বড় খবর

বিজেপির ৬-৭ জন সাংসদ ভোটের আগেই তৃণমূলে, বিস্ফোরক মন্ত্রী

জোড়া-ফুল ছেড়ে পদ্ম শিবিরে যোগ দেওয়াটাই যেন ইদানিং বঙ্গ রাজনীতিতে রেওয়াজ হয়ে দাঁড়িয়েছে। কিন্তু ভোটের আগেই ব্যাতিক্রমী ঘটনার সাক্ষী থাকতে পারে রাজ্য।

জোড়া-ফুল ছেড়ে পদ্ম শিবিরে যোগ দেওয়াটাই যেন ইদানিং বঙ্গ রাজনীতিতে রেওয়াজ হয়ে দাঁড়িয়েছে। কিন্তু ভোটের আগেই ব্যাতিক্রমী ঘটনার সাক্ষী থাকতে পারে রাজ্য। এমনটাই দাবি করলেন রাজ্যের মন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক। ভোটের আগেই ৬-৭ জন বিজেপি সাংসদ তৃণমূলে যোগ দেবেন বলে মঙ্গলবার ঘোষণা করেন বাংলার খাদ্যমন্ত্রী।

কী দাবি জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের?

স্বামী বিবেকানন্দের ১৫৮তম জন্মজয়ন্তীতে হাবরায় শোভাযাত্রার পুরভাগে ছিলেন মন্ত্রী। সেখানেই বিস্ফোরক মন্তব্যটি করেন জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক। তিনি বলেন, ‘একটি লোকও ভারতীয় জনতা পার্টিতে থাকবে না। আমি বলছি, ৬ থেকে ৭ জন সাংসদ খুব শিগগিরই তৃণমূলে যোগ দেবে। মে মাসের প্রথম সপ্তাহের মধ্যে এরা তৃণমূলে চলে আসবে। এবং আমাদের দল থেকে যে কজন বিধায়ক বিজেপিতে গিয়েছিল, সে ক’জনও লাইনে দাঁড়িয়ে রয়েছে। তাঁরাও ইতিমধ্যে বলতে শুরু করেছেন, যে আমাদের একটু জায়গা করে দিন। ভুল হয়েছে, আমরা আবার ফিরে আসতে চাই।’

বিবেকানন্দের জন্মজয়ন্তীতে কলকাতায় সিমলা স্ট্রিটে গিয়ে স্বামীজির মূর্তিতে মাল্যদান করেছেন বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী। এ প্রসঙ্গে খাদ্যমন্ত্রী বলেন, ‘ ওঁর ভাবনা-চিন্তা নিয়ে আমার ধোঁয়াশা রয়েছে। আগামী চার-পাঁচ মাস পর শুভেন্দু আদৌ বিজেপিতে থাকবেন? হয়তো উনি নিজের আখের গুছিয়ে বিজেপি ছেড়ে দেবেন।’

স্রোতের বিপরীতে হেঁটে মন্ত্রীর দলবদলের এহেন তত্ত্ব রাজ্য রাজনীতিতে বেশ গুরুতত্বপূর্ণ ইঙ্গিত বলেই মনে করছে রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের একাংশ।

শোভন থেকে শুভেন্দু- তৃণমূল থেকে বিজেপিতে যোগদানকারী নেতারা রাজ্যের শাসক শিবিরের দুর্নীতি, তোলাবাজি নিয়ে সরব। পাল্টা এ দিন জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক বলেন, ‘যাঁরা তৃণমূলের দুর্নীতি নিয়ে কথা বলছে, তাঁরা সবাই সারদার দুর্নীতিতে যুক্ত। এই সব নেতাদের আয়কর বিভাগ, ইডি ডাকছে। কারণ এরা অত্যাধিক টাকা উপার্জন করে ফেলেছেন, যা উপার্জন করা বা হজম করার ক্ষমতা ওদের নেই। সেই জন্য তাঁদের ডাক দিচ্ছে। আর ওই ডাকের ভয়েই তাঁরা বিজেপিতে যোগদান করছে। এঁরাই আগামীর দিনে মে মাসের শেষে তৃণমূলে ফেরার জন্য লাইন লাগাবে কিন্তু লাইন দিলেও আর ফেরার রাস্তা থাকবে না। তাঁদের দলে নেওয়া হবে কিনা ভেবে দেখা হবে।’

এবার ভোটে রাজ্যের প্রায় ৪৫টি আসনে মতুয়া ভোট অন্যতম নির্ণায়ক শক্তি। গতকালই নদিয়ার সভায় মুখ্যমন্ত্রী বলেছেন, ‘রাজ্যে এনপিআর-এনআরসি হতে দেব না। যাঁরা এদেশে বসবাস করেন তাঁরা সকলেই নাগরিক।’ এ দিন খাদ্যমন্ত্রী বলেন, ‘মতুয়ারা সবাই ভোট দিয়েছেন সুতরাং তাঁদের নতুন করে নাগরিকত্ব নেওয়ার কোনও প্রশ্নই নেই।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Politics news here. You can also read all the Politics news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: 6 7 bjp mps likely join tmc claims by jyotipriyo mallik

Next Story
বিরোধিতা ভুলে লাইনে দাঁড়িয়ে স্বাস্থ্যসাথী কার্ড করাল দিলীপ ঘোষের পরিবার
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com