scorecardresearch

ভার্চুয়াল ২১ জুলাই, একনজরে মমতার বার্তা

ভার্চুয়াল সভায় বক্তব্য রাখলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মঞ্চে দাপাদাপি না থাকলেও বক্তব্যের ঝাঁঝেই ঘায়েল করার চেষ্টা করলেন বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলোকে।

mamata, মমতা
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

২১শে ভার্চুয়াল সভায় বক্তব্য রাখলেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মঞ্চে দাপাদাপি না থাকলেও বক্তব্যের ঝাঁঝেই ঘায়েল করার চেষ্টা করলেন বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলোকে। একুশে বিধানসভার লড়াইয়ে যে মূল প্রতিপক্ষ বিজেপি এদিন তাঁর বক্তব্যে আরও একবার স্পষ্ট করলেন। ‘কঠীন’ লড়াই জিততে কোমড় বেঁধে লড়ার ডাক দিলেন দলের নেতা, কর্মীদের উদ্দেশ্যে। বিজেপি টাকার প্রলোভন দেবে, তা গ্রহণ করলেই যে ঘোj বিপদ নিজের বক্তব্যে তা উদাহরণ সহকারে তুলে ধরেন মমতা। মুখ খোলেন করোনা মোকাবিলা, ত্রাণ দুর্নীতি নিয়েও। রেশন নিয়েও ভার্চুয়াল সভা থেকে বড় প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তৃণমূল নেত্রী। একনজরে মমতার বার্তা…

* ‘চক্রান্তকে দূরে ঠেলে আগামী বছর ঐতিহাসিক ফলাফলের পর ঐতিহাসিক ২১ জুলাইয়ের সভা হবে। তার প্রস্তুতি আজ থেকেই শুরু করলাম।’

* ‘১০ কোটি মানুষকে রেশন দেওয়া হচ্ছে। আগামী জুন পর্যন্ত ফ্রিতে রেশন দেব বলে ঘোষণা করেছিলাম। কোথায় এমন রাজ্য পাবেন? তৃণমূল ক্ষমতায় থাকলে সারা জীবন বিনা মূল্যে রেশন পাবেন। আজ ঘোষণা করে গেলাম’

* ‘কিছু লোক রয়েছে যাদের সকাল থেকে জিভ লকলক করে। এদের না আছে রাজনীতির নীতিবোধ, না আছে দর্শন, না আছে বুদ্ধি। বহিরাগতরা বাংলা চালাবে না। বাংলা চালাবে বাংলার লোকেরা। তৃণমূল কংগ্রেসকে এত দুর্বল ভাবার কারণ নেই।’

* ‘শুধু মিথ্যা কথা বলছে, প্রচার করছে। কখনও রাজবংশীর সঙ্গে কামতাপুরীদের, কখনও হিন্দুর সঙ্গে মুসলমানের লাগিয়ে দেওয়া, কখনও আদিবাসীদে সঙ্গে উদ্বাস্তু-তফসিলিদের সঙ্গে লাগিয়ে দেওয়ার চেষ্টা হচ্ছে। এটা মানব না। মনে রাখবেন সব ধর্মের মানুষ সমান। এই দেশ, বাংলা সবার।’

* ‘ভয় পাবেন না, সংক্রমণ বাড়ছে, এখন একটু বাড়বে। কিন্তু আস্তে আস্তে করোনার প্রভাব কমে যাবে। আমরা নমুনা পরীক্ষা বাড়িয়েছি। ১৫ অগাস্টের মধ্যে দিনে ২৫ হাজার নমুনা পরীক্ষা হবে।’

* ‘বড় বড় মুখে কথা বললেই হল, মনে করছে কোভিডের জন্য এনপিআর-এনআরসি ভুলে যাব। আমাকে এত দুর্বল-বোকা ভাববেন না।’

* ‘সিপিএম আমলে মার খেয়ে খেয়ে আমি এই জায়গায় এসেছি। বিজেপি বাংলার মানুষকে দিনেরর পর দিন অপমান করছে, লাঞ্ছনা করছে। আমি এটা বরদাস্ত করব না। ৩৪ বছরের সিপিএমকে আপনারা যদি সরাতে পারেন, তবে বিজেপির তো তুচ্ছ দলকে পারবেন না। ওরা টাকা দিয়ে ভোট লুঠ করে। এই বিষয় বেশিদিন চলতে পারে না।’

* ‘২০১৯-এ কয়েকটা আসন পেয়ে বিজেপি লম্ফঝম্প শুরু করেছে। এই অহংকারই ভাঙতে হবে। ভায় পাবেন না। রুখে দাঁড়ান। প্রলোভন আসবে। কিন্তু ওটা নেবেন না। সম্মানই বড় কথা।’

* ‘বিজেপিকে ভোট দিলে কি হয় তা ভাটপাড়, নৈহাটিতে গিয়ে দেখুন। ভালোভাবে থাকতে পারবেন না। অশান্তি লাগিয়ে রেখে দেবে।’

* ‘বিজেপিতে যারা ভুল করে চলে গিয়েছেন তারা তৃণমূলে ফিরে আসুন। সিপিএমে যারা রয়েছেন তারাও আসুন। কংগ্রেসে থেকে বিজেপি ভোট দেওয়ার থেকে তৃণমূলে আসুন। এই দলে শোষণ করার কেউ নেই। শাসনের লোক আছে। একমাত্র তৃণমূলই পারে উন্নয়নের বাংলা গড়তে।’

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Politics news download Indian Express Bengali App.

Web Title: 21 july mamata banerjee virtual meeting speech