বড় খবর

‘দুহাজার উনিশ, বিজেপি ফিনিশ’

“আমরা শুনেছি রথে দেবদেবীরা থাকেন। এ কেমন রথ, যেখানে বিলাসবহুল বাসে আমোদপ্রমোদ, খাওয়াদাওয়া, ফুর্তি, মলমূত্র ত্যাগ, সব কিছুরই ব্যবস্থা রয়েছে?”

বিজেপি-র রথের সঙ্গে পুরাকালের রথের তুলনা করে কটাক্ষ করলেন সাংসদ তথা যুব তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। পশ্চিম মেদিনীপুরের গোয়ালতোড়ে আয়োজিত তৃণমূল কংগ্রেসের এক সভায় বিজেপির রথের সঙ্গে রামচন্দ্র-শ্রীকৃষ্ণের রথের তুলনা করে অভিষেক বলেন, “আমরা জগন্নাথের রথ শুনেছি, শ্রীকৃষ্ণের রথ শুনেছি, শ্রীরামচন্দ্রের রথ শুনেছি, সেই রথে দেবদেবীরা থাকতেন। আর এ কেমন রথ, যেখানে বিলাসবহুল বাসে আমোদপ্রমোদ, খাওয়াদাওয়া, ফুর্তি, মলমূত্র ত্যাগ, সব কিছুরই ব্যবস্থা রয়েছে?”

সোমবার গোয়ালতোড়ে তৃণমূল ও যুব তৃণমূল কংগ্রেসের উদ্যোগে ‘ব্রিগেড চলোর’ প্রস্তুতি সভা হয়। সভায় প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অভিষেক। তিনি বলেন, “এই রথে চড়ে বিজেপি বাংলাকে অশান্ত করতে চাইছে, ভারতকে টুকরো টুকরো করতে চাইছে, আমাদের এ বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে।” প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে কটাক্ষ করে অভিষেক বলেন, “উনি চা বিক্রির কথা বলে প্রধানমন্ত্রী হয়েছেন, আর তারপর দেশবাসীর মোহভঙ্গ ঘটিয়েছেন।”

আরও পড়ুন: এবার রথযাত্রা নিয়ে জোড়়া মামলা হাইকোর্টে, শুনানি মঙ্গলবার

একানেই থেমে থাকেননি অভিষেক। প্রতিশ্রুতি পালন নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের তুলনা করেছেন তিনি। তাঁর বক্তব্য, “প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আমাদের মুখ্যমন্ত্রীর তথ্যগত তুলনা হোক। আমাদের নেত্রী ক্ষমতায় আসার আগে যেসব প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন তার সবকটি অক্ষরে অক্ষরে পালন করেছেন, আর প্রধানমন্ত্রী প্রতিশ্রুতি দিয়ে ক্ষমতায় এসে দেশের মানুষকে হতাশ করেছেন।”

মুখ্যমন্ত্রীর বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজের খতিয়ান তুলে ধরে অভিষেক উপস্থিত কর্মীদের উদ্দেশে বলেন, “উন্নয়নের বার্তা নিয়ে মানুষের কাছে যান, নিজেদের বুথে কাজ করুন, বুথ আগলে রাখুন।” কর্মীদের সতর্ক করে দিয়ে তিনি বলেন, “মন্ডা মিঠাইয়ের জন্য কেউ দল করতে এলে তার জন্য দরজা বন্ধ, মানুষের হয়ে কাজ করতে পারলে তবেই তৃণমূলে থাকা সম্ভব।”

সভায় ভিড় দেখে খুশি অভিষেক

সোমবার গোয়ালতোড় কলেজ মাঠে তৃণমূলের ব্রিগেড সমাবেশের প্রস্তুতি সভায় কর্মী-সমর্থকদের উপস্থিতি দেখে যথেষ্ট খুশি হয়েছেন অভিষেক। সে কথা প্রকাশও করেছেন ভরা মাঠে। বলেছেন, “নেত্রীকে গিয়ে বলব, এক পশ্চিম মেদিনীপুরই ব্রিগেড ময়দান ভরিয়ে দেবে।” অভিষেক ছাড়াও এদিনের সভায় বক্তব্য রাখেন তৃণমূল কংগ্রেসের রাজ্যসভার সাংসদ মানস ভুঁইয়া, মন্ত্রী সৌমেন মহাপাত্র প্রমুখ। সভায় গোয়ালতোড়, গড়বেতা, মেদিনীপুর প্রভৃতি এলাকার বেশ কয়েকজন বিজেপি, সিপিএম ছেড়ে তৃণমূলে যোগদান করেন। তৃণমূলে যোগদানকারীদের হাতে দলীয় পতাকা তুলে দেন অভিষেক।

এদিনের ভাষণে ১৯ জানুয়ারির ব্রিগেড সমাবেশের তাৎপর্য ব্যাখ্যা করে অভিষেক বলেন, “এবারের ব্রিগেড সমাবেশে দেশের সমস্ত অ-বিজেপি দলের নেতৃত্বের উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে। সকলকে সঙ্গে নিয়েই নেত্রী দেশ থেকে বিজেপিকে উৎখাত করার ডাক দিয়েছেন। তাই তো আমাদের স্লোগান, ‘দুহাজার উনিশ, বিজেপি ফিনিশ’।”

Get the latest Bengali news and Politics news here. You can also read all the Politics news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Abhishek banerjee bjp rathyatra brigade meeting

Next Story
এবার রথযাত্রা নিয়ে জোড়়া মামলা হাইকোর্টে, শুনানি মঙ্গলবারKolkata High court Express Photo Shashi Ghosh
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com