মনোনয়ন জমা দিতে না পারায় নির্বাচন পিছনোর আর্জি, অভিযোগের আঙ্গুল বিজেপির দিকে

রাজ্যস্তরে ক্ষমতায় থাকা জোট বিজেপি এবং আইপিএফটির মধ্যে সমস্যা শুরু হয়েছিল আগেই। পঞ্চায়েত উপনির্বাচনে একে অন্যের বিরুদ্ধে লড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে, তা আগেই ঘোষণা করা হয়েছিল।

By: Agartala  Sep 12, 2018, 6:21:01 PM

আসন্ন পঞ্চায়েত উপনির্বাচনকে ঘিরে ক্রমশ হাওয়া গরম হচ্ছে ত্রিপুরায়। রাজ্যস্তরে ক্ষমতায় থাকা জোট বিজেপি এবং আইপিএফটির মধ্যে সমস্যা শুরু হয়েছিল আগেই। পঞ্চায়েত উপনির্বাচনে একে অন্যের বিরুদ্ধে লড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে, তা আগেই ঘোষণা করা হয়েছিল। এবার আইপিএফটির পক্ষ থেকে অভিযোগ উঠল তাদের শক্তিশালী হয়ে ওঠার পথে বাধা হয়ে দাঁড়াচ্ছে বিজেপি। বুধবার রাজ্য নির্বাচন কমিশনের কাছে নতুন করে নির্বাচনের দিন ঘোষণার দাবি জানায় আইপিএফটি।

আইপিএফটির পক্ষ থেকে সাধারণ সম্পাদক মঙ্গল দেব বর্মণ অভিযোগ করেছেন, ৩৫টির মধ্যে মাত্র ১০টি গ্রামীন ব্লকে মনোনয়ন জমা দিতে পেরেছে তারা। তিনি আরও জানিয়েছেন, রাজ্য জুড়ে বিভিন্ন জেলায় বিজেপি তাঁর দলের কর্মীদের আক্রমণ করছেন। মঙ্গলবার ত্রিপুরার পঞ্চায়েত নির্বাচনকে কেন্দ্র করে রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে বচসায় অন্তত ১৯ জন আহত হয়েছেন। মঙ্গলবাবু আরও জানান, খুব শিগগির পৃথক তিপরা ভূমির প্রস্তাব পেশ করা হবে।

আরও পড়ুন, ত্রিপুরা পঞ্চায়েত উপ নির্বাচনে সব আসনেই প্রার্থী দিচ্ছে কংগ্রেস

প্রার্থীদের মনোনয়ন জমা দেবার শেষ দিন ছিল বুধবার। এই দিনেও সব ব্লকে মনোনয়ন জমা দিতে না পারায় ওই সব ব্লককে আগামি ৩০ সেপ্টেম্বরের নির্বাচনের আওতায় না রাখার দাবি জানিয়েছে আইপিএফটি। মঙ্গলবার মনোনয়নপত্র জমা দেওয়া নিয়ে কংগ্রেসের সঙ্গেও বচসা হয় বিজেপির। পরিস্থিতি সামাল দিতে কাঁদুনে গ্যাস ছুড়তে হয় পুলিশকে। বিজেপি এবং আইপিএফটির মধ্যে রাজনৈতিক সংঘর্ষের খবর এসছে বক্সানগর এবং সিপাইজলা থেকে। সোনামুড়ার মহকুমা পুলিশ আধিকারিক রাজদীপ দেব সহ তিনজন আহত হয়েছেন সংঘর্ষে।

অন্যদিকে ত্রিপুরার বিজেপি বিধায়ক বীরচন্দ দেব বর্মণ থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন, অজ্ঞাতপরিচয় দুষ্কৃতীর দল তাঁর বাসভবনের গেট ভাঙচুর করেছে। পঞ্চায়েত নির্বাচনকে ঘিরে তৈরি হওয়া অশান্তি নিয়ে ত্রিপুরার সিপিআই(এম) মুখপাত্র গৌতম দাস ইন্ডিয়ান একপ্রেসকে জানিয়েছেন, “বিজেপি-আইপিএফটি জোট সরকারের জমানায় রাজ্য জুড়ে ফ্যাসিবাদী শাসন চলছে।”

ত্রিপুরায় গ্রাম পঞ্চায়েত, পঞ্চায়েত সমিতি এবং জেলা পরিষদের উপনির্বাচনের দিন ধার্য হয়েছে আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর।এবছরের মার্চ মাসে বিজেপি-আইপিএফটি জোট পঞ্চায়েতে ক্ষমতায় আসার পর থেকে ওই সমস্ত আসন খালিই পড়ে ছিল।ত্রিপুরা পঞ্চায়েতের মোট ৩৩৮৬টি আসনে উপনির্বাচন ঘোষণা করেছেন মুখ্য নির্বাচন আধিকারিক জিকে রাও। এর মধ্যে ৩২০৭ টি গ্রাম পঞ্চায়েত, ১৬১টি পঞ্চায়েত সমতি এবং ১৮টি জেলা পরিষদের আসন। মোট সাত লক্ষ আশি হাজার ভোটারের নাম রয়েছে তালিকায়। এর মধ্যে মহিলা ভোটারের সংখ্যা তিন লক্ষ আশি হাজার।

Indian Express Bangla provides latest bangla news headlines from around the world. Get updates with today's latest Politics News in Bengali.


Title: Tripura Panchayat by election: আইপিএফটির অভিযোগ বিজেপির বিরুদ্ধে

Advertisement

ট্রেন্ডিং