বড় খবর

নজরে আদিবাসী ভোট ব্যাংক, বিরসাই দু’পক্ষের তুরুপের তাস

বীরসাকে সঙ্গে নিয়েই একুশের ভোটে বাজিমাত করতে চাইছে বিজেপি ও তৃণমূল কংগ্রেস।

ব্রিটিশ রাজত্বে রাঁচিতে জন্মেছিলেন আদিবাসী নেতা বিরসা মুন্ডা। স্বাধীনতা সংগ্রামী বিরসা মাত্র ২৪ বছর বয়সে ১৯০০-তেই মৃত্যুবরণ করেছিলেন। আদিবাসী ভোট কুড়োতে এই বিরসা মুন্ডাই এখন বাংলার রাজনীতির তরুপের তাস। এর আগে অমিত শাহ বাঁকুড়ার পোয়াবাগানে আদিবাসী শিকারীর মূর্তি না বিরসা মুন্ডার মূর্তিতে মাল্যদান করেছেন তা নিয়েই বিতর্ক দেখা দিয়েছিল। তারই মধ্যে এবার বিরসার মূর্তি তৈরির অনুষ্ঠানে হাজির থাকলেন বাঁকুড়ার তৃণমূল জেলা সভাপতিসহ সভাধিপতি ও দুই বিধায়ক। বীরসাকে সঙ্গে নিয়েই একুশের ভোটে বাজিমাত করতে চাইছে বিজেপি ও তৃণমূল কংগ্রেস।

সম্প্রতি বাংলায় দুদিনের সফরে এসেছিলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। বর্ধমানের পরিবর্তে সভার স্থান বদল করা হয়েছিল বাঁকুড়ায়। সেখানে বিরসা মুন্ডার প্রতিকৃতিতে মাল্যদান করে কর্মসূচি শুরু করেছিলেন দলের প্রাক্তন সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ। তৃণমূল কংগ্রেস অভিযোগ করেছিল ওই মূর্তি এক আদিবাসী শিকারীর। বিরসার নয়। যদিও তারপর ওই মূর্তির শুদ্ধিকরণ করে তৃণমূল নেতৃত্ব। ফের সেই মূর্তিকে শুদ্ধ করে বিজেপি। চাপন-উতোর শুরু হয়ে যায় বিজেপি-তৃণমূলে। এরইমধ্যে ফের বাঁকুড়ায় বিরসার আর এক মূর্তি স্থাপনের কাজ শুরু হয়ে গেল।

আরও পড়ুন- বাংলায় এসেই “পিসির সরকারকে তোপ অমিতের

বাঁকুড়ার তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি শ্যামল সাঁতরা জানান, “আদিবাসীরাই এই মূর্তি তৈরির উদ্যোগ নিয়েছে। বাঁকুড়ার প্রবেশ ও বেরনের সময় এই মূর্তি দর্শন করতে হবে।” বিজেপি নেতৃত্ব এই নয়া মূর্তি স্থাপন নিয়ে কটাক্ষ করতে ছাড়ছে না। বাঁকুড়ার বিজেপি সাংসদ সুভাষ সরকার বলেন, “সাড়ে ৯ বছর ধরে আদিবাসীদের বঞ্চনা করছে। তৃণমূল মূর্তি বসিয়ে পাপের প্রায়শ্চিত্য করতে চাইছে। এভাবে হয় না।” সব কিছু ছেড়ে দিয়ে এখন যুযুধান দুপক্ষই বিরসা মুন্ডার প্রতিকৃতি নিয়ে বিতর্কে জড়াচ্ছে।

অভিজ্ঞ মহলের মতে, বিরসাকে হাতিয়ার করেই আদিবাসী ভোট ব্যাংকে প্রভাব বাড়াতে চাইছে বিজেপি ও তৃণমূল। বাঁকুড়া আদিবাসী অধ্যুষিত এলাকা। ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনে আদিবাসীদের একটা বড় অংশ তৃণমূলের দিক থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছিল। ফলস্বরূপ বাঁকুড়া লোকসভা আসনে বিপুল ব্যবধানে পরাজিত হয়েছিলেন বর্ষীয়াণ তৃণমূল কংগ্রেস নেতা সুব্রত মুখোপাধ্যায়। সেই পরাজয়ের ঘা অখনও শুকোয়নি। ২০২১ বিধানসভা নির্বাচনে এই আদিবাসীদের ভোট ব্যাংক নিয়ে দুপক্ষই হিসেব কষতে শুরু করেছে। আদিবাসীদের মন জয় করতে এখন আস্থা রাখছে বিরসার ওপর। ২৪ বছরে দেশের জন্য প্রান বলিদান দেওয়া বিরসাই এখন যেন ভোট জয়ের চাবি কাঠি।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Politics news here. You can also read all the Politics news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Bjp tmc politics on birsa munda

Next Story
দিলীপের ‘গুজরাত’ মন্তব্য়ে সরগরম বাংলা, ধারালো আক্রমণ তৃণমূলেরdilip ghosh, দিলীপ ঘোষ
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com