scorecardresearch

মেদ ঝরাতে কফি ডায়েট! ঝুঁকি বেশি, নাকি লাভ?

মনে রাখতে হবে এই ডায়েটে দিনে অন্তত তিন কাপ কফি খেতে হবে, এবং অবশ্যই চিনি, দুধ, ক্রিম ছাড়া।

মেদ ঝরাতে কফি ডায়েট! ঝুঁকি বেশি, নাকি লাভ?

বাড়তি মেদ ঝরিয়ে ফেলার জন্য নিত্য নতুন ডায়েট রেজিম মেনে চলেন অনেকেই। সবার যে সব ধরনের ডায়েট সহ্য হয় এমনটা নয়। আবার একেক ডায়েটের সঙ্গে মেনে চলতে হয় একেক রকম লাইফস্টাইল। সেরকমই এক ডায়েট রেজিম হল কফি ডায়েট। জেনে নেওয়া যাক কফি ডায়েট আসলে কী?

কফি ডায়েট কী?

এই ডায়েট মানতে গেলে সারা দিনে বেশ কয়েক কাপ কফি খেতে হবে। ডঃ বব আরনটের ‘দ্য কফি লাভার্স ডায়েরি’ বই থেকেই প্রথম এই ডায়েট জনপ্রিয়তা পেতে শুরু করে। এই বইতে বলা হয়েছে কফি বিপাকের হার বাড়িয়ে ক্যালোরি বার্ন করতে সাহায্য করে। বেশি কফি খেলে খিদেও কমে যায়।

কী ভাবে কাজ করে কফি ডায়েট?

মনে রাখতে হবে এই ডায়েটে দিনে অন্তত তিন কাপ কফি খেতে হবে, এবং অবশ্যই চিনি, দুধ, ক্রিম ছাড়া। এই ডায়েট করলে সঙ্গে লো ক্যালোরি যুক্ত এবং হাই ফাইবার খাবার খেতে হবে। যেমন শাক সবজি, ফল, শস্য জাতীয় খাবার।

এই ডায়েটের উপকারিতা-

কফি ডায়েটে দুটো বড় লাভ হয়। প্রথমত, এতে খিদে কমে। দ্বিতীয়ত, এটি দেহে মেটাবলিজম বা বিপাকের হার বাড়ায়। আর খিদে কমে গেলে শরীরের ক্যালোরি গ্রহণ ক্ষমতা কমে যায়। খাবার খাওয়ার আগে এক কাপ কফি খেয়ে নিলে খিদে কমে যায় এবং সে ক্ষেত্রে বেশি খাওয়া যায় না। সম্প্রতি ৬০০ জনকে নিয়ে এক সমীক্ষা চালিয়ে দেখা গিয়েছে ক্যাফেইন নিলে দেহের ওজন কমে।

কী ঝুঁকি রয়েছে?

এই ডায়েটের ঝুঁকিও রয়েছে। ক্যাফেইনের নানা সাইডেফেক্ট রয়েছে। উচ্চ রক্তচাপ, ঘুমহীনতা অর্থাৎ ইনসমনিয়া, মাথা ব্যথা হওয়া এর মধ্যে অন্যতম। তাই দীর্ঘদিন ধরে এই ডায়েট মেনে চলা শরীরের পক্ষে একটু ক্ষতিকারক। আর সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কথা হল, যে কোনো ডায়েট অনুসরণ করার আগে চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া একান্ত জরুরি।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Lifestyle news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Pros and cons of coffee diet