বড় খবর

মহিলা নেত্রীকে কুপ্রস্তাব, অভিযোগ ওড়ালেন বিজেপির জেলা সভাপতি

সোশাল মিডিয়ায় এই অভিযোগের ভিডিও ছড়িয়ে পড়তেই রাজ্য-রাজনীতি তোলপাড় হয়ে যায়। ওই নেত্রী রাজ্য সভাপতির কাছে বিচারের জন্য আবেদন জানিয়েছেন।

বিজেপির বিষ্ণুপুরের সাংগঠনিক জেলা সভাপতির বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ তুললেন দলেরই এক নেত্রী। সোশাল মিডিয়ায় এই অভিযোগের ভিডিও ছড়িয়ে পড়তেই রাজ্য-রাজনীতি তোলপাড় হয়ে যায়। যদিও এটাকে ষড়যন্ত্র বলেই দাবি করেছেন বিজেপির বিষ্ণুপুর জেলার সভাপতি। ওই নেত্রী রাজ্য সভাপতির কাছে বিচারের জন্য আবেদন জানিয়েছেন। ভিডিওতে অমিতা মুখোপাধ্যায় বিজেপির জেলা মহিলা মোর্চার প্রাক্তন জেলা সম্পাদক হিসাবে নিজের পরিচয় দিয়েছেন।

ওই ভিডিওতে অমিতা মুখোপাধ্য়ায় দাবি করেছেন, “আমি দীর্ঘ দিন ধরে ভারতীয় জনতা পার্টির সক্রিয় সদস্য হিসাবে কাজ করেছি এবং এখনও করছি। বিষ্ণুপুর সাংগঠনিক জেলার মহিলা মোর্চার সম্পাদক ছিলাম। এখন কোনও পদে সুজিতদা আমাকে রাখেননি। আমি সজিতদাকে বলেছিলাম। সুজিতদা আমাকে কুপ্রস্তাব দিয়েছিলেন।” এই অভিযোগের প্রেক্ষিতে বাঁকুড়ায় শোরগাল পড়ে গিয়েছে।

ওই নেত্রীর অভিযোগ, তাঁর বাড়িতে গিয়েও শ্লীলতাহানি করার চেষ্টা করেছেন বিজেপি নেতা সুজিত অগাস্তি। তিনি ২১ তারিখ দলীয় পদের জন্য রাজ্য দফতরে অমিতাভবাবুর কাছে গিয়েছিলেন বলে জানিয়েছেন। সেই কথা শুনেও অকথ্য ভাষায় অপমান করেছেন জেলা সভাপতি, দাবি ওই নেত্রীর। ওই ভিডিওতে তিনি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ ও বিষ্ণুপুর লোকসভার সাংসদ সৌমিত্র খাঁয়ের দৃষ্টি আকর্ষণ করছেন জেলা সভাপতির বিচারের দাবিতে।

এদিকে বিজেপির বিষ্ণুপুর জেলা সভাপতি সুজিত অগাস্তি ওই নেত্রীর অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। সুজিতবাবু বলেন, “এটা চক্রান্ত। বাকি কথা রাজ্য নেতৃত্ব বলবে।”

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Web Title: Bankura bjp woman leader amita mukherjee alleges malpractice against the bishnupur district president

Next Story
‘ভাইপো যা বলছেন মুখে আনা যায় না-এটাই বাংলার সংস্কৃতি?’, কটাক্ষ নাড্ডার
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com