বড় খবর

‘ত্রিপুরায় মা-মাটি-মানুষের খেলা শুরু’, বিজেপিকে হুঁশিয়ারি অভিষেকের

“যত তাতাবেন ততই জেদ বাড়বে। তৃণমূল শক্তিশালী হবে।”

delhi high court on abhishek banerjees plea against ed-summon over coal scam case
তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারাণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

মিশন ২০২৩। বাংলা জয়ের হ্যাটট্রিকের পর এবার তৃণমূলের নজরে ত্রিপুরা। তারই সলতে পাকাতে এদিন ত্রিপুরায় গিয়েছেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। প্রথমে ত্রিপুরেশ্বরী মন্দিরে পুজো দেন তিনি। সেখানে পৌঁছানোর পথে প্রবল বাধার সম্মুখীন হতে হয় অভিষেককে। তাঁর গাড়িতে লাঠির গা পড়ে। ‘গো ব্যাক’ স্লোগান দেওয়া হয়। এই ঘটনায় বিজেপিকে নিশানা করে বাংলার শাসক দল। অভিষেকও বিজেপি শাসিত বিপ্লব দেব শাসনে ত্রিপুরার গণতান্ত্র নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন।

সাংবাদিক বৈঠকে কী বললেন অভিষেক?

  • “আমার গাড়িতে লাঠাি, বাঁশ দিয়ে মারা হয়েছে। আমার নিরাপত্তারক্ষীরা আহত। আসার পতে অল্প ব্যবধানেই আমার কনভয় বারে বারে কীভাবে আটকানো যায়? এ সত্ত্বেও আমি মা ত্রিপুরেশ্বীর দর্শন করেছি।”
  • “যত তাতাবেন ততই জেদ বাড়বে। তৃণমূল শক্তিশালী হবে। যত ধমকাবেন ততই ত্রিপুরায় গণতান্ত্রিক সরকার গঠনের চেষ্টা বাড়বে।”
  • “ত্রিপুরায় গণতন্ত্র বলে কিছু আছে? দয়া করে বাংলায় এসে দেখে যান গণতন্ত্র আছে কি নেই। স্বৈরাচারী সরকারের বিরুদ্ধে আমাদের লড়াই চলবে।
  • “বিজেপির দিল্লির নেতারা ত্রিপুরায় যতবার আসবে তার দ্বিগুন আসবো আমি। দরকারে প্রতি সপ্তাহে আসবো। দু’সপ্তাহ পর আবার এখানে আসব। চ্যালেঞ্জ দিচ্ছি। পারলে আটকান।”
  • “ত্রিপুরায় মা, বোনে সহ মানুষের যে আর্শীবাদ নজরে পড়েছে তাতে নিশ্চিত ২০২৩-এ বদল হবেই। ওদের বিদায় ঘন্টা বেজে গিয়েছে।”
  • “ক্ষমতায় এসেই ত্রিপুরায় মার্কসের মূর্তি ভেঙেছে বিজেপি। বাংলায় এর উদাহরণ ২০১১-র পর দেখান তো একটাও। পারবেন না। এটাই গণতন্ত্রের পার্থক্য।”
  • “ত্রিপুরায় বিজেপির খেলা শেষ। আজ থেকে মা-ংমাটি-মানুষের খেলা শুরু। আজ থেকে এখানে শাসকের অত্যাচারের শেষের শুরু হল।”
  • “তৃণমূল ক্ষমতায় এলেই ত্রিপুরাতেও বাংলার মতো দুয়ারে সরকার, দুয়ারে রেশন, লক্ষ্মীর ভাণ্ডার হবে।”
  • “বাঙালির জন্য কী করেছে ডবল ইঞ্জিন সরকার? বাংলায় তো সিঙ্গল ইঞ্জিন মমতা সরকার। রাজ্যকে প্রতি পদে বঞ্চিক করছে কেন্দ্র। এখানেতো ডবল ইঞ্জিন। তাহলে উন্নয় হচ্ছে না কেন? কেন চাকরি নেই? আসলে ওরা শুধু ভাঁওতা দেয়।”
  • ”আচ্ছে দিনের সরকার মানে মোদী-শাহ-বিপ্লব দেবের সরকার।”
  • ”আমি ঘর ভাঙাবো না। না হলে এখনই সবাই মিলে নামলে সরকার পরে যাবে। কিন্তু আমরা সেটা করব না। ত্রিপুরা বিধানসভার অনেকেই আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন।”
  • “ত্রিপুরায় গণতন্ত্রের অবস্থা আজ গোটা দেশ দেখেছে। এর বিরুদ্ধে তৃণমূল লড়বে। এখানকার মানুষকেও গর্জে উঠতে হবে।”
  • “সিপিএমের সঙ্গে জোটের কোনও প্রশ্নই নেই। যে দল ৩৪ বছর অত্যাচার করেছে তাদের সঙ্গে জোট হবে কেন? কিন্তু বামপমন্থী যাঁরা বিজেপির বিরুদ্ধে লড়াইয়ে আগ্রহী তাঁরা বিকল্প হিসাবে তৃণমূলকে ভেবে দেখতে পারেন।”
  • “লক্ষ্য ২০২৩। তৃণমূলের লক্ষ্য এবার ত্রিপুরা।”

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Politics news here. You can also read all the Politics news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Abhishek banerjee press meet at tripura

Next Story
‘এমন আচরণ বাংলায় বিরোধীদের সঙ্গে রোজই হয়’, অভিষেককে পাল্টা বিজেপিDilip Ghosh criticses Avisekh Banerjee in coal scam case
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com