scorecardresearch

গেরুয়া ঝড়ে রেকর্ড জয়, ‘মোদী-গড়ে’ মসনদে ফের বিজেপি

রাজ্য জুড়েই গেরুয়া ঝড়ের দাপট

গেরুয়া ঝড়ে রেকর্ড জয়, ‘মোদী-গড়ে’ মসনদে ফের বিজেপি
বিপুল সংখ্যক আসন জিতে ফের গুজরাটে সরকার গঠন করতে চলেছে পদ্মশিবির।

১৮২ আসন বিশিষ্ট গুজরাট বিধানসভায় সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাওয়ার জন্য প্রয়োজন ছিল ৯২ আসন। বিজেপি নেতারা আগেই দাবি করছেন, পদ্ম-শিবির দেড়শো’র বেশি আসন পাবে। একাধিক বুথ ফেরত সমীক্ষাতেও দেখা গিয়েছে বিপূল সংখ্যক সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে ফের ক্ষমতায় আসতে চলেছে বিজেপি। সেটাই সত্যি করল গুজরাটের মানুষ। বিপুল সংখ্যক আসন জিতে ফের গুজরাটে সরকার গঠন করতে চলেছে পদ্মশিবির।

২০১৭ সালের বিধানসভা ভোটে গুজরাটে ৯৯ আসনে জিতে টানা ক্ষমতা ধরে রেখেছিল বিজেপি। বেশিরভাগ এক্সিট পোল গুজরাটে টানা সপ্তমবারের মতো বিজেপির ক্ষমতায় আসার সম্ভাবনা প্রকাশ করেছে। গুজরাটের ৩৩টি জেলার ১৮২ টি বিধানসভা আসনের জন্য নির্বাচন দুটি ধাপে ১ ডিসেম্বর এবং ৫ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হয়ে।

গুজরাটে ১৮২ টি বিধানসভা আসনের জন্য বিজেপি, কংগ্রেস আম আদমি পার্টির সঙ্গে ত্রিমুখী লড়াইয়ের ছবি ধরা পড়েছে। কড়া নিরাপত্তার মধ্যে সকাল ৮টায় ভোট গণনা শুরু হয়। প্রথম থেকেই গেরুয়া ঝড়ের দাপটে সেভাবে ঘুরে দাঁড়ানোর কোন সুযোগ পায়নি আপ-কংগ্রেস। বেলা যত গড়িয়েছে ততই আরও বেশি স্পষ্ট হয়েছে ফের গুজরাটে সরকার গঠন করতে চলেছে পদ্মশিবির। ভেঙে যেতে চলেছে ২০০২ সালের রেকর্ড।

বিগত ২৭ বছর ধরে গুজরাটে টানা ক্ষমতায় থেকেছ বিজেপি। ১৯৯৫ সাল থেকে গুজরাটে টানা ক্ষমতায় রয়েছে বিজেপি। ১৮২ আসন বিশিষ্ট গুজরাট বিধানসভা নির্বাচনে এবারও এগিয়ে বিজেপি। প্রাথমিক ট্রেন্ডে ধরা ছোঁয়ার বাইরে চলে গিয়েছে বিজেপি। শেষ পর্যন্ত কত ব্যবধানে বিজেপি জেতে সেটাই দেখার জন্য সকাল থেকে কোটি কোটি মানুষের চোখ ছিল সংবাদ মাধ্যমে।

ইতিমধ্যে ১৫৮টি আসনে এগিয়ে রয়েছে বিজেপি। কংগ্রেস মাত্র ১৬টি আসনে এগিয়ে রয়েছে। আপ এগিয়ে রয়েছে ৫টি আসনে। নির্দলের ঝুলিতে মাত্র ৩টি আসন। সকাল থেকে মোদী গড়ে গেরুয়া ঝড় বইতে শুরু করে। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে স্পষ্ট হয়ে যায় ফের একবার সরকার গড়তে চলেছে পদ্মশিবির। সকলেরই চোখ শেষ পর্যন্ত কত আসন পেতে চলেছে বিজেপি সেই দিকে। আমদাবাদে বিজেপির জয়জয়কার। এই অঞ্চলের মোট ২১টি আসনের ২০টিতেই এগিয়ে বিজেপি। মাত্র একটিতে এগিয়ে কংগ্রেস। জামনগরের চতুর্থ রাউন্ডের গণনার পর এগিয়ে গিয়েছেন জাদেজা পত্নী রিভাবা।

কেন্দ্রীয় সংসদীয় মন্ত্রী প্রহ্লাদ জোশী বলেন, “২০০০-২০০১ সাল থেকেই গুজরাট মডেলকে গ্রহণ করেছে মানুষ। বর্তমানে দেশেরও মানুষ এই মডেলকে গ্রহণ করছেন। গুজরাটের মানুষ ও বিজেপি কর্মীদের অভিনন্দন। নির্বাচনের ইতিহাসে এটা বৃহত্তম রেকর্ড”।

২০১৭ সালে ৪৭ শতাংশ ভোট পেলেও সেবার বিজেপির আসন সংখ্যা ছিল ৯৯। কংগ্রেস বিগত নির্বাচনে জিতেছিল ৭৭টি আসন। তবে এবারের নির্বাচনে আম  আদমি পার্টি যেভাবে ঝাঁপিয়েছে, তাতে ত্রিমুখী লড়াইয়ে আখেড়ে লাভ হয়েছে বিজেপিরই। ২০১৭-য় আসন কমেছিল, কিন্তু বেড়েছিল ভোট শতাংশ। এবার আসন এবং ভোট শতাংশ দুই’ই বাড়ল বিজেপির। প্রথম থেকেই গুজরাটের মসনদ ধরে রাখার বিষয়ে আশাবাদী ছিল গেরুয়া বাহিনী।  

২৭ বছর ধরে গুজরাটের ক্ষমতায় বিজেপি। ১৯৯৫ সালের পর ২০১৭ সালে মোদী-হীন গুজরাটে সবচেয়ে খারাপ ফলাফল হয়েছিল বিজেপির। ১৮২ মোট আসনের মধ্যে পদ্ম ফুটেছিল ৯৯টি আসনে। কংগ্রেস পেয়েছিল ৭৭ আসন। তবে, ২০১২-র তুলনায় কম আসন পেলেও গতবারের বিধানসভাতে শতাংশের বিচারে ভোটপ্রাপ্তিতে ভাল ফল করেছিল গেরুয়া দলটি। তাদের দখলে ছিল ৪৯.০৫ শতাংশ ভোট। হাত শিবির পেয়েছিল ৪১.৪৪ শতাংশ ভোট।

২০১২ সালে মোদীর নেতৃত্বে বিধানসভা ভোটে গুজরাটে বিজেপির দখলে ছিল ১১৫টি আসন। তবে, শতাংশের নিরিখে প্রাপ্ত ভোট ছিল ২০১৭-র তুলনায় কম। গেরুয়া বাহিনীর দখলে ছিল ৪৭.৮৫ শতাংশ ভোট। সেবার ৬১টি বিধায়ক জয় পেয়েছিলেন। তাদের প্রাপ্ত ভোট ছিল ৩৮.০৯ শতাংশ। মনে করা হয়েছিল, পাঁচ বছর পর ২০১৭ সালের ভোটে আরও ভাল ফল করবে বিজেপি, কিন্তু তা হয়নি। তবে এবার অতীতের সব রেকর্ড ছাপিয়ে রেকর্ড জয় ছিনিয়ে নিল পদ্মশিবির।

শেষ পাওয়া খবর অনুসারে বিজেপি ১৫৮টি আসনে জয়ী হয়েছে কংগ্রেসের ঝুলিতে ১৬টি আসন, আপ ৫টি আসনে জয়ী হয়েছে। ঘাটলোদিয়ায় মুখ্যমন্ত্রী ভূপেন্দ্র প্যাটেল ৩৪ হাজারের বেশি ভোটে জয়ী হয়েছেন। অন্যদিকে হিমাচল প্রদেশে ম্যাজিক ফিগার ছুঁয়েছে কংগ্রেস। সর্বশেষ আপডেট অনুসারে কংগ্রেস এখানে ৩৭টি আসনে এবং বিজেপি ২৮টি আসনে এগিয়ে রয়েছে। ৩টি আসনে এগিয়ে রয়েছেন নির্দল প্রার্থীরা।

অবশেষে দেড়শো’র আসন পার করল বিজেপি। ইতিমধ্যেই দলের এই সাফল্যে গুজরাট বিজেপি প্রধান সিআর পাতিল এবং গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী ভূপেন্দ্র প্যাটেলের সঙ্গে ফোনে কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তাঁদের দুজনকেই জয়ের অভিনন্দ জানান মোদী। গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী ভূপেন্দ্র প্যাটেলের সঙ্গে ইতিমধ্যে কথা বলেছেন অমিত শাহ। গুজরাট বিজেপি সভাপতির সঙ্গেও কথা হয়েছে। গুজরাটে রেকর্ড জয়ের পথে বিজেপি। গুজরাটের মাজুরা বিধানসভা আসনে বিজেপির হর্ষ সাংঘভি ১ লক্ষের বেশি ব্যবধানে জয়ী হয়েছেন। ঘাটলোদিয়া আসন থেকে জয়ী হয়েছেন গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী ভূপেন্দ্র প্যাটেল।

১৮২টি আসনের মধ্যে শাসক দল কতগুলি আসনে জিতে থামে, গণনার বাকি সময়ে শুধু সেই প্রশ্নের উত্তর পাওয়ার অপেক্ষা! প্রত্যাশিত ভাবেই গুজরাট বিধানসভা নির্বাচনের ফলে নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাওয়ার দিকে এগোচ্ছে বিজেপি। ১৯৮৫ সালে গুজরাটে মাধবসিংহ সোলাঙ্কির নেতৃত্বে কংগ্রেস ১৪৯টি আসনে জয় লাভ করে। তবে এবার বিজেপি সেই রেকর্ডও ভেঙে দিতে চলেছে।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Politics news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Bjp sweeps gujarat as congress falls to lowest numbers ever