scorecardresearch

বড় খবর

ওমিক্রনের পূর্বলক্ষণ হতে পারে ত্বকের সমস্যা! জেনে নিন

র‍্যাশ হলেই পরখ করে নিন, নতুন উপসর্গের মধ্যে এটিও রয়েছে

প্রতীকী ছবি

রোজ এক নতুন করে উপসর্গ তবে পূর্বের করোনা ভাইরাসের লক্ষণ থেকে একেবারে আলাদা। কিছু না কিছু লেগেই আছে। যদিও বা এর ক্ষতি করার মাত্রা বেশ কম তবে এর ছড়িয়ে পড়ার সম্ভাবনা বেশ মারাত্মক। এর সঙ্গেই বিশ্বজুড়ে নানান ধরনের রেস্ট্রিকশন শুরু হয়ে গিয়েছে। তবে দক্ষিণ আফ্রিকার রিপোর্ট অনুযায়ী এর বর্তমান একটি উপসর্গের মধ্যে অন্যতম ত্বকের সমস্যা। 

কী জানা গেছে সেই রিপোর্টে? 

জানা গেছে ওমিক্রনের মিউটেশন এতই বেশি যে কোনও বস্তুর ওপরেও এটি প্রভাব বিস্তার করতে পারে এবং সেই থেকেই হতে পারে সমস্যার সূত্রপাত। মানুষের এদিক ওদিক হাত দেওয়া স্বভাব এবং তারপরেই হাত পা পরিষ্কার না রাখা- ফের পুরনো অভ্যাসে ধরেছিল মানুষকে। তবে বেশ কিছু মানুষ জানিয়েছেন, তারা ওমিক্রনের অন্যান্য উপসর্গের ঠিক আগেই হাতে পায়ে ফুসকুড়ি এবং চুলকানি অনুভব করেছেন। তার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে অনেকেরই হাত পা ফেটে যাওয়ার মত লক্ষণ দেখা গেছে। প্রথম দিকে একে শীতকালের লক্ষণ হিসেবে বর্ণনা করা হলেও পরে জানা গিয়েছে এটি ভাইরাসের পূর্ব সমস্যা। 

কেন হতে পারে এটি? 

বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন ওমিক্রন এমন একটি ভ্যারিয়েন্ট যেটির কারণে শরীরে অতিরিক্ত প্রদাহ সৃষ্টি হতে পারে। এবং এর থেকে শরীরে অ্যাসিড তথা টক্সিনের পরিমাণ বেড়ে যেতে পারে তাই সেই থেকেও ফুসকুড়ি কিংবা চুলকানোর অনুভূতি হওয়া বেশ স্বাভাবিক বিষয়। 

শুধু হাতেই নয়। পায়ের আঙ্গুল ফোলাভাব এবং লাল হয়ে চুলকানোর উপসর্গও দেখা গিয়েছে। এর থেকে পা ফেলতেও সমস্যা হতে পারে এবং সম্পূর্ণ বিষয়টিই ভাইরাসের কারণে শরীর গরম হয়ে যাওয়ার ফলাফল। সাধারণত দুই ধরনের অ্যালার্জি কিংবা ফুসকুড়ির হদিশ মিলেছে। প্রথম যেটি হাইভ টাইপ র‍্যাশ অর্থাৎ তাড়াতাড়ি ফেড হয়ে যায় – বুঝতে হবে আপনার উপসর্গ কম। আর যেটি প্রিকলি হিট র‍্যাশ সেটি সময় লাগে এবং দাগ ফেলতেও পারে সেটিই সমস্যাদায়ক। 

সাধারণ উপসর্গের মধ্যে এমনিও গলা চুলকানো এবং মাথা জ্বলুনি এই প্রভাবের কথা আগেও জানা গিয়েছে। পরবর্তীতে রাত্রিবেলা ঘাম, প্রচন্ড গা হাত পা ব্যথাকেও শনাক্ত করা হয়েছে। 

কী ভাবে মোকাবিলা করা সম্ভব? 

যদি আপনি অমিক্রন দ্বারা আক্রান্ত হন, তবে নিজের স্বার্থেই প্রতিদিন বাড়ি বসে পরীক্ষা করা প্রয়োজন। একটি অক্সিমিটার বাড়িতে রাখতে পারেন, রোজ পালস রেট, অক্সিজেনের মাত্রা দেখা আবশ্যিক। এবং যদি হাই ব্লাড সুগার কিংবা প্রেসারের রোগী হন তাহলেও সেগুলি মেশিনের দ্বারা স্বল্প মাত্রায় পরীক্ষা করা ভাল। প্রচুর জল খান, সুবিধা থাকেন মধু এবং আদার জল খেতে পারেন।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Lifestyle news download Indian Express Bengali App.

Web Title: The rashes are new effect of omicron