কী থাকছে বিজেপির রথে যে মুখ্যমন্ত্রী বলছেন ফাইভ-স্টার হোটেল?

বাংলায় রাজনীতির আলোচনার বিষয় এখন পদ্মশিবিরের রথযাত্রা। তৃণমূল যুবর সর্বভারতীয় সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের পর এবার রথ নিয়ে মুখ খুলেছেন মুখ্যমন্ত্রীও। কিন্তু ঠিক কী থাকছে রথে?

By: Kolkata  Updated: November 14, 2018, 08:35:57 AM

বিজেপির আসন্ন রথযাত্রা যে এখন রাজ্য রাজনীতির মূল আলোচনার বিষয়গুলির একটি, তা অনস্বীকার্য। ‘গণতন্ত্র বাঁচাও’ যাত্রা নিয়ে তৃণমূল কংগ্রেস ও বিজেপির নেতৃত্বের মধ্যে চলছে হুমকি, পাল্টা হুমকি। এরই মাঝে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বিজেপির রথকে পাঁচতারা হোটেলের সঙ্গে তুলনা করেছেন। অবশ্যই তা নিয়ে বিজেপি নেতারা রে রে করে উঠেছেন। কিন্তু কী থাকছে এই রথে, তা নিয়ে কৌতূহলের অন্ত নেই রাজনৈতিক নেতা-কর্মী থেকে সাধারণের মধ্যে। পুরোটা খোলসাও করছেন না রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব।

লালকৃষ্ণ আদবানীর ১৯৯২ সালের ‘রাম রথযাত্রা’ এখনও জাতীয় রাজনীতিতে আলোচ্য বিষয়। এই রথযাত্রাই প্রচারের আলোয় এনেছিল বিজেপি ও আদবানীকে। এরপর দেশের নানা প্রান্তে নানা উদ্দেশ্যে রথ বের করেছে পদ্মশিবির। উত্তরাখন্ডে ‘পরিবর্তন যাত্রা’, ত্রিপুরায় “চলো পাল্টাই” ডাক দিয়ে ‘বিজয় সংকল্প রথ’। আর এবার পশ্চিমবঙ্গে ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে ‘গণতন্ত্র বাঁচাও যাত্রা’ করবে বিজেপি। লক্ষ্য, ওই নির্বাচনে কমপক্ষে ২২টি আসন জয়। এবার বাংলায় তিন জায়গা থেকে রথ বের করতে চলেছে পদ্মশিবির। তারাপীঠে ৫ ডিসেম্বর, কোচবিহার থেকে ৭ ডিসেম্বর, এবং গঙ্গাসাগর থেকে ৯ ডিসেম্বর।

আরও পড়ুন: বিজেপির রথযাত্রায় থাকছেন দেড় হাজার কর্মী, আইনজীবী, রথের মেকানিক

রথে কী থাকছে? সূত্রের খবর, গাড়িকে রথে পরিণত করতে বেশ কিছু বিশেষজ্ঞ এই রথ নির্মাণের দায়িত্বে রয়েছেন। এই রথ-গাড়িতে সমস্তরকম অত্যাধুনিক ব্যবস্থা থাকছে। রথ চলার পথে যাতে কোনওরকম ব্যাঘাত না ঘটে তার ব্যবস্থাও থাকছে। কোনও সমস্যা হলে দক্ষ মেকানিকের দল সামলে নেবে। পুরো গাড়িটি শীততাপ নিয়ন্ত্রিত। এক‍টি অাকর্ষণীয় মঞ্চও থাকবে এই গাড়ি-রথে। ৪০-৪২ দিনের সফরে কোনওরকম বিপত্তি যাতে না হয়, তা নিশ্চিত করা হচ্ছে।

সূত্রের খবর, ভিতরে শৌচালয় অবশ্যই থাকবে। পাঁচ ছ’জনের থাকার ব্যবস্থা করা হবে। শয়নের জন্য কেবিনের ব্যবস্থা, বসার সোফা। এছাড়া খাওয়া-দাওয়ার জন্য উপযুক্ত ডাইনিং টেবিলও থাকবে। জানা গিয়েছে, এছাড়াও এলইডি টিভি, ইন্টারনেটও থাকছে। দেশের খবরও তো রাখতে হবে! তবে রথ বানাতে খরচ কত, আদৌ তাতে কী কী থাকবে, তা প্রকাশ্যে স্পষ্ট বলছেন না রাজ্য বিজেপির কোনও নেতা। বলাই বাহুল্য, খরচের ব্যাপারেও মুখে কুলুপ সকলের।

এহেন রথ নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর মন্তব্যের পর বিজেপি নেতারা পাল্টা সমালোচনায় মুখর হয়েছেন।
বিজেপির রাজ্য সহ-সভাপতি সুভাষ সরকার বলেন, “বিজেপির ভূত দেখছেন। আমরা তো রথ বলছি না, গণতন্ত্র বাঁচাও যাত্রা বলছি। মানুষের উচ্ছাস, আবেগ দেখেই কুুুৎসা রটানো হচ্ছে। গাড়িতে থাকবে বায়ো টয়লেট। গাড়ি খারাপ হলে চটজলদি সারানোর জন্য মেকানিক থাকছেন। দিল্লিতে তৈরি হচ্ছে রথ। কয়েকজনের থাকার মত হবে। অনেকটা ভলভো বাসের মত। বহু বিশিষ্টজনেরা থাকবেন সঙ্গে।” এই সপ্তাহে রথ তৈরি হয়ে যাবে বলেও জানান তিনি।

তাহলে রথে কী এমন থাকছে যে মুখ্যমন্ত্রী বলছেন ফাইভ-স্টার হোটেল? রাজ্য বিজেপি নেতা প্রতাপ বন্দ্যোপাধ্যায় এর জবাবে বলেন, “তেমন কিছু নয়, একটা বাস। তার ওপরে মঞ্চ থাকবে। সেখানে দাঁড়িয়ে বক্তব্য রাখা হবে। এটাই আর কী! মুখ্যমন্ত্রী অনেক কিছুই বানিয়ে বানিয়ে বলেন। বাসে বসার ব্যবস্থা থাকবে। এইটুকুই।”

Get all the Latest Bengali News and West Bengal News at Indian Express Bangla. You can also catch all the Politics News in Bangla by following us on Twitter and Facebook

Web Title:

Bjp rathyatra west bengal details of bus

The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com.
Advertisement