বড় খবর

‘রাজ্যের মন্ত্রী দল ভাঙনে লিপ্ত’, বিজেপি বিধায়কের তৃণমূল যোগে খোঁচা শমীকের

BJP: গোয়ায় সম্প্রতি তৃণমূলের ফ্লেক্স এবং পোস্টার ছিঁড়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। সেই প্রসঙ্গে এদিন বিজেপি মুখপাত্র বলেন, ‘বিজেপি কোনও ছেঁড়াছেড়ির মধ্যে নেই।’

BJP Bengal, TMC, MLA Rejoin
এদিন বিজেপি অফিসে সাংবাদিক বৈঠক করেন শমীক ভট্টাচার্য।

BJP: বিধানসভা ভোটের পর দলের বিরুদ্ধে বেসুরো রায়গঞ্জের বিজেপি বিধায়ক কৃষ্ণ কল্যাণী। জল্পনাকে সত্যি করেই বুধবার তিনি কলকাতায় তৃণমূলে যোগ দেন। ক্যামাক স্ট্রিটের এক অভিজাত হোটেলে এই দলবদলে উপস্থিত ছিলেন শাসক দলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়। এদিন সাংবাদিক বৈঠকে সেই দলবদলকে কটাক্ষ করেছে বিজেপি। দলের মুখপাত্র শমীক ভট্টাচার্য বলেন, ‘ রাজ্যের পরিষদীয় মন্ত্রী দল ভাঙনে লিপ্ত। তিনি আবার শিল্পমন্ত্রী। বাইরে থেকে শিল্প-বিনিয়োগ আনতে পারছেন না। বরং এ রাজ্যের শিল্পপতিদের বাইরে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। সেই শিল্প –বাণিজ্য মন্ত্রী অন্য দল থেকে বিধায়ক আনছেন।‘

তাঁর মন্তব্য, ‘কৃষ্ণ কল্যাণীর এই কাজের জন্য বিজেপি জনগণের কাছে জোড়হাতে ক্ষমাপ্রার্থনা করবে। মানুষের রায় নিয়ে তাঁদের সঙ্গে বেইমানি করার জন্য। সমাজের বিভিন্ন অংশের প্রতিনিধিকে এবার বিধানসভায় প্রার্থী করেছে বিজেপি। সেই প্রার্থী বাছাইয়ের অংশ ছিলেন কৃষ্ণ কল্যাণী।‘

গোয়ায় সম্প্রতি তৃণমূলের ফ্লেক্স এবং পোস্টার ছিঁড়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। সেই প্রসঙ্গে এদিন বিজেপি মুখপাত্র বলেন, ‘বিজেপি কোনও ছেঁড়াছেড়ির মধ্যে নেই। মুখ্যমন্ত্রী গোয়ায় যাচ্ছেন, সেখানকার পরিবেশ, হাওয়া ভালো। উনি একটু হাওয়া বদল করে আসুন।‘  

এদিকে, জল্পনাই সত্যি, তৃণমূলে যোগ দিলের আরও এক বিজেপি বিধায়ক।দক্ষিণ কলকাতার এক হোটেলে এদিন জোড়া-ফুল পতাকা হাতে তুলে নিয়েছেন রায়গঞ্জের বিজেপি বিধায়ক কৃষ্ণ কল্যাণী। তৃণমূল মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় এবং তৃণমূলের হিন্দিভাষী সেলের সভাপতি তথা জোড়াসাঁকোর বিধায়ক বিবেক গুপ্ত কৃষ্ণ কল্যাণীর হাতে দলীয় পতাকা তুলে দেন।

বিধানসভা ভোটের আগেই তৃণমূল ছেড়ে বিজেপি-তে গিয়েছিলেন কৃষ্ণ কল্যাণী। পদ্ম প্রতীকে রায়গঞ্জে ভোটে লড়াইয়ের টিকিট পেয়েছিলেন। পরে জয় পেয়ে বিধায়ক হন এই তৃণমূল ত্যাগী। এরপরই কৃষ্ণের মোহভঙ্গ শুরু হয়। রায়গঞ্জের সাংসদ তথা প্রাক্তন কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী দেবশ্রী চৌধুরীর সঙ্গে বিরোধ শুরু হয় তাঁর। যা ক্রমেই বাড়তে থাকে। দল-বিরোধী নানা মন্তব্য করেন তিনি। দলবিরোধী কাজের অভিযোগে কৃষ্ণকে শোকজ করেছিল বিজেপি। শোকজের সিদ্ধান্ত জানার পরেই দলত্যাগের কথা ঘোষণাও করেন বিধায়ক।

শেষ পর্যন্ত, ‘ঘরওয়াপসি’-ই হল রায়গঞ্জের বিজেপি বিধায়কের। তৃণমূলে যোগ দিলেন কৃষ্ণ কল্যাণী। বিজেপিতে যোগদানকে ‘৬ মাসের ভুল’ বলে উল্লেখ করেছেন বিধায়ক কৃষ্ণ কল্যাণী। কেন তাঁর বিজেপি ত্যাগ? জবাবে বিধায়ক বলেছেন, ‘বিজেপিতে ভালো কাজের মূল্যায়ণ হয় না। ভালো কাজের পরিবেশ নেই। হয় শুধু ষড়যন্ত্র। এই ষড়যন্ত্রকে হাতিয়ার করে রাজনৈতিক যুদ্ধ জেতা সম্ভব নয়। উল্টোদিকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভাল কাজে আমি অনুপ্রণিত। স্বাস্থ্যসাথী, কন্যাশ্রী, রূপশ্রীর মতো ভালো প্রকল্পের তুলনা হয় না। তাই ভালো কাজ করার জন্যই তৃণমূলে যোগ দিলাম।’

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Politics news here. You can also read all the Politics news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Bengal bjp slams tmc over its mlas joining to ruling camp state

Next Story
দলিত নিয়ে নির্দেশে স্থগিতাদেশ নয়, স্পষ্ট জানিয়ে দিল সুপ্রিম কোর্ট, কেন্দ্রের আবেদন খারিজ শীর্ষ আদালতেসোমবারের দলিত বনধে হিংসায় প্রাণহানি ৯ জনের
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com