scorecardresearch

বড় খবর

সিবিআই-য়ের প্রশংসা অনুব্রতর মুখে, তবে এড়ানো গেল না হাজিরার ডাক

দলনেত্রী সিবিআই-কে ব্যবহার করে বিজেপির বিরুদ্ধে প্রতিহিংসার অভিযোগে সরব। কিন্তু তারই প্রিয় জেলা সভাপতির গলায় উল্টো সুর।

সিবিআই-য়ের প্রশংসা অনুব্রতর মুখে, তবে এড়ানো গেল না হাজিরার ডাক
আরও অস্বস্তি বাড়ল অনুব্রত মণ্ডলের।

গোরু ও কয়লাপাচার কাণ্ডে বীরভূমের জেলা তৃণমূল সভাপতিকে ফের তলব করল কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা। আগামী ৬ এপ্রিল তাঁকে নিজাম প্যালেসে হাজিরা দিতে বলা হয়েছে। এই ঘটনার খানিক্ষণ বাদেই সিবিআই-য়ের প্রশংসা শোনা গেল কেষ্টর মুখে। বগটুইখাম্ডের তদন্ত করছে সিবিআই। কেমন হচ্ছে সেই তদন্ত? প্রশ্নের জবাবে অনুব্রত মণ্ডল বললেন, ‘এখনও বলব, সিবিআই যা করছে ভাল করছে। প্রশাসন সহযোগিতা করছে।’

বগটুইয়ে সিবিআই তদন্তের প্রতিবাদ করেছেন খোদ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী। বিজেপির বিরুদ্ধে ইডি, সিবিআইয়ের মতো কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থাগুলিকে ব্যবহার করে রাজনৈতিক প্রতিপক্ষদের নিশানা করার অভিযোগ তুলেছিলেন মমতা। বগটুইটে মুখ্যমন্ত্রীর পাশে দাঁড়িয়ে সুজপুরের মতো মামলা দেওয়ার দাবি জানিয়েছিলেন। কিন্তু ‘দিদি’র প্রিয় অনুব্রতর মুখেই এবার কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা দলের স্তুতি! তাহলে কী সিবিআইয়ের তদন্তে খুশি অনুব্রত? দোর্দদণ্ডপ্রতাপ তৃণমূল নেতার দাবি, ‘হান্ড্রেড পারসেন্ট।’

হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ অনুব্রত মণ্ডলের রক্ষাকবচ খারিজ করেছে। তারপরই ফের সক্রিয় সিবিআই। গোরু ও কয়লাপাচার কাণ্ডের তদন্তে আগামী ৬ এপ্রিল পঞ্চমবারের জন্য অনুব্রতকে। এর আগে চারবার হাজিরা এড়িয়েছেন তিনি। এবার দেখার তিনি কী করেন। ওই দিন তাঁর বয়ান রেকর্ড করা হতে পারে বলে সিবিআই সূত্রে খবর।

উল্লেখ্য, সূত্রের খবর, গরুপাচার কাণ্ডে মূল চক্রী এনামুল হক এর আগে সিবিআই জেরায় নাকি দাবি করেছিল যে, সে অনুব্রত মণ্ডলকে চিনত। এই দোর্দদণ্ডপ্রতাপ তৃণমূল নেতার সঙ্গে এনামূলের কোনও আর্থিক লেনদেন ছিল কি না, জেরায় তা জানার চেষ্টা করতে পারেন কেন্দ্রীয় গোয়েন্দারা।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Politics news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Anubrat mondal praised cbi and again summoned by central investigation team