scorecardresearch

বড় খবর

আম্রুত অথবা অমৃতবল্লি করোনা তাড়াতে উপযোগী! জানুন

আয়ুর্বেদে এর গুণ সম্পর্কে জানলে অবাক হবেন

অমৃতবল্লি – প্রতীকী ছবি

এই মহা বিশ্বে এমন কোনও সমস্যা নেই, যার সমাধান আয়ুর্বেদের কাছে নেই। করোনা প্রবাহে মানুষের জীবন নিদারুণ সমস্যায়। কী করবেন কী খাবেন কিছুই যেন বোঝা যাচ্ছেনা। মানুষের কাছে এখন একমাত্র সম্বল নিজেকে সবকিছুর থেকে দূরে এবং সুস্থ রাখা। একে আয়ুর্বেদের ভাষায় রসায়নের তকমা দেওয়া হয়েছে – সেটি আম্রুত অথবা অমৃতবল্লি। 

পুষ্টিবিদ ডা ডিকসা ভাবসার বলছেন, এইসময় দাঁড়িয়ে সবথেকে যেটি গুরুত্বপূর্ণ সেটি হল মানুষের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানো। চারিদিকে কান পাতলেই শোনা যাচ্ছে জ্বর, জ্বালা এবং শরীর খারাপ। এই অমৃতবল্লি এমন একটি আয়ুর্বেদের কামাল, যেটি জ্বর, ডেঙ্গু, চিকুঙ্গুনিয়া থেকে মানুষকে রেহাই দিয়ে থাকে। এটি চারিপাশে একটু খুঁজলেই পাওয়া যায়। দেখতে পান পাতার মতই তবে বেশ কার্যকরী। 

তিনি আরও বলেন, যারা ডায়াবেটিক রোগী তারা কিন্তু বিশেষ করে এই পাতা সেবন করতে পারেন। করোনা আক্রান্ত ব্যক্তিরা পরবর্তীতেও দুর্বলতা কাটাতে এটি খেতেই পারেন। প্রাকৃতিক সেবনের বেশ ভাল উদাহরণ এই পাতা মস্তিষ্ক সবল রাখতে, মানসিক শান্তি বজায় রাখতে বেশ কাজে দেয়। স্ট্রেস কমায়, এবং মানুষকে সজাগ রাখে। 

শুধু এটির পাতা নয়, বরং কাণ্ড থেকে মূল সবকিছুই যেন বেশ কার্যকরী। এটি এতই অ্যান্টি অক্সিডেন্ট এবং ইনফ্লেমেটরি যে সহজেই শরীরের প্রদাহ কমিয়ে তাকে সুস্থ রাখতে পারে। দেহে জলের ঘাটতি কমায়। মানুষ এখন বাড়িতেই আছেন, তাই নিজে থেকেই অলস প্রকৃতির হয়ে গেছেন সেই দিকে বিচার করলে এটি শারীরিক শক্তিও জোগান দিতে পারে। তবে আর যাই হোক, গর্ভবতী অবস্থায় এই পাতা সেবন না করাই ভাল। 

কীভাবে এটিকে সেবন করবেন? 

বাড়িতে যদি গাছ থেকে তবে তো অবশ্যই আপনার পক্ষে ভাল! তবে একে সেবন করার জন্য বেশ কয়েকটি পদ্ধতি রয়েছে। 

প্রথম, সারারাত পাতাগুলোকে ভিজিয়ে রেখে পরের দিন অল্প ছিড়ে নিন। একে সেদ্ধ করুন, এবং যতক্ষণ পর্যন্ত আধা গ্লাস এর মত পরিমাণ না হয়, তারপর ছেঁকে নিন এবং পান করুন। 

দ্বিতীয়, যদি এটিকে শুকনো অথবা গুড়ো অবস্থায় পান, তবে অবশ্যই সারারাত ভিজিয়ে রাখুন এবং সকালে ভাল করে ফুটিয়ে ১০০ মিলি মত এলেই সেটিকে পান করুন। সুগারের রোগী না হলে জাগেরি মেশাতে পারেন। 

তৃতীয়, গুড়ো পাউডার এক গ্লাস গরম জল এবং এক চামচ মধুর সহযোগে পান করুন। 

কখন খাবেন? 

সকাল বেলা আধা গ্লাস, এবং বিকেলে আধা গ্লাস খেতে পারেন। আবার সন্ধ্যার দিকেও খেতে পারেন। কিংবা রাত্রের খাবার খাওয়ার আগে একদম অল্প করেও খেতে পারেন। অনেক সময় এটি দ্বারা নির্মিত ট্যাবলেট পাওয়া যায়, সেটিকেও খেতে পারেন তবে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। 

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Lifestyle news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Watch out how giloy can save you from corona virus