scorecardresearch

বড় খবর

ওমিক্রন পরবর্তীতে কোন ধরনের উপসর্গগুলো আপনাকে ভোগাতে পারে? জেনে নিন

উপসর্গ বেশিদিন জিইয়ে রাখবেন না, চিকিৎসকের পরামর্শ নিন

প্রতীকী ছবি

Post Covid Omicron Symptoms : করোনা ভাইরাসের সঙ্গে সঙ্গে বর্তমানে ওমিক্রন আতঙ্কও মানুষকে ঘিরে ধরেছে। দেশে ক্রমশই ওমিক্রন আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। যদিও বা এটিকে সাধারণ ফ্লু হিসেবে প্রথম থেকেই গণ্য করা হয়েছিল তবে তার পরেও এটি দ্বারা আক্রান্ত হলে কিন্তু বেশ কিছু সমস্যা দেখা যাচ্ছে সেটিও পরবর্তীকালে। রিপোর্ট নেগেটিভ আসার পর থেকে কিন্তু মানুষ এই ভ্যারিয়েন্ট থেকে আসলেই প্রভাবিত হতে পারে। সুতরাং সতর্ক থাকুন। 

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তরফ থেকে কী জানানো হচ্ছে? 

WHO এর তরফে বরাবরই জানানো হয়েছে, যতক্ষণ না পর্যন্ত তাদের কাছ থেকে কোনও রকম সবুজ সংকেত দেওয়া হচ্ছে ততদিন এই ভ্যারিয়েন্ট টিকে একেবারেই সাধারণ ভাবে নেওয়ার কোনও বিষয় নেই। তার কারণ এটি সঙ্গে সঙ্গে পরবর্তীতে মারাত্বকভাবে ক্ষতি করতে পারে যদি সঠিকভাবে কেয়ার না করা যায়। সেটি কিন্তু ঝুঁকির দিকেও শরীরকে নিয়ে যেতে পারে। সুতরাং অবশ্যই নিয়ম মেনে চলা দরকারি। অযথা এই ভাবনা মাথায় অন উচিত নয় যে করোনা থেকে সুস্থতার মাহেন্দ্রক্ষণ এসে গিয়েছে, আরও কিছু সময় নিজেদেরকে সতর্ক রাখা উচিত। 

কী ধরনের উপসর্গ এই ভ্যারিয়েন্ট থেকে পরবর্তীতে দেখা যেতে পারে? 

নতুন গবেষণা থেকে জানা যাচ্ছে সাধারণত যে ধরনের সমস্যাগুলি দেখা যাচ্ছে তার মধ্যে একটি হল তলপেটে ব্যাথা, শিরদাঁড়ায় যন্ত্রণা এমনকি মাংস পেশিতে সহ্যাতীত যন্ত্রণা। শিরদাঁড়ার যন্ত্রণার সঙ্গে সঙ্গেই পিঠের পেছনে একদম লোয়ার ব্যাকে মানুষ অনুভব করছেন হালকা বদ্ধ এবং চিনচিনে অনুভব। 

চিকিৎসকরা জানাচ্ছেন সবথেকে দুর্বিষহ বিষয়টি হল একজন মানুষ নেগেটিভ রিপোর্ট পাওয়ার পরেও তার মধ্যে এই সমস্যা দেখা যাচ্ছে যেটি শরীরের পক্ষে বেশ ক্ষতিকর। বিশেষ করলে সুগার প্রেসার অথবা অ্যাস্মাটিক রোগীদের ক্ষেত্রে সংকোচ কিন্তু থেকেই যায়। 

কেন এটিকে মাইল্ড বলে ধরে নেওয়া যায় না? 

চিকিৎসকরা জানাচ্ছেন মানুষের মনে এর উপসর্গ দেখে মনে হতেই পারে যে, এটি সাধারণ রোগের মতই, ঠিক যেমন ফ্লু অথবা ইনফ্লুঞ্জা কিছু হয় ঠিক তাই, তবে এতেই রয়েছে বিপত্তি এবং তার কারণ হিসেবেই ডাক্তারদের তরফ থেকে আশঙ্কা করা হচ্ছে দীর্ঘ কোভিড এমনকি পরবর্তীতে শরীরে কার্ব বেড়ে গিয়ে মারাত্মক কোনও ক্ষতি। সঙ্গেই বারবার তারা প্রেসারের দিকে ধ্যান দিতে বলছেন কারণ অতিরিক্ত প্রদাহ সৃষ্টি করতে পারে এই ভ্যারিয়েন্ট যার কারণে প্রেসারের হেরফের হতে পারে। তাই রকমফের পরীক্ষা করতে গিয়ে করোনা ভাইরাস এবং এই ভ্যারিয়েন্ট এর পাল্লায় না পড়াই ভাল। 

কী বিষয়ে ধ্যান দেবেন? 

চিকিৎসকরা জানাচ্ছেন, যতক্ষণ না পর্যন্ত নিজে সুস্থ বোধ করছেন রিপোর্ট পেলেও নিজেকে সতর্ক রাখুন। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে দেখা যাচ্ছে পরবর্তীতে সমস্যা বেশি হবে। সুতরাং সেই বিষয়ে যথেষ্ট তৎপরতা রাখা জরুরি। একটু খেয়াল রাখা, মাস্ক পড়া নিজেকে হাইজিন রাখতেই হবে। শরীর যদি অসুস্থ বোধ করে অবশ্যই চিকিৎসকের সঙ্গে কথা বলুন।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Lifestyle news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Post covid these omicron symptoms can cause some health trauma