বড় খবর

সারাদিনের খাবারে ভাত খান? এগুলি মাথায় না রাখলে বিপদ আছে

সঠিক ভাবে ভাত রান্না না করা হলে এর থেকে কিন্তু ক্যানসার পর্যন্ত হতে পারে।

ভাত কাঁচা থাকলে খুব সমস্যা

ভারতীয়দের প্রতিদিনের খাবারে একবার হলেও ভাত থাকবে না এটি অসম্ভব। কেউ বলেন চাওয়াল আবার কেউ বলেন ভাত। নানান ধরনের ভাতের রকমারি বাহার। বাসমতি থেকে পুসা থেকে সুগন্ধা স্বাদ এবং গন্ধে এক একটি বিশেষ ধরনের মাত্রা পেয়েছে।

বাঙ্গালী পরিবারে দুপুরবেলা পেট ভরে ভাত খাওয়া হবে না, এমন খুব কমই আছে। কথাতেই বলে, মাছে ভাতে বাঙালি। কিন্তু আপনি কি জানেন, ভাত সঠিক ভাবে সেদ্ধ না হলে কিংবা একটু শক্ত থাকলেও এটি শারীরিক ভাবে ক্ষতিকর?

গবেষণা অনুযায়ী, ধান উৎপাদনের সময়কালে মাঠের কীটনাশক নানানভাবে একে বিষাক্ত করে তুলতে পারে। এমনকি এর থেকে আর্সেনিকের মত বিষাক্ত প্রভাবের সৃষ্টি হতেই পারে। শুধু তাই নয়, সঠিক ভাবে ভাত রান্না না করা হলে এর থেকে কিন্তু ক্যানসার পর্যন্ত হতে পারে।

চাল কোনওভাবেই বস্তায় ফেলে রাখবেন না, এটিকে পরিষ্কার শুকনো জায়গায় রাখুন এবং অবশ্যই ঢাকা দিয়ে রাখুন। অনেক সময় কোনও ফল সবজি পাকাতে চালের মধ্যে ফেলে রাখা হয়। সেই ক্ষেত্রে একটি পরিষ্কার কাপড় দিয়ে ঢেকে তারপরেই রাখুন।

কম রান্না হাওয়া চাল একেবারেই খাওয়া চলে না কিংবা উচিত নয়। স্বাস্থের উদ্বেগের সঙ্গে সঙ্গেই এতে যুক্ত থাকা বিষাক্ত কীটনাশক ধীরে ধীরে মস্তিষ্কে সঞ্চালিত হতে পারে। যার থেকে ব্রেন টিউমারের মতো রোগ সৃষ্টি হতে পারে। তার সঙ্গে রান্নার আগে চাল ভাল করে ঠান্ডা জল দিয়ে ধুয়ে নিন। পারলে অল্প একটু নুন ফেলে দিন গরম জলে।

কাঁচা চাল সম্পূর্ণ ভাবেই নিরাপদ নয়। এটিতে চূড়ান্ত মাত্রায় ব্যাকটেরিয়া সংক্রমণ থাকতে পারে। যেটি শরীর স্বাস্থ্য এবং পেটের পক্ষে খারাপ। বদহজম থেকে ডায়েরিয়া অনেক কিছুই হতে পারে। আধা রান্না করা চালের থেকে বিষক্রিয়া ক্রমশই বাড়তে পারে। কারণ ভাত ক্ষতিকারক ব্যাকটিরিয়া যেমন ভ্যাসিলাস সেরিয়াসকে আশ্রয় দিতে পারে। তাই উচ্চ তাপমাত্রায় রান্না করা আবশ্যিক।

আরও পড়ুন পেটের সমস্যায় জর্জরিত? আয়ুর্বেদিক চায়েই আছে সমাধান

বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই দেখা যায়, মহিলাদের মধ্যে ভাত থেকে সংক্রমণ বেশি। মূলত ব্রেস্ট ক্যান্সার এমনকি লিভার ক্যান্সার জাতীয় মারণ রোগ এর থেকে হতে পারে।

সাধারণত, বিশেষজ্ঞের পরামর্শ অনুযায়ী চাল সঠিকভাবে জীবাণুমুক্ত করতে গেলে আগের দিন রাত থেকে একে ভিজিয়ে রাখতে হয়। অল্প একটু নুন ফেলে সারারাত ভিজিয়ে রাখুন। পরের দিন ঠান্ডা পরিষ্কার জল দিয়ে ধুয়ে নিন। তাই নিজের খাবার এবং শরীরের প্রতি আপোস করবেন না, সঠিকটি বেছে নিন এবং সুস্থ থাকুন।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Lifestyle news here. You can also read all the Lifestyle news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Uncooked rice is not good for your health

Next Story
কলকাতায় বাঙালি খাবারে মজে সোনার ছেলে নীরজ চোপড়া, কব্জি ডুবিয়ে খেলেন নানান পদ
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com