scorecardresearch

বড় খবর

রাহুলের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা এবং বাগ্মিতা! মোদী মন্ত্রিসভায় মীনাক্ষী লেখির উদয়ের পথ

Cabinet Reshuffle 2021: ২০১০ সালে বিজেপি যখন দেশের বিরোধী দল, দিল্লিতে শীলা দীক্ষিতের সরকার, তখন লেখিকে বিজেপি মহিলা মোর্চার সহ-সভানেত্রী করা হয়।

Meenakshi Lekhi, BJP MP. MOS
বুধবার রাষ্ট্রপতি ভবনে শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে। ছবি: পিটিআই

Cabinet Reshuffle 2021: ২০১৯-এর সাধারণ নির্বাচনের আগে রব উঠেছিল লোকসভা ভোটে প্রার্থী হচ্ছেন না মীনাক্ষী লেখি। যদিও ২০১৪-এর ভোটে জায়ান্ট কিলার ছিলেন বিজেপির তৎকালীন মুখপাত্র। নিউ দিল্লি আসন থেকে তিনি পরাজিত করেছিলেন ইউপিএ দুই সরকারের কেন্দ্রীয় মন্ত্রী আজয় মাকেনকে। তারপর থেকে বিজেপির দাপুটে সাংসদ এবং মুখপাত্র হিসেবে কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের নজর কাড়েন দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের এই প্রাক্তনী।

কিন্তু ২০১৯-এ যখন মোদী-বিরোধী হাওয়া দেশব্যাপী তখন বিজেপি প্রকাশিত প্রথম দুটি প্রার্থী তালিকায় নাম ছিল না লেখির। কিন্তু তাৎপর্যপূর্ণভাবে প্রথম ও দ্বিতীয় প্রার্থীতালিকায় নাম ওঠে মনোজ তিওয়ারি, পিএস সিং এবং রমেশ বিদুরির। ৭টি লোকসভা আসনের দিল্লিতে তখনও ৪টি জায়গা ফাঁকা। একটি আসনে সদ্যপ্রাক্তন স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষ বর্ধন এবং বাকি তিনটি আসনের দৌড়ে লেখি, উদিত রাজ এবং মহেশ গিরি। যদিও সে বেলায় নিউ দিল্লি আসন থেকেই প্রতিদ্বন্দিতা করেন লেখি। এবং নিকটতম আপ প্রার্থীকে হারিয়ে দ্বিতীয়বারের জন্য সাংসদ হয়েছিলেন তিনি।

এরপরেও দ্বিতীয় মোদী মন্ত্রিসভায় ব্রাত্য ছিলেন মীনাক্ষী।  হঠাৎই তিনি জাতীয় রাজনীতির শিরোনামে আছে রাহুল গান্ধীর বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করে। কংগ্রেস সাংসদের ‘চৌকিদার চোর হে’ স্লোগানের প্রতিবাদ করে কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন নিউ দিল্লির বিজেপি সাংসদ। একঘরে হয়েও ফিরে আসার এই লড়াই নজর কাড়ে মোদী-শাহের। আর সেই লড়াইকে কুর্নিশ জানাতেই বুধবার মন্ত্রিসভার সম্প্রসারণে স্থান হয় মীনাক্ষীর। বিজেপি সূত্রে এমন দাবি করা হয়েছে। শুধু মন্ত্রিসভা স্থান নয়, বিদেশ মন্ত্রকের মতো গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রকের প্রতিমন্ত্রী হয়েছেন এই দাপুটে বিজেপি নেত্রী।

২০১০ সালে বিজেপি যখন দেশের বিরোধী দল, দিল্লিতে শীলা দীক্ষিতের সরকার, তখন লেখিকে বিজেপি মহিলা মোর্চার সহ-সভানেত্রী করা হয়। বিরোধী দলের নেত্রী এবং জাতীয় মুখপাত্র হিসেবে তৎকালীন ইউপিএ সরকারের সমালোচনায় বারবার সক্রিয় হতে দেখা গিয়েছিল লেখিকে। লড়াকু মনোভাবের সঙ্গে সুবক্তা লেখি, দিল্লির আপ সরকারের সমালোচনায় একাধিকবার সরব হয়েছেন। তাই কেজরিওয়ালের সঙ্গে রাজনৈতিক ভাবে লড়তে লেখির আইনের প্রতি জ্ঞান, লড়াকু মানসিকতা এবং বাগ্মিতা তাঁর রাজনৈতিক উত্তরণকে আরও সহজ করেছে। এমনটাই জানিয়েছে বিজেপি সুত্র।

পাশাপাশি সংসদের একাধিক কমিটির সদস্য হিসেবে সংসদীয় রাজনীতির অভিজ্ঞতাও তাঁর গুলে খাওয়া। এসবের মিশেলেই দ্বিতীয় মোদী সরকারের মন্ত্রিসভার বৃহৎ রদবদলে যোগ্যতম স্থান পেলেন বিজেপির এই মহিলা সাংসদ। এমনটাই মনে করছেন বিশ্লেষকরা।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Politics news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Bjp mp to minister of state how lekhi manages her cabinet induction national