বড় খবর


হাত মেলালেন পাইলট, গেহলট চান আস্থাভোট

রণে ভঙ্গ দিয়ে বৃহস্পতিবার জয়পুরে গেহলটের বাড়িতে কংগ্রেস পরিষদীয় দলের বৈঠকে উপস্থিত হন পাইলট এবং তাঁর অনুগামীরা। করমর্দন-হাসিমুখে একসঙ্গে ছবিও তোলেন তাঁরা।

মরুরাজ্যে রাজনৈতিক সমীকরণ যেন সব হিসেবকেই ওলটপালট করে দিচ্ছে। একদিকে যখন বৃহস্পতিবার অশোক গেহলটের সরকারের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব আনার কথা জানাল বিজেপি, অন্যদিকে তখন সব জল্পনা উড়িয়ে করমর্দন সারলেন রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলট এবং শচিন পাইলট।

শুক্রবার থেকেই বিধানসভার অধিবেশন শুরু। সম্প্রতি দলের অন্দরে ‘বিদ্রোহী’ কার্যকলাপের জেরে পাইলট খুইয়েছেন উপ-মুখ্যমন্ত্রীর পদ। তবে আপাতত রণে ভঙ্গ দিয়ে বৃহস্পতিবার জয়পুরে গেহলটের বাড়িতে কংগ্রেস পরিষদীয় দলের বৈঠকে উপস্থিত হন পাইলট এবং তাঁর অনুগামীরা। ক্যামেরার সামনে করমর্দন সেরে হাসিমুখে একসঙ্গে ছবিও তোলেন তাঁরা।

পাইলটদের প্রবেশের আগেই অশোক গেহলট জানিয়ে দেন, “দেশ, রাজ্য এবং মানুষের স্বার্থে ক্ষমা করে দেওয়া এবং যা হয়েছে তা ভুলে যাওয়া প্রয়োজন। এখন সামনে এগোনোর সময়। বৈঠক থেকেই মরু রাজ্যপ্রধান জানান যে শুক্রবার তিনি নিজেই আস্থাভোটের ডাক দেবেন এবং দেখিয়ে দেবেন ‘কংগ্রেসের ক্ষমতা’।

উপস্থিত বিধায়কের উদ্দেশে তিনি এও বলেন, “আমরা আমাদের বেশ কয়েকজন বন্ধুদের (বিদ্রোহী বিধায়ক) ছাড়াই আস্থা ভোটে যাব সরকারকে বাঁচাতে। আমরা মন থেকে খুশি নই। নিজেদের লোক সবসময় নিজেদের থাকে। আর পর সবসময়ই পর হয়।” এদিনের বৈঠকে সকলেই সমর্থন জানান অশোক গেহলটকে। বিধায়কদের আশ্বস্ত করে গেহলট বলেন, “ধরে নিন একটা বাজে স্বপন দেখছিলাম। যেটা এখন শেষ হয়ে গিয়েছে। আমরা আবার এক পরিবার হয়েছি। একসঙ্গে কাজ করব।”

যদিও বিজেপির তরফে গুলাব চাঁদ কাটারিয়া বলেন, কংগ্রেসে রাজনৈতিক সংকট মিটলেও, দলের মধ্যে সবকিছু ভাল নেই, দলের এক পক্ষ পূর্ব দিকে তো আরেক পক্ষ পশ্চিম দিকে।

Read the full story in English

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Web Title: Ashok gehlot for trust vote today sachin pilot back in frame

Next Story
তৃণমূলের মুসলিম ভোট এখন আমার দিকে, বললেন আব্বাস সিদ্দিকিabbas siddiqui cover
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com