উত্তর প্রদেশে মহিলাদের জন্য একগুচ্ছ ঘোষণা কংগ্রেসের! থাকছে স্কুটার, স্মার্টফোন প্রতিশ্রুতি

UP Poll 2022: দলের নেত্রী প্রিয়াঙ্কা গান্ধি শুধুমাত্র মহিলাদের জন্য ইস্তেহার প্রকাশ করেন। একগুচ্ছ ফ্রি পরিষেবার প্রসঙ্গের উল্লেখ রয়েছে সেই ইস্তেহারে।

Priyanka Gandhi names mother of Unnao rape victim as Congress candidate in UP polls 2022
প্রিয়াঙ্কা গান্ধি ফাইল চিত্র

UP Poll 2022: উত্তর প্রদেশে মহিলা ভোটারদের কাছে টানতে একগুচ্ছ ঘোষণা কংগ্রেসের। বুধবার দলের নেত্রী প্রিয়াঙ্কা গান্ধি শুধুমাত্র মহিলাদের জন্য ইস্তেহার প্রকাশ করেন। একগুচ্ছ ফ্রি পরিষেবার প্রসঙ্গের উল্লেখ রয়েছে সেই ইস্তেহারে। উল্লেখ, ‘স্মার্টফোন, স্কুটার প্রদান  থেকে নিরাপত্তা এবং স্বাস্থ্য পরিষেবা। প্রতি ক্ষেত্রেই মহিলাদের অগ্রাধিকার দেওয়া হবে।‘

পাশাপাশি বিরোধী শিবিরের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রচার করতে চার্জশিট সামনে আনবে কংগ্রেস। গত তিন দশক ধরে সপা, বিএসপি এবং বিজেপি কীভাবে প্রতিশ্রুতিভঙ্গ করেছে। সেই প্রসঙ্গ উল্লেখ থাকবে চার্জশিটে।

১০ হাজার কোটি টাকার প্রকল্প উদ্বোধনে উত্তর প্রদেশে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। মঙ্গলবার তিনি তিনটি প্রকল্পের শিলান্যাস করেন। গোরক্ষপুর এইমস, সার কারখানা এবং আইসিএমআর এবং আরএমআরসির যৌথ উদ্যোগে উচ্চ প্রযুক্তির গবেষণাগার। এই অনুষ্ঠানের উত্তর প্রদেশের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী অখিলেশ যাদবকে একহাত নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। তাঁর কটাক্ষ, ‘সারা উত্তর প্রদেশ জানে লাল টুপি লাল বাতির কারণ। লাল টুপি মানেই রাজ্যে বিপদের পূর্বাভাস। লাল টুপি যারা পরেন তাঁরা আপনাদের বেদনা, সমস্যা নিয়ে চিন্তিত নয়। তাঁরা শুধু ক্ষমতা চায়, বেআইনি দখলদারি চায়, মাফিয়া রাজ চায়।‘

তাঁর দাবি, ‘গোরক্ষপুরের অনুষ্ঠান প্রমাণ করে দিয়েছে সংকল্প থাকলে নতুন ভারতে কোনও কিছুই অসম্ভব নয়।‘ মোদির কথার সুত্র ধরেই উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ বলেন, ‘পরিত্যক্ত সার কারখানা নতুম উদ্যমে শুরু করার ক্ষমতা একমাত্র বিজেপির আছে। ১৯৯০ সালে এই কারখানা বন্ধ হয়েছ, ২০১৪ পর্যন্ত কেউ কারখানা খোলার ব্যাপারে কর্ণপাত করেনি। এই কারখানার হাত ধরেই পূর্ব উত্তর প্রদেশে উন্নয়নের জোয়ার বইবে।‘  

এদিকে, আগামী বছর উত্তরপ্রদেশে ভোট। বিজেপি কী ক্ষমতা ধরে রাখতে পারবে? সম্প্রতি মুখ খুলেছেন পদ্ম শিবিরের চাণক্য। বিরোধী জোটের (হলেও হতে পারে) প্রভাবের কথা উড়িয়ে অমিত শাহর কথায়, ‘রাজনীতি রসায়ণ বা পদার্থ বিদ্যা নয় যে দুটি দল জোট করলেই ভোট একত্রিত হয়ে যাবে। অতীতে এর বহু উদাহরণ রয়েছে। এর আগে এসপি ও কংগ্রেস, পরে এসপি-কংগ্রেস-বিএসপি জোট বেঁধে ভোটে লড়েছিল কিন্তু জিতেছে বিজেপি। ভোটাররা রাজনীতির পাটিগণিত অনুযায়ী ভোট প্রয়োগ করেন না। এবারও বিজেপি উত্তরপ্রদেশে ক্ষমতায় আসবে।’ উত্তরপ্রদেশের ভোটে কৃষকদের আন্দোলন কোনও প্রভাব ফেলবে না বলেই দাবি শাহর।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Politics news here. You can also read all the Politics news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Congress assures scooty smart phone for women in uttar pradesh in its manifesto national

Next Story
সংসদ চত্বরে তৃণমূলের ধর্নায় অভিষেক, একলা লড়াইয়ের কৌশলী বার্তা!
Show comments