scorecardresearch

বড় খবর

বিজেপির ‘পাশে দাঁড়ালেন’ অধীর চৌধুরী, পদ্ম অফিস ভাঙচুর নিয়ে তুলকালাম মুর্শিদাবাদ

কংগ্রেস সাংসদ অধীর চৌধুরীর মন্তব্যে জোর চর্চা বঙ্গ রাজনীতিতে।

বিজেপির ‘পাশে দাঁড়ালেন’ অধীর চৌধুরী, পদ্ম অফিস ভাঙচুর নিয়ে তুলকালাম মুর্শিদাবাদ
বিজেপির ‘পাশে থেকে’ তৃণমূলকে তোপ অধীরের।

বিজেপি সম্পর্কে অধীর চৌধুরীর এ যেন সুর বদল! বিজেপির ‘পাশে থেকে’ তৃণমূলকে তুলোধনা করলেন বহরমপুরের কংগ্রেস সাংসদ। সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের বিরোধিতায় বিজেপিকে রোজই নিশানা করতে দেখা যাচ্ছে লোকসভায় কংগ্রেসের এই নেতাকে। এই আবহে কার্যত বিজেপির হয়েই সওয়াল করলেন অধীর। বহরমপুরে বিজেপির কার্যালয়ে ভাঙচুরের ঘটনার নিন্দা জানিয়ে তৃণমূলকে বিঁধলেন অধীর। প্রাক্তন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতির এহেন ভূমিকায় জোর চর্চা বঙ্গ রাজনীতিতে।

ঠিক কী বলেছেন অধীর চৌধুরী?

মুর্শিদাবাদ জেলা বিজেপির বহরমপুরের ৩৫ নং রাধিকা মোহন সেন রোডের কার্যালয়ে ব্যাপক ভাঙচুর করে লুঠপাট করার অভিযোগ উঠেছে তৃণমূলের বিরুদ্ধে। এ ঘটনা প্রসঙ্গে কংগ্রেস সাংসদ বলেন, ‘‘কোনও রাজনৈতিক দলেরই অফিস ভাঙার অধিকার কারও নেই। বিজেপির সঙ্গে মতাদর্শগত রাজনৈতিক বিরোধ আমাদের চলছে, চলবে। এই বিরোধ শতাব্দী প্রাচীন। তবে তার মানে এটা নয় যে আমাকে বিজেপির সদর দফতর ভাঙতে হবে! এই ঘটনাটা গুন্ডামি, এক ধরনের মস্তানি। এ ধরনের কাজ শাসকদলই করতে পারে। শাসকদলের কাজ বলে অনুমান করছি। শাসকদল ছাড়া এ কাজ করা সম্ভব নয়। এ ঘটনার নিন্দা জানাচ্ছি’’।

ভিডিও- পরাগ মজুমদার।

আরও পড়ুন: ‘আমরা হিন্দুস্তানি, গালি দিয়ে দেশ খালি করবেন?’, শাহকে নিশানা মমতার

বহরমপুরে দলীয় কার্যালয়ে ভাঙচুরের ঘটনায় সোচ্চার হয়েছে বিজেপি। দলের সাধারণ সম্পাদক তপন চন্দ্র বলেন, ‘‘শাসক দল তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরাই পরিস্থিতি উত্তপ্ত করতে আমাদের জেলার প্রধান দলীয় কার্যালয় ভাঙচুর ও লুটপাট চালিয়েছে। আমরা এর তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি। দুষ্কৃতীদের অবিলম্বে গ্রেফতার করতে হবে, তা না হলে আমরা বিক্ষোভে শামিল হব’’। অন্যদিকে, গেরুয়া শিবিরের অন্তর্দ্বন্দ্বের জেরেই এ ঘটনা বলে পাল্টা তোপ দেগেছে মুর্শিদাবাদ জেলা তৃণমূল নেতৃত্ব।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Politics news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Adhir chowdhury murshidabad bjp party office congress tmc