scorecardresearch

বড় খবর

কেষ্ট-মদনদের অসম্পূর্ণ চিকিৎসা, SSKM-র ডাক্তারদের বিরুদ্ধে বড় অভিযোগ! টুইট অনুপমের

উডবার্ন ওয়ার্ডে টানা ভর্তি থাকলেও এখনও সম্পূর্ণ সুস্থ নন অনুব্রত মণ্ডল। ফলে আজও সিবিআই হাজিরা এড়িয়েছেন। অতীতে একই নজির রেখেছেন মদন মিত্রও।

কেষ্ট-মদনদের অসম্পূর্ণ চিকিৎসা, SSKM-র ডাক্তারদের বিরুদ্ধে বড় অভিযোগ! টুইট অনুপমের
অনুব্রত মণ্ডল, অনুপম হাজরা, মদন মিত্র।

এসএসকেএমের উডবার্ন ওয়ার্ডে অনুব্রত মণ্ডল, মদন মিত্রদের কী অসম্পূর্ণ চিকিৎসা হয়েছে? কোন কোন ডাক্তার শাসক দলের এই নেতাদের চিকিৎসা করেছেন? আরটিআইয়ের মাধ্যমে তা জানতে চাইলেন বিজেপির কেন্দ্রীয় সম্পাদক অনুপম হাজরা।

উডবার্ন ওয়ার্ডে টানা ভর্তি থাকলেও এখনও সম্পূর্ণ সুস্থ নন অনুব্রত মণ্ডল। ফলে মঙ্গলবার ভোট পরবর্তী হিংসা মামলায় সিবিআই তলব পেয়েও হাজিরা দিতে পারেননি তিনি। তার আগে, বিধায়ক মদন মিত্রও কেন্দ্রীয় সংস্থার তলব পেয়ে অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন। ভর্তি হয়েছিলেন রাজ্যের অন্যতম সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে। সিবিআই-ইডি জুজু-র জেরে শাসক দলের নেতাদের উডবার্নে ভর্তির বিষয়টি নিয়ে তুমুল চর্চা হয়েছে। এবার এইসব নেতাদের চিকিৎসা করা এসএসকেএমের চিকিৎসকদের উদ্দেশ্য নিয়ে প্রশ্ন তুলে দিলেন বিজেপির কেন্দ্রীয় সম্পাদক অনুপম হাজরা।

এ দিন টুইটে অনুপম হাজরা লিখেছেন, ‘বীরভূমের অসুস্থ মানুষটাকে বার বার অসম্পূর্ণ চিকিৎসা করে ছেড়ে দেওয়া হচ্ছে, যার ফলে উনি CBI/ED’র হাজিরা দেওয়ার সময় বারবার অসুস্থ হয়ে পড়ছেন- তাই RTI-র মাদ্যমে, SSKM এবং Woodburn’র কোন কোন ডাক্তাররা এনার মতো বা মদনবাবু সহ তৃণমূলের অন্যান্য অসুস্থ নেতাদের বারবার অসম্পূর্ণ চিকিৎসা করে মেরে ফেলার চক্রান্ত করছেন – তা জানতে চাওয়া হয়েছে!!!’

অনুব্রত মণ্ডল সংক্রান্ত নানা ইস্যুতে সজাগ বিজেপির কেন্দ্রীয় সম্পাদক অনুপম হাজরা। এবার মুখ খুললেন বীরভূম জেলা সভাপতির ক্রমাগত শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে।

উল্লেখ্য, অনুব্রত মণ্ডল ও অনুপম হাজরার সম্পর্ক ছিল কাকা-ভাইপোর। তৃণমূলের সাংসদ থাকাকালীন বীরভূমের ‘কেষ্ট’কে ‘কাকু’ বলে সম্বধন করতেন বোলপুরের প্রাক্তন সাংসদ। ২০১৯ সালে অনুপমের দলবদলের পরও ‘কাকু’ অনুব্রতর সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক অটুট ছিল। ২০১৯ সালের ২৯ এপ্রিল লোকসভা ভোট চলাকালীন বোলপুরে বীরভূমের জেলা তৃণমূল সভাপতির বাড়িতে হাজির হয়েছিলেন অনুপম হাজরা। সেখানেই মধ্যাহ্নভোজ সেরেছিলেন অনুপম। সেই সাক্ষাৎ অরাজনৈতিক বলে দাবি করেছিলেন উভয়ই। যা নিয়ে রাজনৈতিক নানা জল্পনা ছড়িয়েছিল সেই সময়।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Politics news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Anupam hazra files rti to know name of doctors who treated anubrata mondal and madan mitra