বড় খবর

গোয়ায় তৃণমূূলের পোস্টার ছেঁড়ার অভিযোগ, বিজেপি ‘কাপুরুষ’- আক্রমণ জোড়া-ফুলের

সৈকত রাজ্যে উত্তেজনা। এর আগে দুর্নীতির অভিযোগে গোয়ার মুখ্যমন্ত্রী প্রমোদ সাওয়ান্তের পদত্যাগ দাবি করেছে বাংলার শাসক দল।

BJP has been accused of vandalized tmc Mamatas posters in Goa

সৈকত রাজ্যে উত্তেজনা। বৃহস্পতিবার গোয়ায় যাবেন তৃণমূল নেত্রী। তাঁকে স্বাগত জানাতে রাজ্যের বিভিন্নপ্রান্তে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি দেওয়া পোস্টার দেওয়া হয়েছে। সেইসব পোস্টারই ছিঁড়ে ফেলা হয়েছে, যা শাসক দল বিজেপি করেছে বলে অভিযোগ তৃণমূলের।

মঙ্গলবার টুইটে গোয়ায় মমতার মুখ দেওয়া তৃণমূলের ছেঁড়়া পোস্টারের ছবি দিয়েছেন দলের সর্বভারতীয় মুখপাত্র ডেরেক ও’ব্রায়েন। বিজেপিকে নিশানা করেছেন তিনি। এই ধরণের কার্যকলাপকে ‘কাপুরুষোচিত’ বলে দাবি করেন তৃণমূলের রাজ্যসভার এই সাংসদ।

টুইটে ডেরেক ও’ব্রায়েন লিখেছেন, ‘কাপুরুষোচিত। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় গোয়ায় আসার আগে যোগাযোগের সব মাধ্যমে আঘাত আনার চেষ্টা করেছ বিজেপি। কিন্তু তারা একটি বিষয়ে ভুলে গিয়েছে। এইধরণের পোস্টারের কোনও ক্ষতির দায়ে গোয়ান ভেন্ডারেরই। তেমনই চুক্তি রয়েছে। কেন গোমেনকার এন্টারপ্রাইজকে আঘাত করা হচ্ছে? এ রাজ্যের অনের ভালো কিছু প্রাপ্য।’

বিজেপির বিরুদ্ধে নালিশ জানাতে এ দিনই গোয়ার রাজ্যপালের কাছে যেতে পারেন তৃণমূলের প্রতিনিধি দল।

করোনাবিধির দোহাই দিয়ে সোমবারই তৃণমূলের রাজনৈতিক কার্যকলাপ পালনের অনুমতি বাতিল করেছিল সেরাজ্যের সাওয়ান্তকর সরকার। যা নিয়ে শিলিগুড়িতে বিজেপিকে আক্রমণ শানিয়েছিলেন তৃণমূল নেত্রী। মানুষ চাইলে তিনি যেকোনও রাজ্যে যেতে প্রস্তুত বলে ঘোষণা করেন তিনি।

এদিকে গোয়ার প্রমোদ সাওয়ান্ত সরকারের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ তুলে সৈকত রাজ্যের রাজনীতিতে ঝড় উঠিয়েছেন সে রাজ্যের প্রাক্তন রাজ্যপাল সত্যপাল মালিক। যা নিয়ে গোয়া সরকারের বিরুদ্ধে সোচ্চার বাংলার শাসক দল। গোয়ার মুখ্যমন্ত্রীকে ৭২ ঘণ্টার মধ্যে পদত্যাগের দাবি তুলেছে তৃণমূল। এছাড়াও সত্যপাল মালিকের অভিযোগের সত্যতা খতিয়ে দেখতে সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতির তত্ত্বাবধানে উচ্চ স্তরের বিচার বিভাগীয় তদন্তেরও দাবি তোলা হয়েছে।

এই সম্পর্কে টুইটে ডেরেক ও’ব্রায়েন লিখেছেন, ‘রাজ্যপাল মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ করছেন। ১৯৪৭ সালে স্বাধীনতার পর এই ধরণের ঘটনা প্রথম। মেঘালয়ের রাজ্যপাল সেই সময়কার কথা বলছেন যখন তিনি এক বছরের জন্য গোয়ায় ছিলেন। আপনারা কী এই পরিস্থিতিটা বুঝতে পারছেন? আর তিনি দাবি করেছেন যে দুর্নীতি নিয়ে প্রশ্ন করায়র জন্যই তাঁকে মেঘালয়ে পাঠানো হয়েছে। মেঘালয়ের রাজ্যপাল সত্যপাল মালিকের উচিত ছিল বিজেপি সরকারকে ও মুখ্যমন্ত্রীকে বরখাস্ত করা।’

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Politics news here. You can also read all the Politics news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Bjp has been accused of vandalized tmc mamatas posters in goa

Next Story
ফেডারেল ফ্রন্ট নিয়ে মমতার উদ্যোগের প্রশংসায় ডিএমকে-র স্ট্যালিনmk stalin
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com