বড় খবর

আলস্য সূচকে কোথায় দাঁড়িয়ে ভারত? দেখে নিন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার রিপোর্ট

পর্যাপ্ত শরীরচর্চা বা সচলতার একটি নির্দিষ্ট পরিমাপ হিসেব করে তার ভিত্তিতে সমীক্ষা চালিয়েছে হু। পরিমাপটি হল সপ্তাহে ন্যূনতম ৭৫ মিনিট ভারী শরীরচর্চা অথবা ১৫০ মিনিট হালকা ব্যায়াম।

“এমনি করে যায় যদি দিন যাক না” এই মন্ত্রে বিশ্বাস করে সারা পৃথিবীর এক চতুর্থাংশ মানুষ। আমি আপনি না, বলছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। ওয়ার্ল্ড হেলথ অর্গানাইজেশন বা হু-এর পক্ষ থেকে ১৬৮ টি দেশের মানুষকে নিয়ে সমীক্ষা চালিয়েছিল। সমীক্ষার ফলাফল বলছে উগান্ডার মানুষ সবচেয়ে বেশি সচল, আলস্যের ধার ধারে না। আর তালিকায় ১৬৮তম নামটা কার? কুয়েত রয়েছে সবার শেষে।

প্রথম বিশ্বের দেশগুলো কে কোথায় দাঁড়িয়ে? মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র রয়েছে ১৪৩ নম্বরে। ব্রিটেন ১২৩ -এ। তালিকার ১২৬ নম্বরে রয়েছে সিঙ্গাপুর। অস্ট্রেলিয়ার স্থান ৯৭তম।

হু-এর রিপোর্ট বলছে, কুয়েত, সৌদি আরব, এবং মার্কিন মুলুকের জনসংখ্যার বেশিটাই যথেষ্ট পরিমাণে শরীরচর্চা করে না। ওদিকে উগান্ডার মানুষের ৯৪৫ শতাংশই নিয়মিত শরীরচর্চা করে দিব্যি সচল রয়েছে।

আরও পড়ুন,নিজের সাথেই গল্প করেন? গবেষণা বলছে বুদ্ধিমত্তায় আপনি বেশ ওপরের দিকেই

তা এসবের মধ্যে ভারতের স্থান কোথায়? সমীক্ষার ফলাফল বলছে ভারতীয়দের শরীরচর্চাও সীমাবদ্ধ রয়েছে আন্তর্জাতিক যোগ দিবসের মহড়ায়। তালিকায় ভারত রয়েছে ১১৭ নম্বরে। ফুটবলের দেশ ব্রাজিল নিশ্চয়ই অনেকটাই এগিয়ে? না, পুরো দেশটাই কি আর ফুটবলের মাঠ? হু এর রিপোর্ট অনুযায়ী পেলের দেশও রয়েছে তালিকার একেবারে শেষ দিকে- ১৬৪ নম্বরে।

পর্যাপ্ত শরীরচর্চা বা সচলতার একটি নির্দিষ্ট পরিমাপ হিসেব করে তার ভিত্তিতে সমীক্ষা চালিয়েছে হু। পরিমাপটি হল সপ্তাহে ন্যূনতম ৭৫ মিনিট ভারী শরীরচর্চা অথবা ১৫০ মিনিট হালকা ব্যায়াম।

অধিকাংশ দেশেই পুরুষদের তুলনায় সচলতায় অনেকটাই পিছিয়ে মহিলারা। সমীক্ষায় উঠে এসেছে আরও এক অভিনব তথ্য। যে দেশ যত বেশি গরিব, সেখানকার মানুষের সচলতা তত বেশি। ধনী দেশে কায়িক পরিশ্রমের প্রতিস্থাপন হিসেবে জায়গা করে নিয়েছে সোশাল মিডিয়া, অসংখ্য গ্যাজেট।

Get the latest Bengali news and Lifestyle news here. You can also read all the Lifestyle news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Worlds laziest nations according to who report

Next Story
রোগীর ব্যবহারোপযোগী হুইল চেয়ার বানিয়ে জেমস ডায়সন সম্মান পেল দিল্লি আইআইটির দুই পড়ুয়া
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com