মধ্যপ্রদেশকে ‘মদিরা প্রদেশ’ বানাচ্ছে কংগ্রেস, তোপ বিজেপির

রাজ্যের বনভূমিতে পর্যটন শিল্পকে আরও উন্নীত করতে সম্প্রতি সেখানকার রিসোর্টগুলির বার লাইসেন্স পাওয়ার পদ্ধতিকে সরল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে মধ্যপ্রদেশ সরকার।

By: Milind Ghatwai Bhopal  November 2, 2019, 5:37:19 PM

মদ বিক্রি থেকে রাজ্যের আয় বৃদ্ধির সিদ্ধান্তে এবার বিজেপির নিশানায় মধ্যপ্রদেশের কংগ্রেস সরকার। ভারতের মধ্য ভূখণ্ডের এই রাজ্যের বনভূমিতে পর্যটন শিল্পকে আরও উন্নীত করতে সম্প্রতি সেখানকার রিসোর্টগুলির বার লাইসেন্স পাওয়ার পদ্ধতিকে সরল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে মধ্যপ্রদেশ সরকার। এমনকি মদের দোকানগুলিকে আরও উন্নত করার অনুপ্রেরণা দেওয়া হচ্ছে। যাতে সেখানে গ্রাহকরা বসে মদ্যপান করতে পারেন, এমন অভিযোগও তোলা হচ্ছে বিজেপির তরফে। সরকারের দাবি, মদের দোকানে এমন জায়গা না থাকার দরুন অনেকে রাস্তায় বসে মদ্যপান করেন এবং বিশৃঙ্খল পরিস্থিতির সৃষ্টি করেন, তাই এই সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে রাজ্য।

এরপরই মধ্যপ্রদেশ সরকারের এই পদক্ষেপের বিরুদ্ধে সুর চড়িয়েছেন বিজেপির বিরোধী নেতৃত্ব প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান। কংগ্রেস নেতা তথা মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী কমলনাথের সরকারকে সতর্কবার্তা দেন যে মধ্যপ্রদেশকে তিনি “মদিরা প্রদেশ” হতে দেবেন না। শিবরাজ সিং চৌহানের দাবি, বেশিরভাগ সময়ই দেখা যায়, মদ্যপ অবস্থাতেই ধর্ষণের মতো ঘটনা ঘটে থাকে। সরকারের এই ‘মদ্যপানে আস্কারার’ সিদ্ধান্তের ফলে নারীদের সুরক্ষা সংকোচনের পাশাপাশি ক্রমশই বৃদ্ধি পাবে অপরাধ, এবং আইন-শৃঙ্খলা সংক্রান্ত সমস্যারও সম্মুখীন হতে হবে, বলে তাঁর দাবি।

আরও পড়ুন, মহারাষ্ট্র, হরিয়ানার শিক্ষা ঝাড়খণ্ডে নতুন করে ভাবাচ্ছে বিজেপিকে

মহারাষ্ট্রের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী আরও বলেন যে তাঁর সময়কালে একটি নতুন মদের দোকানও রাজ্য আসতে দেয়নি তাঁর সরকার। শুধু তাই নয়, রাজ্যে ধীরে ধীরে মদের দোকান কমানোরও সিদ্ধান্ত নিয়েছিল সেই সময়কার সরকার। বর্ষীয়ান এই বিজেপি নেতা বলেন, “আমরা মদের দোকান সংখ্যা বৃদ্ধির প্রস্তাব পেয়েছি, কিন্তু আমাদের মন্ত্রিসভা সেই সব প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেছিল।” প্রসঙ্গত, রাজস্ব বাড়ানোর জন্য কংগ্রেস সরকারের এই উদ্যোগ যে রাজ্যকে আরও অপরাধের দিকে পরিচালিত করবে এমন কথাও শোনা গেছে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর গলায়।

দেশে যখন মহাত্মা গান্ধীর ১৫০ তম বার্ষিকী উদযাপন করা হচ্ছে, ঠিক সেই মুহুর্তেই গান্ধী আদর্শে বিশ্বাসী কংগ্রেস কীভাবে এই সিদ্ধান্ত নিল, সে বিষয়েও প্রশ্ন তুলেছেন চৌহান। গান্ধীজি নিজে মদ্যপানকে ‘সামাজিক কুফল’ হিসাবেই উল্লেখ করেছিলেন, সেখানে এই কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন সরকারের সিদ্ধান্তে প্রশ্নের মুখে তাদের আদর্শ, এমন তোপই দেগেছেন বিজেপি নেতা। তবে চৌহানের এমন মন্তব্যকে হাস্যকর বলে উড়িয়ে দিয়ে কংগ্রেস নেতা ভূপিন্দর গুপ্ত বলেন, “আপনি (শিবরাজ চৌহান) যখন তৃতীয়বারের মতো মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে শপথ গ্রহণ করেছিলেন, তখন আপনি বলেছিলেন যে রাজ্যে নিষেধাজ্ঞা থাকবে। আপনি তখন তা বন্ধ করেননি কেন? কে আটকেছিল আপনাকে?”

আরও পড়ুন, ‘পকেটে রয়েছেন রাষ্ট্রপতি?’, বিজেপিকে প্রশ্নবাণ শিবসেনার

কংগ্রেস নেতা আরও অভিযোগ করেন যে পূর্ববর্তী বিজেপি সরকার মদের দোকানগুলি খোলা রাখার মেয়াদও বাড়ানোর অনুমতি দিয়েছিল। শুধু তাই নয়, বার্ষিক ১০ লক্ষ টাকা আয়ের পরিবারের ক্ষেত্রে বাড়িতে ১০০ বোতল মদ মজুদ করার অনুমতি দেওয়ার প্রস্তাবও প্রত্যাহার করেছিল শিবরাজের সরকার, এমন কথাও এদিন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীকে স্মরণ করিয়ে দেন ভূপিন্দর গুপ্ত। তিনি আরও বলেন যে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মিথ্যা কথা বলে ইচ্ছাকৃত বিভ্রান্তি তৈরি করছেন।

সম্প্রতি অঙ্গনওয়াড়িতে মিড-ডে মিলে ডিম দেওয়া নিয়ে দু-দলের বাদানুবাদ ওঠে চরম পর্যায়ে। এমনকি বুধবার মধ্যপ্রদেশ বিজেপি দলপ্রধান তথা বর্ষীয়ান নেতা গোপাল ভার্গব সেই বিতর্কে ঘি ঢেলে বলেন, যে সব বাচ্চারা শৈশবে ডিম খেয়ে বড় হবে, তারা ভবিষ্যতে ‘মানুষ খেকো’ হয়ে উঠবে। বিজেপি নেতার এহেন মন্তব্যর পরই ক্রমশই সরগরম হয়ে ওঠে মধ্যপ্রদেশের রাজনীতি।

Read the full story in English

Get all the Latest Bengali News and West Bengal News at Indian Express Bangla. You can also catch all the Politics News in Bangla by following us on Twitter and Facebook

Web Title:

Bjp wont allow cong liquor moves in madhya pradesh to become madira pradesh

The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com.
Advertisement

ট্রেন্ডিং
বিশেষ খবর
X