বড় খবর

ফের ভাঙল এনডিএ, বিজেপি নেতৃত্বাধীন জোট ছাড়ল পুরনো শরিক অকালি দল

শিবসেনা ও তেলুগু দেশমের পর এবার এনডিএ ছাড়ল শিরোমণি অকালি দলের মতো বিজেপির আরও এক গুরুত্বপূর্ণ ও বিশ্বস্ত শরিক।

ফের এনডিএ-তে ফাটল। কৃষি বিলের চরম প্রতিবাদ করে এবার জোট ছাড়ল শিরোমণি অকালি দল। শনিবারই বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ ছাড়ার কথা ঘোষণা করেছেন অকালি নেতা নেতা সুখবীর সিং বাদল। গত সপ্তাহেই কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা থেকে পদত্যাগ করেছিলেন এনডিএ-এর সবচেয়ে পুরনো শরিক অকালি দলের একমাত্র প্রতিনিধি হরসিমরত কৌর বাদল।

শনিবার শিরোমণি অকালি দলের কোর কমিটির বৈঠকে এনডিএ ছাড়ার সিদ্ধান্ত চীড়ান্ত হয়। দলের তরফে বিবৃতিতে জানানো হয় যে, ‘কৃষি বিলে কৃষকদের ফসলের ন্যূনতম সহায়ক মূল্য পাওয়ার বিষয়টি এখনও অনিশ্চিৎ। বাংবার এ বিষয়ে সংশোধের কথা বলা হলেও বিজেপি এখনও তা করেনি। তারা অনড়। এতে কৃষিপণ্যের দামের নিয়ন্ত্রণ পুঁজিপতিদের হাতে চলে যাবে। ফলে ইচ্ছামতো দামে কৃষকদের থেকে ফসল কিনবে তারা। তাছাড়া পাঞ্জাব ও শিখদের নিয়ে নানান ইস্যুতে অকালি দলের সঙ্গে এনডিএ-র মতবিরোধ ছিল। একাধিকবার বলা সত্ত্বেও কেন্দ্রীয় সরকার পাঞ্জাবি ভাষাকে জম্মু ও কাশ্মীরের সরকারি ভাষার মর্যাদা দিতে রাজি হয়নি। তাই জোট বেরিয়ে আসতে হচ্ছে।’

দলনেতা তথা পাঞ্জাবের ফিরোজপুরের সাংসদ সুখবীর সিং বাদল বলেছেন, ‘অকালি দল এনডিএ-এর প্রতিষ্ঠাতা ও সবচেয়ে পুরনো শরিক। মূলত পাঞ্জাব ও পাঞ্জাবিদের উজ্জ্বল অধ্যায়ের বিকাশ ও সম্মান বৃদ্ধি এবং রাজ্যে শান্তি-সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি, দেশে শিখদের স্বার্থ বজায় রাখাতেই এনডিতে যোগ দিয়েছিল অকালি দল।’

লোকসভার পর গত রবিবার রাজ্যসভায় পাশ হয়েছে কৃষি বিল। প্রতিবাদ করেছে বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলো। গত শুক্রবার থেকে এই বিলের বিরোধীতায় দেশ জুড়ে বিক্ষোভ চলছে।হরিয়ানা, পাঞ্জাবে বিলের প্রতিবাদে রাস্তায় নেমে পড়েন কৃষকরা। পাঞ্জাব, হরিয়ানা, কৃষি প্রধান রাজস্থানেরও চলে বিক্ষোভ। বিহার, উত্তরপ্রদেশ, মধ্যপ্রদেশের মতো বিজেপি বা তাদের সহযোগী দল শাসিত রাজ্যেও কৃষক বিক্ষোভ হয়।

উল্লেখ্য, শিবসেনা ও তেলুগু দেশমের পর এবার এনডিএ ছাড়ল শিরোমণি অকালি দলের মতো বিজেপির আরও এক গুরুত্বপূর্ণ ও বিশ্বস্ত শরিক।

অকালি দল এনডিএ ছাড়ার পর পাঞ্জাবের বিজেপি সভাপতি অশ্বিনী শর্মা বলেছেন, ‘দলের কর্মীরা অনেকদিনই দাবি করছিল অকালির সঙ্গে সম্পর্ক ত্যাগের। ওরাই সেটা করল।’

পাঞ্জাবের মমুখ্যমন্ত্রী তথা কংগ্রেস নেতা ক্যাপটেন অমরিন্দর সিং পুরো বিষয়টিকে অকালির ‘রাজনৈতিক বাধ্যবাধকতা’ বলে দাবি করেছেন। তাঁর কথায়, ‘কৃষি বিল সহ নানা ইস্যুতে বিজেপির প্রতি মানুষ বিতশ্রদ্ধ। কৃষকরা রাস্তায় নেমে প্রতিবাদে মুখর। তাই সুখবীর সিং বাদলের কাছে এনডিএ থেকে বেরিয়ে আসা ছাড়া কোনও বিকল্প রাস্তা ছিল না। রাজনৈতিক বাধ্যবাধকতার দরুন এই পদক্ষেপ করেছে অকালি দল।’

Read in English

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Web Title: Akalis quits bjp led nda in protest firm bill

Next Story
ডিজিপিকে ‘অপমান’! বীরেন্দ্রর পাশে দাঁড়িয়ে ধনকড়কে ৯ পাতার চিঠি ক্ষুব্ধ মমতার
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com