scorecardresearch

বড় খবর

২১শে অন্য মুডে ধর্মতলা চত্বর, কী দিশা দেখাবেন দলনেত্রী?

এদিন কী দিশা দেবেন দলের নেতা-কর্মীদের? সেই আগ্রহে অপেক্ষা করছেন নেতৃত্ব।

এবার ২১শের ধর্মতলা। ছবি: শশী ঘোষ

ধর্মতলায় ভিক্টোরিয়া হাউসের সামনের রাস্তায় এবার আর ভিড়-ভাট্টা, মাইকের আওয়াজ, হই-হুল্লোর নেই। বৃষ্টি হবে কী হবে না তা নিয়ে গবেষণাও নেই। করোনা পরিস্থিতিতে সামগ্রিক ভাবে মহানগরের রাস্তায় গমগম ভাবটাই কমে গিয়েছে। এই প্রথম ২১ জুলাইয়ে ভার্চুয়াল জনসভায় বক্তব্য রাখবেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ২০২১ বিধানসভা নির্বাচনের আগে ভার্চুয়াল অনুভূতিতে সন্তুষ্ট থাকতে হবে তৃণমূল কংগ্রেসকে। শহিদ দিবসের আবেগ প্রত্যক্ষ করা সম্ভব হচ্ছে না। কিন্তু এদিন কী দিশা দেবেন দলের নেতা-কর্মীদের? সেই আগ্রহে অপেক্ষা করছেন নেতৃত্ব।

২১ জুলাইয়ের শহিদ দিবসের পার্লস এবার অধরাই থেকে যাচ্ছে তৃণমূল কংগ্রেসের কাছে। এরাজ্যে ৯ জুন অমিত শাহর ভার্চুয়াল জনসভা দিয়ে ২০২১ বিধানসভা অভিযান শুরু করেছে বিজেপি। তারপর পাঁচটি জোনে কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব জনসভা করেছেন। এবার ভার্চুয়াল জনসভার পথেই হাটতে হচ্ছে তৃণমূল কংগ্রেসকেও। এবার ভিড় নিয়ে দাবি পাল্টা দাবি থাকবে না। রাজনীতির কারবারিরা মনে করছে, শহিদ দিবসের জনসভায় নেতা-কর্মীদের আসার আগ্রহ জানার কোনও উপায় না থাকায় স্বভাবতই কিছুটা হলেও সমস্যায় তৃণমূল। ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনের ফলপ্রকাশের পর ২১ জুলাইয়ে ভিড়ে অন্য বছরের তুলনায় ঘাটতি ছিল। বিশেষত উত্তরবঙ্গ এবং জঙ্গলমহলের ভিড়ের ঢল অনেকটা কমেছিল। এবার সেই পরীক্ষা-নিরীক্ষা সম্ভব হল না।

আরও পড়ুন- LIVE: প্রথম ভার্চুয়াল ২১ জুলাই, অপেক্ষায় ঘাস-ফুল জনতা

এরাজ্য যে বিজেপি তৃণমূলের মূল প্রতিপক্ষ হয়ে উঠেছে তা নিয়ে কোনও সন্দেহ নেই। স্বভাবতই ২০২১ বিধানসভায় জয়ের জন্য কর্মসূচি ঘোষণা করবেন তৃণমূল নেত্রী। সামগ্রিক ভাবে সারা বছরের দলের কর্মসূচি ঘোষণা করা হয় এই দিনে। তাছাড়া নির্বাচনের আগে ব্রিগেড সমাবেশ করার কথা তো থাকেই। কী ভাবে বিজেপিকে মোকাবিলা করা যায় তার প্রকাশ্য রাজনৈতিক কৌশল এদিন ঘোষণা করবেন তৃণমূল নেত্রী।

এবার ধর্মতলা একেবারে অন্য মুডে। ধর্মতলা চত্বরের ব্যবসায়ীদের অনেকেই এখন আর ২১ জুলাইয়ের কথা মাথায় রাখতে চাইছে না। কারণ করোনা আতঙ্কেই তারা অস্থির। তবে কেউ আবার বলছেন দিদির বক্তব্যের জন্য অপেক্ষা করে থাকতাম। ধর্মতলার ফুটপাতে খাতা-বইয়ের দোকানী ঈশতিয়াক আহমেদ বলেন, “এই দিন দোকান-পাট বন্ধ থাকে। মুখ্য়মন্ত্রীর বক্তব্য শোনার জন্য আসি। তাঁর ভাষণে অনুপ্রেরণা পাই। আজ মোবাইলেই শুনতে হবে।” আর এক দোকানী সাহাদাত হোসেন বলেন, “২১ জুলাই দোকান খোলা রাখে যায় না। এবার তো এমনিতেই ব্যবসা বলে কিছু নেই। করোনাই এখন বিপদ।” জুতোর দোকানী শ্যাম লি বলেন, ‘ব্যবসার যা পরিস্থিতি তাতে ২১ জুলাই সমাবেশ হলেই কী আর না হলেই বা কী?’

এদিন কালীঘাট থেকে বক্তব্য রাখবেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজ্যের তৃণমূলের দলীয় কার্যলয়গুলিতে জায়ান্ট স্ক্রিনে বসানো হয়েছে। ধর্মতলায় শহিদ বেদিতে মাল্যদান করা হবে। কিন্তু বাম আমল হোক বা তৃণমূল জমানা গত ২৬ বছর ধরে ২১ জুলাই কোলাহল দেখেছে শহর কলকাতা। ভিড়ের রাশ গিয়ে পড়েছে মেট্রো, তারামন্ডল, ভিক্টোরিয়া, চিড়িয়াখানা সহ অন্যত্র। এবার ২০২০, ২১ জুলাই কলকাতা শুনশান।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Politics news download Indian Express Bengali App.

Web Title: 21 july tmc sahid divas mamata banerjee dharmatala