scorecardresearch

বড় খবর

‘স্যাক্রিফাইস’ নয়, একুশে জুলাইয়ে লোক হবে না, দাবি বিরোধীদের

“আমরা ঘোষণা করে কর্মসূচি করছি। উনি কর্মসূচি বন্ধ রাখলে আমরাও কর্মসূচি বন্ধ রাখব।”

একুশে জুলাইয়ের শহিদ দিবস ‘স্যাক্রিফাইস’ করছে তৃণমূল কংগ্রেস। একথা বলে বিরোধীদের উদ্দেশে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় লকডাউনে রাজনৈতিক কর্মসূচি বন্ধ রাখার আহ্বান জানিয়েছেন। মমতার এই বক্তব্যে রে রে করে উঠেছে বিজেপি, সিপিএম ও কংগ্রেসের রাজ্য নেতৃত্ব। রাজ্যের বিরোধী নেতৃত্বের দাবি, ২১ জুলাই সমাবেশে লোক হবে না জেনেই এসব কথা বলছেন তিনি।

আরও পড়ুন- ভাইপোর মাধ্যমে লুঠ চলছে বাংলায়, তোপ কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর

লকডাউন চলাকালীন একদিকে যেমন ভার্চুয়াল জনসভা করছে অন্যদিকে প্রকাশ্য কর্মসূচিও চালিয়ে যাচ্ছে বিজেপি। কংগ্রেস-সিপিএমও নানা কর্মসূচি নিচ্ছে। বিরোধীদের দাবি, লকডাউনের নিয়ম মেনে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখেই তাঁরা কর্মসূচি পালন করছে। বিরোধীদের বক্তব্য, সাধারণ মানুষের স্বার্থেই এই কর্মসূচি। রেশনে দুর্নীতি, আমফানের ত্রাণ নয়ছয়, এসবের প্রতিবাদ জানাতেই পথে নামা। প্রকাশ্যে তেমন একটা কর্মসূচি নিচ্ছে না তৃণমূল কংগ্রেস। তবে ভার্চুয়াল মিটিং বা জয়েনিং কর্মসূচি হচ্ছে নানা জায়গায়। সামাজিক দূরত্ব বিধি মানা নিয়ে নানা ক্ষেত্রেই প্রশ্ন রয়েছে।

আরও পড়ুন- ত্রাণ দুর্নীতির অভিযোগে তোলপাড় দক্ষিণ ২৪ পরগনা, ক্ষোভের আগুনে ফুঁসছে ক্ষতিগ্রস্তরা

বিজেপির রাজ্য সধারাণ সম্পাদক সায়ন্তন বসু বলেন, “আসলে ২১ জুলাই লোকজনই হবে না। মূলত এই আশঙ্কায় কর্মসূচি করতে চাইছে না তৃণমূল নেত্রী। আর লকডাউন ভাঙার কথা বলছেন, প্রথমে উনিই লকডাউন ভেঙেছেন। হাসপাতালে, বাজারে ঘুরেছেন। গন্ডী কেটেছেন। তখন আশেপাশে লোক জমায়েত হয়নি?” সায়ন্তনের দাবি, “মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা না করে কর্মসূচি করছেন। আমরা ঘোষণা করে কর্মসূচি করছি। উনি কর্মসূচি বন্ধ রাখলে আমরাও কর্মসূচি বন্ধ রাখব। সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখেই কর্মসূচি করছে বিজেপি। তাতেও প্রতি পদক্ষেপে আমাদের বাধা দিচ্ছে পুলিশ।”

আরও পড়ুন- বিজেপি-তৃণমূলকে চ্যালেঞ্জ, ২০২১-এ জোট গড়তে একসঙ্গে পথে বাম-কংগ্রেস

প্রায় একই ভাষায় আক্রমণ শানিয়েছে রাজ্য সিপিএম। দলের পরিষদীয় নেতা সুজন চক্রবর্তী বলেন, “২১ জুলাই বা অন্য যে কোনও কর্মসূচিতে এক লক্ষ লোক জোগার করার হিম্মত বা ক্ষমতা তৃণমূলের আর হবে না। সেই কারণে কায়দার কথা বলছে। লকডাউইন এরাজ্যে প্রথম ভেঙেছেন মুখ্যমন্ত্রী নিজে। রাস্তায় দলে দলে লোক নিয়ে খড়ি কেটেছেন তিনি। লকডাউনে আমরা প্রতিটি কর্মসূচি সামাজিক দূরত্ব বিধি মেনেই করছি।” রাজ্য কংগ্রেস সভাপতি সোমেন মিত্র বলেন, “সরকারি নির্দেশিকা অনুযাায়ী সামাজিক দূরত্ব মেনে আমরা কর্মসূচি পালন করছি। জমায়েত এড়াতেই মুখ্য়মন্ত্রী হয়ত ২১ জুলাই সমাবেশ করবেন না।”

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Politics news download Indian Express Bengali App.

Web Title: 21 july martyrs day rally 2020 mamata banerjee tmc bjp cpm congress