বড় খবর

পালস অক্সিমিটারের মাধ্যমে শরীরে অক্সিজেনের সঠিক মাত্রা জানা যায়?

অক্সিজেন লেভেল ঠিক রাখা অত্যন্ত আবশ্যিক! প্রয়োজনে বাড়িতেই পরীক্ষা করুন

প্রতীকী ছবি

চারিদিকে করোনা আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা ক্রমশ বাড়ছে। এবং এইসময় সাবধানতার সঙ্গে সঙ্গেই দরকার নিজের শরীরের বেশ দিকে নজর রাখা। একদিকে যেমন জ্বর আসছে যাচ্ছে কিনা সেইদিকে ধ্যান দেওয়া প্রয়োজন তেমনই সারাদিনে অন্তত একবার এই পরিস্থিতিতে অক্সিজেনের মাত্রা দেখে নেওয়া প্রয়োজন। যেহেতু এখন উপসর্গ হীন মানুষই কম, তারপরও অক্সিজেন কিন্তু নিয়ম করে চেক করা দরকার। তাই জন্য বাড়িতেই কিন নেওয়া উচিত, পালস অক্সিমিটার। 

নিজের বাড়িতে বসেই, কোনও অসুবিধে ছাড়া আপনি প্রতিদিন ফুসফুসের সুস্থতা, এবং রক্তে অক্সিজেনের মাত্রা পরিমাপ করতে পারেন। এবং যদি শরীরে সমস্যা থাকে এটি সঙ্গে সঙ্গে ইঙ্গিত করবে। সুতরাং বাড়িতে এটি একটি কিনে রাখা অবশ্যই দরকার। এটি আসলে একটি প্রতিদিন রুটিন চেক করার মিটার, সাধারণত এটি দেখতে হয় একটি ক্লিপের মত, যার মধ্যে একটি রঙের আলো দেখতে পাওয়া যায়। সেখানেই আঙ্গুলের ওপর অংশটি প্রবেশ করিয়ে অক্সিজেনের মাত্রা বোঝা যায়। 

এটিকে কেন এখন মানুষ ব্যবহার করছেন? 

যদিও না উপসর্গ একেবারেই কম তারপরও যখন তখন অক্সিজেনের কমতি কিন্তু হতেই পারে তাই রোজ একবার নিজের শরীরের অক্সি-মাত্রা দেখে নেওয়া প্রয়োজন। সাধারণত মানুষের দেহে অক্সিজেনের মাত্রা হাওয়া উচিত, ৯৫% থেকে ১০০% এবং ছোট শিশুদের ক্ষেত্রে সেই মাত্রা ৯২% । এছাড়াও শুধু অক্সিজেনের মাত্রা নয়, এটি পালস রেট পর্যন্ত দেখাতে পারে তাই আপনারই সুবিধা। 

বাড়িতে নিজেকে সুস্থ রাখতে গেলেও বেশ কিছু জিনিসের বন্দোবস্ত করে রাখা প্রয়োজন। যদি অসুস্থতা বোধ করতে মানুষ শুরু করেন তবে প্রথম থেকেই কী কারণে এটি হচ্ছে তার একটি লক্ষণ মিলবে। আর এমনিতেও যারা সহরোগী অর্থাৎ ব্লাড প্রেসার কিংবা সুগার অথবা হার্ট এবং ফুসফুসের সমস্যায় আক্রান্ত তাদের কিন্তু নিজেদের স্বার্থেই এটিকে ব্যবহার করতে হবে। 

বেশ কিছু চিকিৎসকরা এখনও এতটাই আশঙ্কায় যে, অক্সিজেনের মাত্রা যেকোনও সময় নয়ছয় করতে পারে তাই যখনই সম্ভব হবে একবার অন্তত নিজেরাই মেপে নিলে ভাল। যেই মুহুর্তে অক্সিজেনের মাত্রা ৯২ থেকে ৯৪% তে নেমে যাবে ধীরে ধীরে হাসপাতালের ব্যবস্থা করা ভাল। বিশেষ করে যারা এখনও ভ্যাকসিন গ্রহণ করেননি, তাদের মধ্যেই ঝুঁকি বেশি থাকছে। 

আদৌ সঠিক মাত্রা দেখায়? 

অক্সিমিটার একেবারেই সঠিক পরিমাপ দেখায়। যদিও বা অত্যধিক ঠান্ডা কিংবা চিন্তা অথবা আপনার আঙুলে যদি ঘাম জমে থাকে অথবা বারবার এটিএকে নড়াচড়া করতে থাকেন তবে কিছু ভুল আসতে পারে। আগে ভাল করে হাত ঘষে নিয়ে একে গরম করে নিন, সঠিক পরিমাপ আসবে। এমনকি মেহেন্দি তথা নেইল পলিশ থেকেও মাত্রায় ভুল আসতে পারে। 

তবে একটি সমস্যার কথা উল্লেখযোগ্য, যাদের গায়ের রং একটু কালো তাদের কিন্তু রক্তের আবরণ পেতে বেশ সমস্যা হতে পারে তাই পরিমাপ ভুল আসতেও পারে। সুতরাং এই বিষয়ে একটু ধ্যান দেওয়া প্রয়োজন।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Lifestyle news here. You can also read all the Lifestyle news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Pulse oximeter can save your from chronic hear disease in covid period

The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com