোনা আক্রান্ত হলে মানুষের শরীরে প্রদাহ এত বেশি মাত্রায় হয় যে স্বাদ গন্ধ সব হারিয়ে যায় এবং তখন মানুষ নির্দিষ্ট কিছু খুঁজতে থাকে। মানুষের নিজস্ব মস্তিষ্ক এবং স্নায়ু যে গন্ধের সঙ্গে সাড়া দেয় তাকেই তার পছন্দ হয় এবং খাবার হিসেবে সেটিকে তারা গ্রহণ করতে পারে। বিশেষ করে যাদের ঘ্রাণশক্তি তাড়াতাড়ি যাওয়ার মত লক্ষণ দেখা যায়, তারা কিন্তু সহজেই এই সমস্যায় পড়তে পারেন। এবং এটি কম করে ঠিক হতে দুই মাস সময় লাগে। এমনকি তারা যে খাবারটি খেতে পছন্দ করত সেটিতেও কিন্তু অ্যালার্জি দেখা যায়। 

চিকিৎসক শ্রীনাথ মনিকান্তী জানিয়েছেন বাচ্চাদের মধ্যে বিশেষ করে খাবার খাওয়ার লক্ষণ কমে যাচ্ছে, লং কোভিড থেকে এগুলি খুব স্বাভাবিক। এবং তুলনামূলক ভাবে দেখা যাচ্ছে শিশুদের এই সমস্যা সারতে বেশ কিছুদিন সময় লাগছে। চিকিৎসকরা জানাচ্ছেন শিশুদের মধ্যে এমনও কিছু লক্ষণ দেখা যাচ্ছে যার কারণে যেই খাবারটি খেতে তারা আগে ভালবাসত, সেটি খাবার মত আগ্রহও খুঁজে পাচ্ছেন না।  বেশিরভাগ বাচ্চাদের মতে খাবার থেকে সবসময় তারা বাজে দুর্গন্ধ অথবা আঁশটে গন্ধ পাচ্ছে। 

কীভাবে ওদের সমস্যা থেকে সুস্থ করা যাবে? 

  • বাচ্চারা যদি খুবই ঝামেলা করে খাবার খেতে, তবে সফট নোজ ক্লিপ ব্যবহার করা যেতে পারে। তাহলে নাকে কোনও গন্ধ যাবে না। 
  • তারা যে ধরনের খাবার একেবারেই খেতে চাইছে না সেগুলিকে নোট করে রাখা। এবং স্মেল আইডেন্টিফিকেশন থেরাপি ব্যবহার করা। এতে ওদের ঘ্রাণশক্তি উন্নত হবে। 
  • কম গন্ধযুক্ত খাবার ওদের খেতে দিন, চড়া গন্ধ নাও সহ্য হতে পারে। 
  • আসতে করে ফ্যান চালিয়ে রাখুন খাবার খাওয়ার সময়, এতে গন্ধ দূরে হতে পারে। এবং ওদের আগ্রহ ফিরে আসতে পারে। 
  • স্মেল ট্রিটমেন্টের জন্য কফি, চকলেট, গোলাপ কিংবা সুবাস যুক্ত জিনিস ব্যবহার করুন।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Lifestyle news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Parsomia is one of the newest symptoms can state in children after covid infection