বড় খবর

প্রার্থী ঘোষণার আগেই জটু লাহিড়ীর নামে দেওয়াল লিখন, অস্বস্তিতে তৃণমূল

প্রথমবার নন্দীগ্রামে গিয়ে ১৮ জানুয়ারি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সেখান থেকে লড়াইয়ের জন্য নিজের প্রার্থীপদ নিজেই ঘোষণা করেছিলেন।

জটু লাহিড়ীর নামে দেওয়াল লিখন

প্রশান্ত কিশোরকে নিশানা করে বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূল প্রার্থীপদ ঘোষণা করার আগেই নিজের প্রার্থীপদ ঘোষণা করে দিলেন শিবপুরের বর্ষীয়ান তৃণমূল বিধায়ক জটু লাহিড়ী। এমনকী বিধায়কের নামে সমর্থনে দেওয়াল লিখন শুরু হয়ে গিয়েছে এলাকায়। যা নিয়ে প্রবল অস্বস্তিতে পড়েছে তৃণমূল শিবির।

বিধানসভা নির্বাচনের দামামা বাজলেও এখনও তৃণমূল দলের তরফে প্রার্থী ঘোষণা হয়নি। তার আগেই হাওড়ার শিবপুর বিধানসভা কেন্দ্রে তৃণমূলের বর্তমান বিধায়ক জটু লাহিড়ীর সমর্থনে দেওয়াল লিখন নিয়ে শুরু হয়েছে নয়া বিতর্ক।দেওয়াল লিখনে “আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে শিবপুর কেন্দ্রে তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী জটু লাহিড়ীকে ঘাসের উপর জোড়াফুল চিহ্নে ভোট দিন”, এমনটাই লেখা। রয়েছে ঘাসফুল প্রতীক। দলের প্রার্থীদের নাম ঘোষণার আগেই এভাবে একতরফাভাবে জটু লাহিড়ীর সমর্থনে দেওয়াল লিখন নিয়ে কার্যতই দলের অন্দরে অস্বস্তি বেড়েছে।

এ বিষয়ে তৃণমূলের চেয়ারম্যান অরূপ রায়ের বক্তব্য, বিষয়টি দল দেখবে। উল্লেখ্য, সোমবার সন্ধ্যায় হাওড়ায় নিজের কেন্দ্রে এক সাংবাদিক বৈঠকে দলের ঘোষণার আগেই আসন্ন বিধানসভায় প্রার্থী হিসাবে নিজের নামে ঘোষণা করেছেন শিবপুরের বিধায়ক জটু লাহিড়ী। এর আগে শুভেন্দু অধিকারী বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর প্রথমবার নন্দীগ্রামে গিয়ে ১৮ জানুয়ারি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সেখান থেকে লড়াইয়ের জন্য নিজের প্রার্থীপদ নিজেই ঘোষণা করেছিলেন। দলনেত্রীর স্টাইলে এবার নিজের প্রার্থীপদ ঘোষণা করেছেন বিধায়ক।

সাংবাদিক বৈঠকে জটু লাহিড়ী বলেন, “আমি নিশ্চিতভাবে জানি বিধায়ক হিসেবে আমি আবার আসব।” তিনি ওই কেন্দ্র থেকে পাঁচবার নির্বাচিত হয়েছে। এবারও জয়ের ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী তিনি। সোমবারের সাংবাদিক বৈঠকে ভোট কুশলী প্রশান্ত কিশোরকেও কটাক্ষ করেন। জটু লাহিড়ী বলেন, “জেলা নেতৃত্ব যা বলবে তাই করব। আর কারও কথায় দলীয় কাজ করব না।”

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Web Title: Before announcement of candidate wall written in the name of tmc mla jatu lahiri

Next Story
চার বছর পর ফের দার্জিলিংয়ে দিলীপ, কালো পতাকা দেখালেন মোর্চার কর্মীরা
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com