সম্পাদকীয় খবর

করোনা-আমফান, এবং বাঙালির আত্মপরিচয় 

করোনা-আমফান, এবং বাঙালির আত্মপরিচয় 

সব দলের নেতারাই বলছেন, রাজনীতি হচ্ছে। আমি ভাবছি, প্রাকৃতিক দুর্যোগেও এতটা পারস্পরিক রাজনৈতিক কলহ, এক একটা জার্সি গায়ে দিয়ে মারামারি, হতে পারে?

ধর্মসংকট – একটি অনলাইন বৈঠকের বিবরণ

ধর্মসংকট – একটি অনলাইন বৈঠকের বিবরণ

"আসলে জনগণকে নিয়ে তো বিশেষ অসুবিধে নেই। কিন্তু এ জগৎ যারা চালাচ্ছে তাদের সে ব্যাটাগুলো আমাদের এমনভাবে বেচে দেয় যে জনগণ গুলিয়ে গণেশ।"

কোভিড-১৯ ও ক্লিনিক্যাল মেডিসিন

কোভিড-১৯ ও ক্লিনিক্যাল মেডিসিন

কোভিড পরিস্থিতিতে ক্লিনিক্যাল মেডিসিন পিছিয়ে যাচ্ছে এবং প্রতিষ্ঠিত হচ্ছে এক নতুন ব্যবস্থা, যা অনেক বেশি যন্ত্র-নির্ভর। নানারকম টেস্টের গুরুত্ব আরও বাড়ছে। এর ফলে চিকিৎসার খরচ আরও বাড়ল।

উত্তমকুমার অথবা বটুরামদার কাঁচি

উত্তমকুমার অথবা বটুরামদার কাঁচি

বুর্জোয়ার ঘাড় ধরে প্রলেতারিয়েতের এমন টানাটানি বোধহয় সেলুনেই সম্ভব। সেলুন বস্তুত সাম্যের পরাকাষ্ঠা। তুমি যেই হও বাপু, তোমার মুন্ডু নিয়ে গেন্ডুয়া খেলার হক শুধু নাপিতেরই আছে।

আজও কেন জামাইষষ্ঠী? উদ্দেশ্য কি শুধুই ভূরিভোজন?

আজও কেন জামাইষষ্ঠী? উদ্দেশ্য কি শুধুই ভূরিভোজন?

বাল্যবৈধব্য আর নেই, সতীদাহ তো সেই ১৮২৯ সাল থেকেই নেই, তবে আজ জামাইদের জন্য বিশেষ দিন পালন করার কারণটা ঠিক কী? একবারের জন্যও যদি ভাবতে পারেন, এই উৎসবের আদৌ কী প্রয়োজন আজকের যুগে

আয় বন্ধ দু’মাসেরও বেশি! সঞ্চয় থেকেই মানুষের পাশে বাংলা বিনোদন জগৎ

আয় বন্ধ দু’মাসেরও বেশি! সঞ্চয় থেকেই মানুষের পাশে বাংলা বিনোদন জগৎ

সবাই তারকা নন, লক্ষপতিও নন। অভিনেতা-চিত্রনাট্যকার-পরিচালকদের মধ্যে অনেকেই মধ্যবিত্ত। ফুরিয়ে আসা সঞ্চয় থেকেই মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছেন তাঁরা।

নজরুলের হিন্দু গুরু এবং আজকের রাজনীতি

নজরুলের হিন্দু গুরু এবং আজকের রাজনীতি

ঈশ্বরে আস্থা যাঁর যাঁর ব্যক্তিগত বিষয়। কিন্তু আজকের ধর্মীয় বিদ্বেষের যুগে কাজী নজরুলের যে ধর্মের বেড়াবিহীন ঈশ্বর ভাবনা, তা এক নতুন মানুষের কথা বলে।

প্রিয়াঙ্কার রাজনৈতিক পরিপক্বতা বনাম কংগ্রেসের দৈন্যদশা

প্রিয়াঙ্কার রাজনৈতিক পরিপক্বতা বনাম কংগ্রেসের দৈন্যদশা

করোনা কাণ্ডে প্রিয়াঙ্কার রাজনৈতিক পরিপক্কতা এবং ভিন্ন মানসিকতার পরিচয় মিলল। এই মানসিকতা ইতিবাচক, কিন্তু কংগ্রেস নামক শতাব্দীরও অধিক প্রাচীন সর্বভারতীয় দলটির অবস্থাও আজ স্পষ্ট।

ঘূর্ণিঝড়ের প্রকোপ ও জনস্বাস্থ্য 

ঘূর্ণিঝড়ের প্রকোপ ও জনস্বাস্থ্য 

অতীতে প্লাবিত এলাকায় ত্রাণকাজের অভিজ্ঞতায় দেখেছি, ডায়েরিয়া জাতীয় পেটের রোগ, চর্মরোগ এবং ফুসফুসের সংক্রমণজনিত ব্যাধি এই সময় সবচেয়ে বেশি হয়।

দেওয়ালে পিঠ, বাংলা কি ঘুরে দাঁড়াবে?

দেওয়ালে পিঠ, বাংলা কি ঘুরে দাঁড়াবে?

আলো ফিরে এলেই মুঠোফোন চার্জ করে রাজনীতির কচকচি, কেবল ফিরে এলেই সন্ধেবেলায় কেবল রাজনৈতিক বিশ্লেষণ। অর্থাৎ, বাংলা নিজের মতোই ঘুরে দাঁড়াবে।

বিশ্বাস করুন, আর নেওয়া যাচ্ছে না!

বিশ্বাস করুন, আর নেওয়া যাচ্ছে না!

আগামী নির্বাচন অনেক দূরে। ততদিনে শ্রমিক মজুরদের রক্তে ভেজা রাস্তাগুলোর ওপর মাইলের পর মাইল শান্তিকল্যাণ বিছিয়ে নতুন উদ্যমে হিন্দু-মুসলমান, ভারত-পাকিস্তান কাটাকুটি খেলা শুরু হবে।

শুধু রুপোলী পর্দা নয়, দেখুন তার নেপথ্য লড়াইও

শুধু রুপোলী পর্দা নয়, দেখুন তার নেপথ্য লড়াইও

ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে মানুষের ওঠাপড়ার ইতিহাস প্রসিদ্ধ। উন্নতির শিখরে উঠে হারিয়ে যাওয়া প্রায়ই ঘটে। পেশা হিসেবে খুবই নিরাপত্তাহীন। প্রবল প্রতিযোগিতা।

উনিশে মে ও পৃথক বরাকের স্বপ্ন

উনিশে মে ও পৃথক বরাকের স্বপ্ন

কংগ্রেস এবং এজিপি-র মধ্যে কে কত বড় বাঙালি-বিদ্বেষী, সেটা প্রমাণ করার তাগিদ ছিল দু'পক্ষেরই। 'আসাম ফর অ্যাসামিজ' স্লোগানে তখন উত্তাল আসাম।

ভাষা শহীদ দিবস কেন আধিপত্যবাদের বিরুদ্ধে লড়াই

ভাষা শহীদ দিবস কেন আধিপত্যবাদের বিরুদ্ধে লড়াই

কেন এই পুরনো ইতিহাস ঘাঁটি আমরা? কেনই বা আত্মবলিদানকে স্মরণ করি? সে কি শুধু বাংলা ভাষার জন্য? পুরনো ইতিহাস মনে করতে হয়, আধিপত্যবাদ ও ফ্যাসিবাদকে বোঝার জন্য।

করোনা-যুদ্ধে আমরা যেখানে এখন

করোনা-যুদ্ধে আমরা যেখানে এখন

যে কোনো একদিকে এগোনোর পর ফল যা হবে, কিছুদিন পেরোলে সেই পথ নির্বাচনের সমালোচনা করা পেশাদার সমালোচকদের পক্ষে যত সহজ হবে, এই মুহূর্তে পথ বেছে নেওয়া তেমন সহজ নয়।

বিজেপি কি অন্য ভাবনা ভাববে? নাকি গৃহযুদ্ধই শ্রেয়?

বিজেপি কি অন্য ভাবনা ভাববে? নাকি গৃহযুদ্ধই শ্রেয়?

রাজ্য সরকার বিজেপির হলে সরাসরি পুঁজিবাদী ব্যবস্থা লাগু হবে। যেমন উত্তরপ্রদেশ, মধ্যপ্রদেশ কিংবা গুজরাটে বদলে যাচ্ছে শ্রম আইন। বিরোধী শাসিত রাজ্যের ক্ষেত্রে টকঝাল সম্পর্ক চলবে...

করোনার রাজনীতিটা কি নিতান্তই জরুরি?

করোনার রাজনীতিটা কি নিতান্তই জরুরি?

দেশের মানুষের দুর্দশা যখন চরমে তখন তার মোকাবিলা করার চেয়েও বড় লক্ষ্য হলো ভোট। ভোটের রাজনীতির বাইরে বোধহয় আমরা যেতেই পারব না।

Advertisement

ট্রেন্ডিং
BIG NEWS
X