Ashok Gehlot says that he would not contest elections: কংগ্রেস সভাপতি নির্বাচনে লড়বেন না, বৈঠকে সনিয়াকে জানিয়ে দিলেন গেহলট | Indian Express Bangla

কংগ্রেস সভাপতি নির্বাচনে লড়বেন না, বৈঠকে সনিয়াকে জানিয়ে দিলেন গেহলট

তিনি রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী থাকবেন কি না, তা নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার ভার দলনেত্রী সনিয়া গান্ধীর হাতেই তুলে দিয়েছেন গেহলট।

কংগ্রেস সভাপতি নির্বাচনে লড়বেন না, বৈঠকে সনিয়াকে জানিয়ে দিলেন গেহলট
অশোক গেহলট

কংগ্রেস সভাপতি নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন না অশোক গেহলট। দলনেত্রী সনিয়া গান্ধীর সঙ্গে বৈঠকের পর একথা জানালেন রাজস্থানের এই বর্ষীয়ান নেতা তথা মুখ্যমন্ত্রী। রবিবার কংগ্রেস বিধায়করা কার্যত হাইকমান্ডের দুই প্রতিনিধি মল্লিকার্জুন খাড়গে ও অজয় মাকেনের বিরুদ্ধে কার্যত বিদ্রোহ ঘোষণা করেছিলেন। তাঁরা হাইকমান্ডের এই দুই প্রতিনিধিকে জানিয়েছিলেন, তাঁদের শর্ত অনুযায়ী রাজস্থানের পরবর্তী মুখ্যমন্ত্রী বেছে নিতে হবে। পাশাপাশি জানিয়েছিলেন যে গেহলট হাইকমান্ডের প্রতিনিধি হিসেবে কংগ্রেস সভাপতি নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করলে তারপর তিনি রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী বেছে নেবেন।

তার আগে রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী বাছা হলেও শচীন পাইলট বা তাঁর কোনও প্রতিনিধিকে রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী করা যাবে না। এমনটাই হাইকমান্ডের প্রতিনিধিদের শর্ত দিয়েছিলেন গেহলট সমর্থন রাজস্থানের কংগ্রেস বিধায়করা। এই শর্ত মাকেনরা মানেননি। সেই জন্য গেহলটের অনুগামী বিধায়করা কংগ্রেস পরিষদীয় বৈঠকে যোগই দেননি।

এনিয়ে গেহলটের ওপর অসন্তুষ্ট ছিলেন কংগ্রেস সভানেত্রী সনিয়া গান্ধী। বৃহস্পতিবার দলনেত্রীর সঙ্গে দেখা করে এনিয়ে সনিয়ার মানভঞ্জনের চেষ্টা করলেন কংগ্রেস সভানেত্রী। তিনি জানান, রাজস্থানে তাঁর সরকারের আমলে ব্যাপক উন্নয়ন ঘটছে। তিনি দলের সভাপতি নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে চান না। শুধুমাত্র রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রীই থাকতে চান। তবে, সেনিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার ভার কংগ্রেস সভানেত্রীর হাতেই দিয়েছেন গেহলট।

আরও পড়ুন- গালওয়ান সংঘাত অতীত, ভারত-চিন সম্পর্কে বরফ গলার ইঙ্গিত চিনা রাষ্ট্রদূতের

দলনেত্রীকে তিনি জানিয়েছেন, তিনি একজন শৃঙ্খলাবদ্ধ সৈনিক। এই প্রসঙ্গে গেহলট বলেন, ‘কংগ্রেস পরিষদীয় দলে যাতে সিদ্ধান্ত পাশ হয়, সেটা দেখা আমারই দায়িত্ব ছিল। কিন্তু, সেটা আমি করতে পারিনি। সেই কারণে আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছি যে কংগ্রেস সভানেত্রী নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করব না। এটা আমার সিদ্ধান্ত।’

গেহলট অনুগামী ৯০ জন কংগ্রেস বিধায়ক রাজস্থানের স্পিকার সিপি জোশীর হাতে কয়েকদিন আগে পদত্যাগপত্রও জমা দিয়েছিলেন। ওই বিধায়করা পদত্যাগ করলে, রাজস্থানে কংগ্রেসের সরকারই পড়ে যাবে। স্বভাবতই স্পিকার সেই পদত্যাগপত্র গ্রহণ করেননি। এই প্রসঙ্গে গেহলট সাংবাদিকদের জানান, রাজস্থান কংগ্রেসে কোনও সমস্যা নেই। যা আছে, সেটা সম্পূর্ণ দলের অভ্যন্তরীণ ইস্যু। শীঘ্রই সেই সমস্যা মিটে যাবে।

Read full story in English

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Politics news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Ashok gehlot says that he would not contest elections

Next Story
গেহলট বেঁকে বসেছেন, তাই কি কংগ্রেস সভাপতি পদে হাইকমান্ডের বাজি ডিগ্গি রাজা?