বড় খবর

মুখ্যমন্ত্রী খুব ব্যস্ত, ডাকলে যাব: সব্যসাচী

দলের সঙ্গে যখন সব্যসাচীর সম্পর্ক তলানিতে গিয়ে ঠেকেছে, সেই প্রেক্ষাপটে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উদ্দেশে সব্যসাচীর এহেন বার্তা তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহলের একাংশ।

sabyasacho dutta, mamata banerjee, সব্যসাচী দত্ত, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়
সব্যসাচী দত্ত ও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

যত সময় ঘনাচ্ছে, ততই তৃণমূলের সঙ্গে সব্যসাচী দত্তের সম্পর্কের ফাটল ক্রমশ চওড়া হচ্ছে। মঙ্গলবার বিধাননগরের মেয়র সব্যসাচীর বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব পেশ করেছেন তৃণমূল কাউন্সিলররা। এই প্রেক্ষাপটে এবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নাম নিলেন সব্যসাচী দত্ত। দলের সঙ্গে তাঁর এই সংঘাত নিয়ে দলনেত্রী কি কিছু বললেন? সব্যসাচীর স্পষ্ট জবাব, ‘‘উনি (মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়) খুব ব্যস্ত। সারা রাজ্য সামলান। উনি সময় পেলে, ডাকলে যাব নিশ্চয়ই’’। এদিনও সব্যসাচী দাবি করেন, ‘‘দলের কেউ যোগাযোগ করেননি’’। প্রসঙ্গত, বিগত কয়েক দিনে সব্যসাচীর তোপ থেকে পরোক্ষে হলেও রেহাই পাননি তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এনআরএসকাণ্ডে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সমালোচনা করতেও শোনা গিয়েছিল সব্যসাচীকে। সম্প্রতি মুকুলের সঙ্গে তাঁর ‘সৌজন্য সাক্ষাৎ’-এর সঙ্গে মোদীকে মমতার ‘পাঞ্জাবি’ পাঠানোর সৌজন্যের তুলনাও টেনেছিলেন সব্যসাচী। দলের সঙ্গে যখন সব্যসাচীর সম্পর্ক একেবারে তলানিতে গিয়ে ঠেকেছে, সেই প্রেক্ষাপটে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উদ্দেশে সব্যসাচীর এহেন বার্তা তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহলের একাংশ।

আরও পড়ুন: দলের এত টাকা আছে! প্রশান্ত কিশোর কোথা থেকে পেমেন্ট পাচ্ছেন, প্রশ্ন সব্যসাচীর

এদিকে, ‘দাদা’ ফিরহাদ হাকিমকে ‘বেইমান’ বলার ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই আবারও ‘দাদা’ বলে ডাকলেন বঙ্গ রাজনীতিতে এই মুহূর্তে বহুলচর্চিত সব্যসাচী দত্ত। একসময়ের তৃণমূলের ‘দু’নম্বর’ তথা বর্তমান বিজেপি নেতা মুকুল রায়ের সঙ্গে বসে লুচি-আলুর দম, খিচুড়ি-বেগুনি ভাজা কিংবা হালের পরোটা-ফিশ কাটলেট খাওয়ায় রাতারাতি তৃণমূলে ‘বেইমান- মীরজাফর’ তকমা পান সব্যসাচী। আর কারও কাছ থেকে নয়, ‘দাদা’ ফিরহাদের থেকেই এই ‘উপাধি’ পান সব্যসাচী। এরপরই দাদাকে ‘ভাই’ বলেছিলেন, ‘বেইমান’। তবে মঙ্গলবার কিঞ্চিত সুর নরম করেন সব্যসাচী। এদিন তিনি বলেন, ‘‘ববিদা দাদার মতো। আগামীদিনেও ববিদার জন্য সৌজন্যের দরজা খোলা থাকবে’’। তবে এই উক্তি সুর নরম নাকি ‘সৌজন্যে’র কথা বলে পাল্টা খোঁচা, সে বিষয়ে দ্বিধা বিভক্ত রাজনৈতিক মহল।

অন্যদিকে, অনাস্থা প্রস্তাবের পর সব্যসাচীর তাৎপর্যপূর্ণ জবাব, ‘‘যদি আস্থা ভোটে হেরে যাই, তবে বিরোধী পৌর প্রতিনিধি হিসেবেই থাকব’’। তবে কি সব্যসাচীর বিজেপিতে যোগদান স্রেফ সময়ের অপেক্ষা? সব্যসাচীর কৌশলী জবাব, ‘‘দেখুন না কী হয়’’। প্রসঙ্গত, মঙ্গলবার বিধাননগর পুরসভার চেয়ারপার্সন কৃষ্ণা চক্রবর্তীর কাছে অনাস্থা প্রস্তাব পেশ করেন ডেপুটি মেয়র তাপস চট্টোপাধ্যায়। সব্যসাচীর বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাবে সই করেছেন ৩৫ জন কাউন্সিলর।

Web Title: Bidhannagar mayor sabyasachi dutta mamata banerjee west bengal tmc

Next Story
সোমেনের ইস্তফায় ‘না’ হাইকমান্ডেরsomen mitra, সোমেন মিত্র
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com